PDA অ্যালার্ট: স্বামী রোশনের সঙ্গে শ্রাবন্তীর হনিমুনের ছবি দেখলে আপনি গদগদ হতে বাধ্য!

PDA অ্যালার্ট: স্বামী রোশনের সঙ্গে শ্রাবন্তীর হনিমুনের ছবি দেখলে আপনি গদগদ হতে বাধ্য!

আহা, ওরকম করছেন কেন, দেখুন তো কী সুন্দর ছবিগুলো। এই তো নীচের ছবিতে ওঁরা কেমন পাখির ছানা সেজেছেন! দুটিতে জুটিতে বসে কেমন ডানা ঝাপটাচ্ছেন দেখুন! হোক না এটা শ্রাবন্তীর তিন নম্বর (ঘোষিত, নিন্দুকে বলছে, অঘোষিত নাকি আরও বেশি!) বিয়ে। কিন্তু নতুন বর তো নতুন বরই হয় বলুন! তার সঙ্গে একটু দুষ্টু-মিষ্টি হতে কার না ইচ্ছে করে? শ্রাবন্তীরও (Srabanti) হয়েছিল, তাই স্বামী রোশনের সঙ্গে হনিমুনে (Honeymoon) গিয়ে তিনিও একটু দুষ্টুমি (PDA) করে ছবি তুলেছেন। নীচে সেই ছবিগুলি রোশন মন্টি ভারী আহ্লাদ করে নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে পোস্টিয়েছেন। তা পোস্টাতেই পারেন, তাঁর বউ, তাঁর হ্যান্ডল, তাঁর হনিমুন, তিনি পোস্টাবেন না তো পোস্টাবে কে শুনি! সেই ছবিগুলি রইল এখানে...দেখে আগে জীবন সার্থক করুন!




 

 

 


View this post on Instagram


 

 

Hunted ##### ready to get served to birds...... @srabanti.smile


A post shared by Roshan Singh (@roshan_monty) on




এটাই সেই পাখির ছানা সাজার ছবি! 




 

 

 


View this post on Instagram


 

 

Somewhere on the earth @srabanti.smile


A post shared by Roshan Singh (@roshan_monty) on




এবার শ্রাবন্তী এসেছেন অ্যাফ্রো লুকে!




 

 

 


View this post on Instagram


 

 

You can't buy happiness but surely you can buy some tea.


A post shared by Roshan Singh (@roshan_monty) on




এখানে রোশন বোঝাতে চেয়েছেন যে, আনন্দ কিনে দিতে না পারলেও, তিনি শ্রাবন্তীকে অনেক-অনেক ভাঁড় চা খাওয়াতে পারবেন! রসিকতা আর কী!


তা এসব ছবি-টবি দেখে শ্রাবন্তীর ভক্তরা যারপরনাই খুশি হয়েছেন! আহা, গিন্টু শেষ পর্যন্ত তা হলে থিতু হল, সঠিক জীবনসঙ্গিনী খুঁজে পেল, এমনটা বলেও হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছেন! কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, গিন্টু কি আদৌ থিতু হলেন? একে তো জামা পাল্টানোর মতো করে শ্রাবন্তী বর পাল্টাচ্ছেন! আজ রাজীব, কাল কৃষণ ব্রজ, পরশু রোশন মন্টি...শেষবার তো লজ্জার মাথা খেয়ে কলকাতায় নয়, সোজা অমৃতসরে গিয়ে বিয়ে করেছিলেন। তা শ্রাবন্তী অবশ্য বলেছিলেন যে, গুরুদ্বারে বিয়ে করতে চান বলেই নাকি তিনি ওখানে গিয়ে বিয়ে করেছিলেন! লাও ঠেলা, কলকাতায় কি গুরুদ্বার কম পড়িয়াছিল? এই তো, কোয়েল-নিশপাল কী সুন্দর রাসবিহারি রোডের মোড়ের গুরুদ্বারে বিয়ে করেছিলেন, তারপর নাচতে-নাচতে কেমন বাড়ি গিয়েছিলেন, আপনিও তো তা-ই করতে পারতেন! 


আসলে নিন্দুকে বলেছে, লোকে হাসবে বলেই নাকি শ্রাবন্তী এবারের বিয়েটা নিয়ে ঢাকঢাক গুড়গুড় করেছিলেন! কৃষণ ব্রজর সময়ে বেচারি এনগেজমেন্ট করতে গিয়ে হাউজ দ্য জোশ-এর বশে ভুল করে বিয়েটা করে ফেলেছিলেন! তারপর বুঝতে পারেন যে, নাঃ, মিসটেক মিসটেক! কিন্তু তদ্দিনে আইনি সিলমোহর ইন, ফলে আইনি পথেই আবার আউট করতে হয়েছে মিস্টার ব্রজকে! রাজীবের সময়টা অবশ্য তিনি ১৬ বছরের খুকিটি ছিলেন, তখন এমনিতেই তাঁর চোখে প্রেমের চশমা ছিল, তাই...অবশ্য দেখতে গেলে সেই বিয়েটাই সবচেয়ে বেশিদিন টিকেছিল!


এসবের মাঝে কষ্ট হয় শ্রাবন্তীর ছেলের কথা ভাবলে! বেচারা টলিউডের শাহিদ কপূর হয়ে গেল! মা-ও বারবার বিয়ে করেন, আর ছেলেরও গণ্ডা-গণ্ডা 'বাবা' জোটে! কী মুশকিল!


 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!



আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!