সুকুমার রায়ের কবিতা আবৃত্তি করে শোনাল সুস্মিতা সেনের মেয়ে, ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

সুকুমার রায়ের কবিতা আবৃত্তি করে শোনাল সুস্মিতা সেনের মেয়ে, ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

ঠিকানা মুম্বই, কর্মক্ষেত্র মুম্বই। কিন্তু তাতে তো নিজের শিকড় ভোলা যায় না। ভোলেননি তিনি। অর্থাৎ সুস্মিতা (Sushmita) সেন। 

মডেলিং দিয়ে কেরিয়ার শুরু। পরে শুরু করেন অভিনয়। যখন যে কাজ করেছেন, ডেডিকেশন নিয়ে কোনও আপোষ করেননি। বলিউডে নিজের পায়ের তলার জমি শক্ত করেছেন অনেকদিন ধরেই। কিন্তু মনে প্রাণে এখনও তিনি বাঙালি (Bengali)। বিশেষ কোনও অনুষ্ঠানে সাজ-পোশাক হোক বা ইনস্টাগ্রামে ছবি শেয়ারের ক্ষেত্রে 'দুগ্গা দুগ্গা' লেখা সবেতেই বাঙালিয়ানার ছাপ স্পষ্ট। মেয়েদের মধ্যেও সেই ধারা বজায় রাখতে পেরেছেন তিনি। তার প্রমাণ মিলল সম্প্রতি। 

সুস্মিতার দুই মেয়ে। রেনে এবং আলিশা (Alisha)। দুই দত্তক সন্তানকেই নিজের আদর্শে বড় করে তুলছেন। সেই আলিশা এবার বাংলায় কবিতা বলল। সেই ভিডিও ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করলেন নায়িকা। সুকুমার রায়ের লেখা 'হুঁকোমুখো হ্যাংলা' কবিতাটি বলেছে আলিশা। তার উচ্চারণে খুব একটা প্রবাসের টানও নেই। বরং স্পষ্ট উচ্চারণে কবিতা বলেছে সে। যা আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। বলি টাউনের বেশ কিছু সেলেব তা লাইক করেছেন। কেউ-কেউ আবার সুস্মিতাকে বলিউডের সুপার মম আখ্যা দিতে চান। 

আলিশার ভিডিও শেয়ার করে সুস্মিতা লিখেছেন, "আমার আলিশা সোনা আবোল-তাবোল থেকে সুকুমার রায়ের লেখা হুঁকোমুখো হ্যাংলা বলছে। কতটা আনন্দ হচ্ছে, কতটা গর্ব হচ্ছে বলে বোঝাতে পারব না। তাই তোমাদের সঙ্গে শেয়ার করলাম। ওয়েল ডান আলিশা। আরও এরকম হবে। দুগ্গা দুগ্গা।" আলিশা কবিতা বলার সময় ভুলে গেলে সেই লাইন বা সেই শব্দ ধরিয়ে দিতে শোনা যায় সুস্মিতাকে। অর্থাৎ তিনিও যে বাংলা ভুলে যাননি, এ তারই প্রমাণ।

 

আসলে সুস্মিতার জীবন খোলা খাতার মতো। কোনও কিছু নিয়েই লুকোচুরি পছন্দ করেন না। কোনও সম্পর্কে জড়ালে তা নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলেছেন। এই মুহূর্তে রোহমান শলের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে নায়িকা। তাঁর সোশ্যাল ওয়াল ফলো করলেই বোঝা যাবে রোহমানকে নিয়ে কতটা পজেসিভ তিনি। নিজেদের ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি, ভিডিও শেয়ার করেন। রোহমান তাঁর থেকে বয়সে ছোট বলে অনেকে ট্রোল করেছিলেন ঠিকই। তাতে পাত্তা দিতে রাজি নন সুস্মিতা। তিনি তাঁর শর্তেও জীবন বাঁচতে জানেন।

ঠিক তেমনই রেনে এবং আলিশাকে দত্তক নেওয়া নিয়েও কোনও লুকোচুরি করেননি। গোটা দুনিয়ার কাছে জানিয়েছিলেন সে খবর। আবার মেয়েদেরও ছোট থেকেই সত্যিটা জেনে বড় হতে শিখিয়েছেন। একা হাতে সামলাচ্ছেন সব কিছু। তাই মনে প্রাণে বাঙালি সুস্মিতা এবং তাঁর মেয়েকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন ওয়েব অডিয়েন্স। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়...