লর্ডসের মাঠে সৌরভ গাঙ্গুলির ঐতিহাসিক জয় এবার বড় পর্দায়।

লর্ডসের মাঠে ন্যাটওয়েস্ট ট্রোফিতে সৌরভ গাঙ্গুলির ঐতিহাসিক জয় নিয়ে বড় পর্দায় ছবি 'দুসরা'

লর্ডসের মাঠে ন্যাটওয়েস্ট ট্রোফিতে সৌরভ গাঙ্গুলির ঐতিহাসিক জয় নিয়ে বড় পর্দায় ছবি 'দুসরা'

২০০২ সালে কোন ঘটনার কথা এখনও আপনার স্মৃতিতে উজ্জ্বল? অনেকেই অনেক কথা বলবেন। তবে যারা ক্রিকেটের পোকা তাঁরা লাফিয়ে উঠবেন সবার আগে। কারণ ২০০২ সালে আমরা দাদাগিরি দেখেছি। লর্ডসের মাঠে সৌরভ গাঙ্গুলির (Sourav Ganguly) সেই ঐতিহাসিক ন্যাটওয়েস্ট (Natwest) সিরিজ জয়ের বছর এটা। আর তার চেয়েও উজ্জ্বল স্মৃতি হল দাদার নিজের জার্সি খুলে ব্যাল্কনি থেকে সেটা ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে টিমকে অভিবাদন জানানো। দাদার ভক্তরা শুনে রাখুন মহারাজের সেই জয় নিয়েই বড় পর্দায় আসতে চলেছে স্পোর্টস মুভি 'দুসরা'। 

তবে এটা দাদার বায়োপিক নয়। সেটা আগেই জানিয়ে দিয়েছেন ছবির পরিচালক অভিনয় দেও। টুইটারে ছবির প্রথম পোস্টারের ছবি টুইট করেছেন পরিচালক। ছবির পোস্টারে দেখা যাচ্ছে সেই বিখ্যাত দৃশ্য। যেখানে নিজের জার্সি খুলে হাওয়ায় ওড়াচ্ছেন সৌরভ। দাদার এই উচ্ছ্বসিত মুহূর্ত রাখা হয়েছে খানিকটা সেপিয়া আর খানিকটা ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট টোনে। মূলত এটা অতীতের ঘটনা বলেই বোধ এটা করা হয়েছে। তবে তার নিচেই জিদি দেখেন তাহলে দেখতে পাবেন সেখানে ছোট্ট একটি রঙিন অংশে একটি মেয়ে জানলা খুলে দেখছে। পরিচালক জানিয়েছেন এই অল্প বয়সি মেয়েটির দৃষ্টিভঙ্গী দিয়েই ছবির গল্প এগিয়ে চলবে।       

ছবির গল্প লিখেছেন অ্যাঞ্জেলো ডায়াস। শিকাগো নিবাসি মাশা ও রহান সাজদেও এই ছবির এগজিকিউটিভ প্রডিউসারের দায়িত্বে আছেন। ছবিতে অভিনয় করেছেন প্লাবিতা বটঠাকুর, কৃষ্ণ গোকানি, সমিধা গুরু। পরিচালক জানিয়েছেন পিতৃতান্ত্রিক সমাজ আর পারিবারিক নিয়মের জালে কোণঠাসা হয়ে পড়া একটি মেয়ে কীভাবে আলোর পথ খুঁজে পায় তাই নিয়েই ছবির গল্প। এখানে ২০০২ সালের দাদার এই জয় একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। এই জয় দেখেই অনুপ্রাণিত হয় মেয়েটি এবং কীভাবে সে বাঁচার লড়াই শুরু করে সেটাই ছবির মূল বিষয়। তবে পোস্টারে সৌরভ গাঙ্গুলির ছবি ব্যবহার করলেও পরিচালক বারবার করে বোলে দিয়েছেন যে এই ছবি একেবারেই দাদার বায়োপিক নয়, সত্যি বলতে কি এই ছবির সঙ্গে সৌরভ গাঙ্গুলির ব্যক্তিগত জীবন ও পেশাদারি জীবনের ওঠাপড়ার কোনও সম্পর্ক নেই।  

 

এখন বিশ্বকাপ ক্রিকেট চলছে তাই এখন এই পোস্টার রিলিজ করাটা অনেকেই পরিচালকের বুদ্ধিমত্তার পরিচয় বোলে ব্যক্ত করেছেন। ছবির পোস্টার রিটুইট করেছেন জনপ্রিয় ফিল্ম বিশেষজ্ঞ ও সমালোচক তরণ আদর্শও। পরিচালক অভিনয় দেও আর আগে 'দেল্লি বেলি' আর'ব্ল্যাকমেল' এর মতো ছবি পরিচালনা করেছেন। তাঁর ছবি তৈরির দৃষ্টিভঙ্গী যে একেবারে স্বতন্ত্র সেটা বলিউডে বেশ স্পষ্ট। তাই অনেকেই এই ভিন্ন ধারার স্পোর্টস ড্রামা নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী। এর আগে বিভিন্ন ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব যেমন মিলখা সিংহ, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি বা মেরি কমকে নিয়ে বলিউডে হিট ছবি তৈরি হয়েছে। এখন অভিনয় দেওর এই ছবি বলিউডে আলাদা কোনও ছাপ ফেলতে পারে কিনা সেটাই দেখার। 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!

বিনোদন বিভাগে আরও জানতে হলে
Load More Entertainment Stories