ঠোঁট পুরু হোক বা পাতলা, জেনে নিন কেমন ঠোঁটে কেমন লিপস্টিক মানাবে

ঠোঁট পুরু হোক বা পাতলা, জেনে নিন কেমন ঠোঁটে কেমন লিপস্টিক মানাবে

আমাদের মেয়েদের পার্সে আর কিছু থাকুক বা না থাকুক, লিপস্টিক কিন্তু থাকবেই থাকবে। যাঁরা খুব বেশি সাজগোজ বা মেকআপ করেন না, তাঁরাও কিন্তু লিপস্টিক ঠিক লাগান। কিন্তু সব ধরনের ঠোঁটে (shape) সব রকম লিপস্টিক দেখতে ভাল লাগে না। কারও ঠোঁট খুব পাতলা হয়, আবার কারও ঠোঁট পুরু হয়; কারও ঠোঁট ছোট হয় আবার কারও বা বেশ বড়। ঠোঁটের মেকআপ করতে বেশ অনেকটা সময় কিন্তু আমাদের খরচ করতে হয়। লিপলাইনার দিয়ে আউটলাইন করে পুরু ঠোঁট আমরা পাতলা করার চেষ্টা করি, আবার উল্টোটাও করে থাকি প্রায়শই। কিন্তু পেশাদার মেকআপ আর্টিস্টের মতো ঠোঁটের মেকআপ বাড়িতেই কীভাবে করবেন, জানেন কি?

যাঁদের ঠোঁটের শেপ ঠিক নয়

ইনস্টাগ্রাম

কীভাবে বুঝবেন যে, আপনার ঠোঁটের শেপ (shape) ঠিক নয়? যদি আপনার উপরের এবং নীচের ঠোঁটের মাপ এক না হয়, তা হলে আপনার ঠোঁটকে ‘আনইভন লিপস’ বলা যেতে পারে। এক্ষেত্রে সবচেয়ে আগে লিপ লাইনার দিয়ে সমানভাবে উপরের এবং নীচের ঠোঁটের মাপ একে নিন। এরপর আঙুলের ডগা দিয়ে আলতো করে ঘষে লিপলাইনারের শেড ঠোঁটের সঙ্গে মিশিয়ে দিন, যেন দেখে মনে হয় ওটা আঁকা নয়! একটু সাবধানে করবেন কাজটা, তা না হলে ঠোঁটের উপরে বা নীচে রঙ লেগে যেতে পারে। এবারে লিপলাইনারের সঙ্গে ম্যাচ করে লিপস্টিক লাগিয়ে নিন!

লিপলাইনার কিনতে হলে এখানে ক্লিক করুন 

যাঁদের হাঁ-মুখ ছোট

ইনস্টাগ্রাম

শিমারি, ফ্রস্টি, গ্লসি – যে-কোনও ধরনের লিপস্টিক আপনি ব্যবহার করতে পারেন। শুধু ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করবেন না, কারণ এতে ঠোঁট আরও ছোট দেখতে লাগবে। এমনিতেই যাঁদের এরকম ঠোঁট হয়, তাঁদের মুখের অন্যান্য ফিচারের জন্য ঠোঁট চোখে পড়ে না খুব একটা। আর ম্যাট ফিনিশ লিপস্টিক ব্যবহার করলে ঠোঁট একেবারে বোঝাই যাবে না! যদিও এই ধরনের ঠোঁটে পাউট খুব সুন্দর হয়! একটু উজ্জ্বল শেডের লিপস্টিক (lipstick) যদি লাগান দেখতে ভাল লাগবে।

শিমারি লিপস্টিক কিনতে হলে এখানে ক্লিক করুন 

যাঁদের ঠোঁট চ্যাপ্টা

ইনস্টাগ্রাম

যাঁদের ঠোঁট চ্যাপ্টা হয়, তাঁরা তাঁদের ঠোঁটের ঠিক শেপ দেখানোর জন্য প্রথমেই লিপলাইনার দিয়ে একটা আউটলাইন করে নিন। যদি আপনার ঠোঁট পুরু হয়, তা হলে আপনার ঠোঁটের একদম ধার ঘেঁষে লাইন টানবেন আর যদি পাতলা ঠোঁট হয়, তা হলে একটু বাইরে দিয়ে লাইন টানতে পারেন। ঠোঁটের বাইরের দিকটা একটু গাঢ় শেড দিয়ে ভর্তি করতে শুরু করুন এবং ধীরে-ধীরে যত ভিতরের দিকে অর্থাৎ হাঁ-এর দিকে যাবেন, শেড হালকা করতে শুরু করবেন। তবে খেয়াল রাখবেন, যে’কটি শেড ব্যবহার করবেন, তা যেন একই গ্রুপের হয়। অর্থাৎ যদি গোলাপি শেড ব্যবহার করেন তা হলে সবকটি শেড যেন গোলাপি রঙেরই হয়। বাকি রঙের ক্ষেত্রেও একই।  

যাঁদের পুরু ঠোঁট

ইনস্টাগ্রাম

যাঁদের ন্যাচারালি পুরু ঠোঁট, মানে যাঁরা স্বাভাবিক ভাবেই পাউটি লিপস নিয়ে জন্মেছেন, তাঁদের মুখের মধ্যে সবচেয়ে আগে তাঁদের ঠোঁটই চোখে পড়ে! কাজেই তাঁরা যদি গাঢ় শেডের লিপস্টিক ব্যবহার করেন, তা হলে বাকি ফিচার আর চোখেই পড়বে না! চেষ্টা করুন, হালকা এবং নরম শেডের লিপস্টিক ব্যবহার করার। হালকা গোলাপি, যে-কোনও ধরনের নুড শেড ব্যবহার করা যেতে পারে। গ্লসি লিপস্টিক ব্যবহার না করে বরং ম্যাট ফিনিশ ব্যবহার করুন। 

ম্যাট ফিনিশ লিপস্টিক কিনতে হলে এখানে ক্লিক করুন 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!