অসম্পূর্ণ প্রেমের 'তাসের ঘর' আসছে, আপনি তৈরি তো?

অসম্পূর্ণ প্রেমের 'তাসের ঘর' আসছে, আপনি তৈরি তো?

প্রেম। ছোট্ট শব্দ। কিন্তু এর ব্যাপ্তি এক একজনের জীবনে এক এক রকম। কেউ প্রেমে খুঁজে পায় ভাল থাকার ঠিকানা। কেউ প্রেমে হারিয়ে ফেলে কাছের বন্ধুকে। কেউ বা ফিরে পায় হারানো রসদ। কিন্তু অসম্পূর্ণ প্রেম?

আপনি ভাবছেন ব্রেকআপ, কি তাইতো? না! এ ঠিক চলতি ব্রেক আপ নয়। কিন্তু প্রেমটা অসম্পূর্ণই থেকে যায় শেষ পর্যন্ত। ঠিক এই ভাবনা নিয়েই বিদুলা ভট্টাচার্যের পরিচালনায় আসছে 'তাসের ঘর' (Tasher Ghor)। বিদুলা (Bidula) এই ছবি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জন্য বাংলা এবং হিন্দি দুই ভাষাতেই তৈরি করেছেন। কিন্তু কোন প্ল্যাটফর্মে এই ছবি মুক্তি পাবে, তা এখনও নিশ্চিত নয়।

চারটে ছোট গল্পকে এক তারে বেঁধেছেন বিদুলা। প্রথম গল্প 'তাসের ঘর'। দ্বিতীয়টির নাম 'মরীচিকা'। তৃতীয় গল্প 'সমাপ্তি' এবং চতুর্থ গল্পের নাম 'একা'। বিদুলার কথায়, "ভালবাসা থাকে। কিন্তু তাও বিভিন্ন কারণে আলাদা হয়ে যেতে হয়। এই থিমের উপর চারটে গল্প। প্রথম গল্পের শেষে দেখা যাবে, একজন বই পড়ছে বসে। পরের গল্প গুলো ওই বইয়েরই। প্রথম গল্পটা ঘুরে ঘুরে আসে। তারপর প্রথম গল্পটা দিয়েই শেষ হবে।"

 

প্রতিটি গল্পেরই কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাজেশ্বর নাগ। আর চার গল্পের চার নারীর চরিত্রে দেখা যাবে অঙ্কিতা চক্রবর্তী, অদ্রিজা রায়, ঈশিকা দে এবং অনুরাধা মুখোপাধ্যায়ের অভিনয়। গল্পগুলি লিখেছেন অর্পিতা রায়চৌধুরি। শুধুমাত্র 'মরীচিকা'র ভাবনা অর্পিতার, কিন্তু কলম ধরেছেন বিদুলা। 

সিকিম মণিপাল ইউনিভার্সিটি থেকে মাস কমিউনিকেশন নিয়ে পড়াশোনা করার পর কিছুদিন সাংবাদিকতা করেছেন বিদুলা। তারপর তিন বছর পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর সহকারী হিসেবে কাজ করেন। জি-অরিজিনালসের জন্য 'লভ লেটার' তৈরি করেন তিনি। এরপর 'প্রেম আমার ২' পরিচালনা করার জন্য রাজ তাঁকে অফার করেন। বিদুলার পরিচালনায় সেই ছবি মুক্তি পায় ২০১৯-এ। এর মধ্যেই চলেছে নিজস্ব শর্ট ফিল্ম এবং ডকুমেন্টারি তৈরির কাজ। যা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মঞ্চে সম্মান পেয়েছে। 

'তাসের ঘর' তৈরির জন্য খুব কম সময় পেয়েছে গোটা টিম। মাত্র নয়দিনের মধ্যে শুটিং শেষ করতে হয়েছে। চারটে গল্প নিয়েই আলাদা আলাদা সময় আলোচনা হয়েছিল। একটা কমন লিঙ্ক খুঁজে নিয়ে এক ফ্রেমে বেঁধেছেন গল্পগুলো। আনলক ওয়ান পর্বে অনেক প্রতিবন্ধকতার মধ্যেই শুটিং শেষ করেছে গোটা টিম। "আমরা কলকাতারই বিভিন্ন বাড়িতে ইনডোর শুট করেছি। কিন্তু বড় টিম নিয়ে কাজ করা যায়নি। সবাই সব কাজ করেছে। স্পট বয় থাকা সত্বেও আমার অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর চা করে খাইয়েছে। তারপর আমার ডিওপি আর্টের কাজ করেছে। ঘরের ভিতর শুট করা যায়, এমন গল্প ভাবতে হয়েছিল। ফিজিক্যাল ইন্টিমিসি যত কম রাখা যায়, সে চেষ্টা করেছি" শেয়ার করলেন বিদুলা।

শুটিং শেষ। পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। এবার শুধুই অসম্পূর্ণ প্রেমের গল্প দেখার অপেক্ষা। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!