কলকাতার কয়েকটি রোম্যান্টিক জায়গা শুধুমাত্র কাপলদের জন্য (Places To Visit In Kolkata For Couples In Bengali)

কলকাতার কয়েকটি রোম্যান্টিক জায়গা শুধুমাত্র কাপলদের জন্য (Places To Visit In Kolkata For Couples In Bengali)

কলকাতা শুধু ‘City of joy’ বা ‘প্রাণের শহর’ নয়। কলকাতা প্রেমের শহরও বটে! আসলে এই শহরে আলাদা করে প্রেমের কোনও মরসুম নেই। মানে গ্রীষ্ম-বর্ষা-শরৎ-শীত-বসন্ত- এই সব মরসুমই প্রেমের জন্য পারফেক্ট! আর আমার মনে হয় না, এটা এ দেশে আর কোথাও খুঁজে পাবেন! আসলে এই শহরে ডেটে (Dating Spot In Kolkata) যাওয়া মানেই যে শুধু বিলাসবহুল কোনও রেস্তরাঁ অথবা কোনও বিলাসবহুল পাঁচতারা হোটেলে যেতে হবে, তার কিন্তু কোনও মানে নেই। এখানে কিন্তু কোনও গঙ্গার ঘাটে বসে নদীর ঢেউয়ের উথাল-পাথাল করা দেখার মধ্যেও একটা রোম্যান্টিসিজম থাকে। অথবা পায়ে হেঁটে উত্তর কলকাতা ঘোরার মধ্যেও থাকে প্রেম (Love)। অথবা ময়দানে সবুজ ঘাসের উপর খালি পায়ে হেঁটেও সময় কাটিয়ে দিতে পারে প্রেমিক-প্রেমিকারা। আবার নন্দনে গিটার নিয়ে বসে গানবাজনা করার মধ্যেও রয়েছে আলাদাই একটা ভালবাসা (Love)। কলকাতা (Kolkata) শহরে প্রেম মানেই অ্যাকাডেমিতে নাটক দেখাও। এটা একমাত্র যাঁরা কলকাতায় থেকে বড় হয়েছেন, তাঁরাই বুঝতে পারবেন। তাই আক্ষরিক অর্থেই, ‘শহর জুড়ে যেন প্রেমের মরসুম’!


আরো পড়ুনঃ স্বপ্নের শহর শিলিগুড়ির ট্রাভেল গাইড


কলকাতার ব্রেকফাস্ট-ব্রাঞ্চের জায়গা


কাপল লাঞ্চের পারফেক্ট জায়গা


ডিনার ডেটের পারফেক্ট জায়গা


victoria


কলকাতার কিছু রোম্যান্টিক জায়গা কাপলদের জন্য (Romantic Places In Kolkata)


এই শহরের প্রেম (Love) শুধুমাত্র রেস্তরাঁর ঘেরাটোপে বন্দি, সেটা কিন্তু নয়। এখানে প্রেমিক-প্রেমিকারা (Couple) পায়ে হেঁটেই শহরটাকে এক্সপ্লোর করতে ভালবাসে। এখানে প্রেম মানেই ঢাকুরিয়া লেক, বাবুঘাট, ময়দান, নন্দন! কলকাতার রোম্যান্টিক জায়গা (Romantic Places In Kolkata) জায়গাগুলো হল-


kolkata-prinsep ghat


১। বাবুঘাট-আউট্রাম ঘাট (Babughat):


গঙ্গার ধারে বসতে কার না ভাল লাগে! একটা অলস শান্ত দুপুরে, অথবা বিকেলে অফিস অথবা কলেজ সেরে ফেরার পথে গঙ্গার ঘাটে বসে গঙ্গায় জলের খেলা দেখতে দেখতেই সময় কেটে যায়। এক বার ভাবুন তো, প্রেমিকের হাত ধরে গঙ্গার ধারে সূর্য অস্ত যাওয়ার দৃশ্য (Dating Spot) আর তার সঙ্গে একটা হালকা ঠান্ডা হাওয়া। আর তার সঙ্গে ঢেউয়ের তালে দোলা নৌকা! শহুরে ব্যস্ত জীবনের মাঝেই আপনাকে খানিকটা হলেও শান্তি দেবে।  


২। প্রিন্সেপ ঘাট (Prinsep Ghat):


বাবুঘাট-আউট্রাম ঘাট পেরিয়ে চক্ররেলের রেল লাইনের পাশ দিয়ে হাঁটতে হাঁটতেই পৌঁছে যাবেন প্রিন্সেপ ঘাট (Prinsep Ghat)। এখানে বসেও দেখা যেতে পারে সূর্যাস্ত। আর বোট রাইডেও যাওয়া যেতে পারে। গঙ্গা নদীর উপর নৌকোয় আপনার সঙ্গীর সঙ্গে রোম্যান্টিক (Romantic Places In Kolkata) মূহূর্ত। বোট রাইডে গিয়ে গলা ছেড়ে গাইতেও পারেন। গঙ্গার ঢেউয়ের টানে এগিয়ে চলবে নৌকা আর মাঝদরিয়ায় গান। অপূর্ব এক আবহ তৈরি হবে।


৩। মল্লিকঘাট ফুলের মার্কেট (Mullick Ghat Flower Market):


আপনি আর আপনার প্রেমিক কি ফোটোগ্রাফিতে ইন্টরেস্টেড? তা হলে চলে যান হাওড়া ব্রিজের ঠিক নীচেই মল্লিকঘাট ফুলের মার্কেটে (Mullick Ghat Flower Market)। আর আপনি কি জানেন, এটাই এ দেশের সব থেকে বড় ফুলের বাজার? নানা রকম কালারফুল ফ্রেম পাওয়া যাবে আর সঙ্গে নানা রকম ফুলও পেয়ে যাবেন। আর পাশেই গঙ্গার ঘাট। সেখানে দাঁড়ালে অন্য রকম ভাবে আবিষ্কার করতে পারবেন হাওড়া ব্রিজটাকে। ব্রিজের উপর দিয়ে গাড়ি-বাস-মানুষের আনাগোনা দেখা যাবে। আর এখানে ভোরের দিকে এলে তো দারুণ। দেখা যাবে, কুস্তির নানা কসরতও। সব মিলিয়ে ছবি তোলা আর নিরিবিলিতে সময় কাটানোর (Dating Spot In Kolkata) জন্য দারুণ। তো হবে নাকি একটা ফোটোগ্রাফি ডেট!


৪। বাগবাজার ঘাট (Bagbazar Ghat):


উত্তর কলকাতার রোম্যান্টিক জায়গা গুলোর মধ্যে এই ঘাটও প্রেমিক-প্রেমিকাদের (Couples) অত্যন্ত পছন্দের জায়গা। এখানে গঙ্গার ঘাটে বসে নৌকা আর লঞ্চের আনাগোনা দেখেই সময় কাটিয়ে দেওয়া যায়। আর সন্ধ্যেবেলায় বেনারস-হরিদ্বারের আদলে সন্ধ্যারতি এখানকার আলাদাই আকর্ষণ।


৫। উত্তর কলকাতার আনাচ-কানাচ (North Kolkata):


উত্তর কলকাতায় (North Kolkata) গেলে এখনও সেই পুরনো কলকাতায় ফিরে যাওয়া যায়। সেই পুরনো বাড়ি, বাড়ির সামনের রক, কারুকার্য করা দরজা, খড়খড়ির জানলা, লম্বা টানা ঝুল বারান্দার দেখা পাওয়া যাবে। চলে যেতে পারেন কুমোরটুলিতে। সেখানে দেখতে পারেন ঠাকুরের মূর্তি গড়ার কাজ। হেঁটে হেঁটে পায়ে ব্যথা ধরলে হাতে টানা রিকশা তো আছেই! আর আছে ট্রামও। ডেটে গিয়ে হয়ে যেতে পারে একটা ট্রাম রাইডও।


৬। কফি হাউজ (Coffee House):


মনে পড়ে মান্না দে-র ‘কফি হাউজের সেই আড্ডাটা’? সঙ্গীর সঙ্গে নিখাদ আড্ডা মারতে কফি হাউজে চলে যেতে পারেন। এখানে এখনও কলেজ পড়ুয়া থেকে শুরু করে চাকরি জীবন থেকে অবসর নেওয়া মানুষজনও আড্ডা দিতে আসেন। অসাধারণ পরিবেশ। আর তার সঙ্গে পুরনো কলকাতাকে এখানে এসে ফিরে পেতে পারেন।


৭। এসপ্ল্যানেড (Kolkata Esplanade):


কলকাতায় ঘোরার জায়গাগুলোর মধ্যে এসপ্ল্যানেড তো কলকাতা শহরের প্রাণকেন্দ্র। আর মন খুলে শপিং করার জায়গাও বটে! স্ট্রিট শপিং শুধু নয়, নাম করা সব ব্র্যান্ডের শো-রুমও রয়েছে এসপ্ল্যানেড চত্বরে। সব সময়ই জমজমাট। স্ট্রিট ফুড থেকে শুরু করে নামীদামি রেস্তরাঁ এখানে পেয়ে যাবেন। ফলে প্রেমিকের হাত ধরে ঘোরার ভাল জায়গা।


৮। ভিক্টোরিয়া (Victoria Memorial):


মার্বেলের তৈরি এই অসাধারণ স্থাপত্যও কলকাতা রোমান্টিক জায়গা গুলোর (Romantic Place In Kolkata) মধ্যে অন্যতম। মার্বেলের হলের চারপাশে সুন্দর সাজানো বাগান, নানা রকম ফুল, গাছপালা, ছোট ছোট দীঘি, ফোয়ারা, স্ট্যাচু- এ সবই ভিক্টোরিয়ার আকর্ষণ।


ভিক্টোরিয়ায় ঢোকার প্রবেশ মূল্য- ১০ টাকা


মিউজিয়ামে ঢোকার প্রবেশ মূল্য- ২০ টাকা


ভিক্টোরিয়ার মিউজিয়াম-গ্যালারির সময়-  সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা (বন্ধ সোমবার ও অন্যান্য ন্যাশনাল হলিডে-তে)


ভিক্টোরিয়ার সময়- ভোর সাড়ে ৫টা- সন্ধ্যে ৬টা ১৫ মিনিট


৯। ময়দান (Maidan):


ব্যস্ত শহরের মাঝেই সবুজের ছোঁয়া পেতে কলকাতার কাছে বেড়ানোর জায়গা ময়দানে যেতে পারেন। ক্লান্ত এক বিকেলে ময়দানে চা-বাদাম ভাজা সহযোগে সঙ্গীর সঙ্গে নির্ভেজাল প্রেম (Dating Spot In Kolkata)। অথবা ঘাসের উপর হাঁটা। ব্যস! আপনার মতো সুখী আর কে আছে!


১০। নন্দন (Nandan):


মনের মানুষটার সঙ্গে চুটিয়ে গল্প-আড্ডা করতে চাইলে নন্দন পারফেক্ট। গল্প-আড্ডা-গান-চায়ের ভাঁড়ে চুমুক- এ ভাবেই চলতে থাকবে প্রেম (Love)!


১১। ঢাকুরিয়া লেক (Rabindra Sarobar - Dhakuria Lake):


দক্ষিণ কলকাতার (Kokata) রোম্যান্টিক জায়গাগুলির মধ্যে অন্যতম ঢাকুরিয়া লেক। এখানে লেকের জলের মিষ্টি হাওয়া আর সঙ্গে ঝালমুড়ি-প্রেম!


১২। ইকো পার্ক (New Town Eco Park):


কংক্রিটের জঙ্গল থেকে একটু স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতে ঢুকে পড়ুন ইকো পার্ক। দারুণ ভিউ, সবুজের ছোঁয়া আর মিষ্টি হাওয়া এইগুলো পাবেন ওখানে। দেখার অনেক কিছুই রয়েছে সেখানে।


কলকাতার ব্রেকফাস্ট-ব্রাঞ্চের জায়গা (Brunch and Breakfast Restaurants In Kolkata)


ভোরের কলকাতায় ব্রেকফাস্ট করতে চান, অথবা সান ডে-র সকালে দেরিতে ঘুম থেকে উঠে ব্রাঞ্চ ডেটে (Brunch Date) যেতে চান, সব মিলবে আর সব রকম দামে পাওয়া যাবে।


breakfast at territy bazar


১। টেরিটি বাজার (Tirreti Bazaar)


নিশ্চয়ই নাম শুনেছেন। চাইনিজ ব্রেকফাস্ট করতে হলে সঙ্গীকে বগলদাবা করে সক্কাল সক্কাল বেরিয়ে পড়ুন। সোজা চলে যান টেরিটি বাজার। দেরি করলে চলবে না কিন্তু! ভোর ৫টা থেকে শুরু হয়ে যায়। নানা রকম মোমো, ডাম্পলিংস, ফিশ বল স্যুপ, ব্রেডেড পর্ক চপস, স্টিকি রাইস, চিকেন পাই দিয়ে দিনটা শুরু হলে কেমন হয়! আহ! রসনা তৃপ্তিও হবে আর সঙ্গীর (Dating Spot In Kolkata) সঙ্গে ভোরটাও কাটানো যাবে।


ঠিকানা- সানইয়াত সেন স্ট্রিট (পোদ্দার কোর্টের কাছে), লালবাজারের পিছনে। আর কাছের মেট্রো স্টেশন-সেন্ট্রাল।


২। ডেকার্স লেন (Deckers Lane)


অফিস পাড়া। লাঞ্চ ব্রেকে সমস্ত অফিসের এমপ্লয়িরা এখানে লাঞ্চ সারতে আসেন। কারণ এখানে কম দামে দারুণ খাবার পাওয়া যায়। কম দাম মানে যে কোয়ালিটি খারাপ, তা কিন্তু একেবারেই নয়! দারুণ কোয়ালিটি। চাইনিজ থেকে শুরু করে স্যান্ডউইচ, ফিশ ফ্রাই, পোলাও-মাংস, তন্দুরি রুটি-তরকারি- সব পেয়ে যাবেন। আর গেলে অবশ্যই ট্রাই করতে ভুলবেন না চিত্তবাবুর দোকানের চিকেন stew। আর চা-টাও কিন্তু অসাধারণ!


৩। ফ্লোরিস (Flurys)


ব্রেকফাস্ট হোক বা ব্রাঞ্চ ডেট (Brunch Date), তার জন্য পারফেক্ট হল পার্ক স্ট্রিটের Flurys। এখানকার ইংলিশ ব্রেকফাস্ট দারুণ। তা ছাড়াও, রিচ ক্রিমি পেস্ট্রিজ, পুডিংস, কুকিজ পেয়ে যাবেন। সকাল সাড়ে সাতটাতেই খুলে যায়।


ঠিকানা- ১৮, পার্ক স্ট্রিট, ম্যাকডোনাল্ডসের উল্টোদিকে।


খরচ- ১৩৫০ (২ জনের)


৪। দ্য বেকারি- দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন (The Bakery - The Lalit Great Eastern)


ব্রেকফাস্ট ডেটের (date) জন্য হাতের কাছে আর একটা দারুণ জায়গা দ্য বেকারি- দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন। সকাল সাতটায় খুলে যায়। নানা রকম স্যালাড, সমোসা চাট, নানা রকম স্যান্ডউইচ, ডিমের ডেভিল পেয়ে যাবেন।


ঠিকানা- দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন, ১,২, ৩, ওল্ড কোর্ট হাউজ স্ট্রিট, ডালহৌসি স্কোয়ার, এসপ্ল্যানেড


খরচ- ১৮০০ (২ জনের জন্য)


৫। আলফ্রেস্কো - দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন (Alfresco - The Lalit Great Eastern)


সানডে ব্রাঞ্চের জন্য খুবই ভাল অপশন। দারুণ ডেকর, গ্লাস রুফটপ, ক্লাসি অ্যাম্বিয়েন্স দারুণ লাগবে। সানডে ব্রাঞ্চের সময়- দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকেল ৪টে।


ঠিকানা- দ্য ললিত গ্রেট ইস্টার্ন, ১,২, ৩, ওল্ড কোর্ট হাউজ স্ট্রিট, ডালহৌসি স্কোয়ার, এসপ্ল্যানেড


খরচ- ৩৫০০ (২ জনের)


৬। দ্য বাইকার্স ক্যাফে (The Bikers Cafe)


সকাল সাতটা থেকে রাত এগারোটা পর্যন্ত খোলা থাকে এই ক্যাফে। আপনি যদি বাইক পছন্দ করেন, তা হলে তো কথাই নেই! বাইকার্স ক্যাফের দারুণ ডেকর আর অ্যাম্বিয়েন্স আপনার ভাল লাগবে। আর এখানে আমেরিকান, ইউরোপিয়ান, রকমারি স্যালাড, কন্টিনেন্টাল খাবার পাবেন।


ঠিকানা- ফার্স্ট ফ্লোর, প্ল্যাটিনাম মল, ৩১, এলগিন রোড


খরচ-১১০০ টাকা (২ জনের জন্য)


কাপল লাঞ্চের পারফেক্ট জায়গা (Best Place For Lunch Date In Kolkata)


cafe ekaante eco park


১। ক্যাফে একান্তে - ইকো পার্ক (Cafe Ekante)


ইকো পার্কের ভিতর লেকের মধ্যে এই রেস্তরাঁ। বংদের জন্য তো বেস্ট। কারণ এর বাঙালি থিম আর বাঙালি কুইজিন দারুণ। এখানে পৌঁছতে গেলে ফেরি রাইড নিতে পারেন। অথবা কাঠের সাঁকোও পেরোতে পারেন।


খরচ- ৮০০ টাকা (২ জনের)


২। দ্য পাম্পস (Pamps Restaurant)


এই পাঁচতারা বিলাসবহুল রেস্তরাঁ আপনাকে রসনাতৃপ্তি দেবে। দারুণ ডেকর। আর মেনুতে রয়েছে মুঘলাই, আওয়াধি, নর্থ ইন্ডিয়ান তো পাবেনই। টেস্ট করতে চাইলে পেয়ে যাবেন থাই আর চাইনিজও। পাবেন ডেজার্টস আর ককটেলও।


ঠিকানা- ১৯এ, সাদার্ন অ্যাভিনিউ, মেঘনাদ সাহা সরণি রোড


খরচ- ১১০০ (২ জনের)


৩। অওধ ১৫৯০ (Oudh 1590)


আপনাদের দু’জনের কি মুঘলাই খানা পছন্দ? তা হলে আপনাদের জন্য পারফেক্ট অওধ ১৫৯০। এর আবহটাই এমন যে আপনি ফিরে যেতে পারেন সেই মুঘলদের সময়ে। ল্যাভিশ ডেকর আর বাসনকোসনেও নবাবিয়ানা আপনার ভাল লাগবে। সঙ্গে তো রয়েছে জিভে জল আনা খাবারদাবার। আর ওখানে গেলে ট্রাই করতে ভুলবেন না রান বিরিয়ানি আর গলৌটি কাবাব!


ঠিকানা- শপ ২৩/বি, দেশপ্রিয় পার্ক (ওয়েস্ট), কলকাতা


খরচ-১২০০ (২ জনের)


৪। সান্টাস ফ্যান্টাসি (Santa's Fantasea)


ট্রাইবাল খাবার অথবা সি-ফুড ভালবাসেন? তা হলে সান্টাস ফ্যান্টাসি চলে যান। এটা আমারও ভীষণ পছন্দের। এই রেস্তরাঁর ডেকরে রয়েছে ট্রাইবাল থিম। আর সমুদ্রের থিমও। সিকিম, ওড়িশা, মেঘালয়, মিজোরামের কুইজিন আপনার রসনা তৃপ্তি করবে। আর লবস্টার, প্রন, নানা রকম মাছ, অক্টোপাসও পেয়ে যাবেন। তবে এখানে এসে ট্রাই করতে ভুলবেন না বাঁশপোড়া চিকেন অথবা মাটন আর সঙ্গে সরু চাকলি।


ঠিকানা- ৯, বালিগঞ্জ টেরেস, ঢাকুরিয়া


খরচ- ৮০০ টাকা (২ জনের)


৫। আফরা রেস্তরাঁ অ্যান্ড লাউঞ্জ (Afraa Restaurant and Lounge)


রোম্যান্টিক (romantic) এই জায়গা কাপলদের (couple) জন্য আইডিয়াল। কারণ এখানে রয়েছে খোলা আকাশের নীচে বসার ব্যবস্থা। তবে বুক করতে হবে আগে থেকে। আর রয়েছে স্পেশ্যাল বুফে। ফলে বুঝতেই পারছেন যে, নিজের সঙ্গীটির (lover) সঙ্গে গেলে অসাধারণ এক্সপেরিয়েন্স হবে। এখান মেডিটেরানিয়ান, ইটালিয়ান, কন্টিনেন্টাল কুইজিন পাবেন।


ঠিকানা- 6th আর 7th ফ্লোর, সিটি সেন্টার মল, জি-ব্লক, সেক্টর-১, সল্টলেক সিটি, কলকাতা


৬। ম্যাগপাই (Mrs. Magpie)


ডিনার ডেটে (date) গেলেন অথচ ডেসার্ট চাখলেন না, তা কি হয়? আর তার জন্য তো রয়েছে Mrs. Magpie। এখানে দারুণ কাপকেকস, টার্টস, রিচ চকলেট পেয়ে যাবেন। আর পাবেন বেকন স্যান্ডউইচ, চিকেন স্লাইডার, পিপারমেন্ট-টিও।


ঠিকানা- ৫৭০, লেক টেরেস রোজ এক্সটেনশন, কেয়াতলা, সাদার্ন অ্যাভিনিউ, কলকাতা


খরচ- ৫০০ টাকা (২ জনের)


ডিনার ডেটের পারফেক্ট জায়গা (Best Place For Dinner Date In Kolkata)


whatsup cafe kolkata


১। সামপ্লেস এলস (Someplace Else)


ডিনারে যেতে চাইলে যেতে পারেন সামপ্লেস এলস-এ। এখানকার স্টাইলিশ ও কনটেম্পোরারি ডেকর আপনার আর আপনার সঙ্গীর (lover) পছন্দ হবেই। আর সঙ্গত দেবে কন্টিনেন্টাল খাবার। বিকেল সাড়ে চারটে থেকে রাত ২টো পর্যন্ত খোলা। ফলে লেট নাইট ডিনার ডেটেও (date) যেতে পারেন।


ঠিকানা- ১৭, পার্ক স্ট্রিট, তালতলা, কলকাতা


খরচ- ২৪০০ টাকা (২ জনের)


২। সুইসোটেল (Hotel Swissotel)


দারুণ অ্যাম্বিয়েন্স। এই রেস্তরাঁ কিন্তু মিস করলে চলবে না। হালকা আলো দিয়ে সাজানো। আর কলকাতার রুফটপ রোম্যান্টিক রেস্তরাঁ গুলোর মধ্যে বেস্ট এটাই। আর ডেটে গেলে এখানকার তন্দুরি প্ল্যাটার আর কনিনেন্টাল ডিলাইট ট্রাই করতেই হবে।


ঠিকানা- প্লট নং-১১, সিটি সেন্টার, ৫, বিশ্ব বাংলা সরণি, অ্যাকশন এরিয়া ২, অ্যাকশন এরিয়া ২ডি, নিউটাউন, কলকাতা


খরচ- ৩৬৭৫ টাকা (২ জনের)


৩। মাঙ্কি বার (Monkey Bar Kolkata)


অসাধারণ ডেকর আর মিউজিক। আর এখান থেকে স্কাইলাইন দেখা যাবে। তবে হ্যাঁ সন্ধের দিকে গেলে আগে থেকে কিন্তু বুক করে যাবেন। আর পর্ক-বিফ প্রেমীদের জন্য তো অসাধারণ। মাল্টিকুইজিন এই বারে কিন্তু পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গেও এনজয় করা যায়।


ঠিকানা- ৯০১ এ, 9th ফ্লোর, fort knox, ক্যামাক স্ট্রিট এরিয়া, কলকাতা


খরচ- ১৫০০ টাকা (২ জনের)


৪। হোয়াটস আপ (What's Up Kolkata)


রুফটপ যেখান থেকে শহরটাকে (kolkata) দেখা যাবে আর লাইভ মিউজিক। আর কী চাই! ডিনার ডেট পুরো জমে যাবে। সঙ্গে থাকবে চাইনিজ, কন্টিনেন্টাল, ইটালিয়ান খাবার। রয়েছে বার।


ঠিকানা- ১২২এ, সাদার্ন অ্যাভিনিউ, কলকাতা


খরচ- ১৫০০ টাকা (২ জনের)


ছবি সৌজন্যে: পিক্সঅ্যাবে ও ইনস্টাগ্রাম


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!