#BumDigiDigiBum: সুন্দর, সুঠাম ও মসৃণ নিতম্বের অধিকারিণী হয়ে উঠুন (How To Get Smooth Butt)

#BumDigiDigiBum: সুন্দর, সুঠাম ও মসৃণ নিতম্বের অধিকারিণী হয়ে উঠুন (How To Get Smooth Butt)

আমাদের শরীরের বাকি অংশের ত্বকের পরিচর্যা করলেও একটি অংশের পরিচর্যা কিন্তু আমরা করি না, না আমি পায়ের কথা বলছি না, কারণ কালে-ভদ্রে হলেও পেডিকিওর আমরা সবাই করিয়ে থাকি। আমি নিতম্ব বা পাছা বা butt-এর কথা বলছি। কি ভাবছেন, এর আবার কী পরিচর্যা প্রয়োজন? আচ্ছা বলুন তো, যদি আপনার নিতম্বের ত্বক smooth হয় কিংবা আপনার নিতম্বের আকার সুঠাম হয় তাহলে কি আপনি অখুশি হবেন? নিশ্চয়ই না! তাহলে জেনে নিন কীভাবে এই বিশেষ অঙ্গটির পরিচর্যা করা প্রয়োজন!

Table of Contents

    কয়েকটি ব্যায়াম যা আপনার নিতম্বের শেপ ধরে রাখতে সাহায্য করে (Butt Shaping Exercises)

    সুন্দর এবং সুঠাম নিতম্বের জন্য এই পাঁচটি ব্যায়াম করতে পারেন - 

    ১। স্কোয়াট (Squat)

    কীভাবে করবেন – দু’পা ফাঁক করে সোজা হয়ে দাঁড়ান। কাঁধ যেন সোজা থাকে এবং হাত সামনের দিকে সোজা রাখুন। এবার যেন একটি কাল্পনিক চেয়ারে বসছেন তেমন করে হাঁটু মুড়ে বসুন। তবে খুব বেশি নীচের দিকে নামবেন না। এভাবে বসা অবস্থায় খেয়াল রাখবেন পিঠ যেন সোজা থাকে, সামনের দিকে যেন ঝুঁকে না যায়। ১০ গুণে আবার সোজা হয়ে দাঁড়ান। এটি হল এক সেট।

    কতক্ষণ এবং কতবার করে করবেন – ২০ সেট করতে হবে।

    ২। বাট রোলিং (Hip Rolling)

    কীভাবে করবেন – মাটিতে পা ছড়িয়ে বসুন এবং এবারে হাঁটু ও হাত মুড়ে বুকের কাছে জড়ো করুন। এবারে পাছার উপর ভর দিয়ে বসে বসেই এগোতে থাকুন। খেয়াল রাখবেন মাটি থেকে যেন পাছা উঠে না যায়। এভাবে ২০ পর্যন্ত গুণে এগোন আবার ২০ পর্যন্ত গুণে ফিরে আসুন। এটি হল এক সেট।

    কতক্ষণ এবং কতবার করে করবেন – পাঁচ সেট করে করুন।

    ৩। রেনবো লেগ লিফট (Rainbow Leg Lift)

    কীভাবে করবেন – উবু হয়ে মাটিতে বসুন। হাতের পাতা এবং হাটুর উপর ভর দিয়ে। মাথা সোজা রেখে সামনের দিকে তাকান। এবারে ওই অবস্থায় বসেই একটা পা উঁচু করে পিছনের দিকে স্ট্রেচ করুন এবং মনে মনে ২০ পর্যন্ত গুনুন। এবারে পা নামিয়ে নিন। ঠিক একইভাবে অন্য পা স্ট্রেচ করুন এবং ২০ পর্যন্ত গুনুন। এটি হল এক সেট। এভাবে কয়েকবার করুন।

    কতক্ষণ এবং কতবার করে করবেন – তিনটি সেট করতে হবে।

    ৪। বাউন্ড টাইগার পোজ (Tiger Pose)

    কীভাবে করবেন – যেভাবে রেইনবো লেগ লিফট করার জন্য উবু হয়ে বসেছিলেন সেভাবেই বসুন এবং একটি পা পেছন দিকে স্ট্রেচ করুন। এবারে যে পা-টি স্ট্রেচ করেছেন তার হাঁটু মুড়ে মাথার উপর তুলে ১৫ সেকেন্ড হোল্ড করুন। আবার আগের পজিশনে ফিরে আসুন। এবারে অন্য পায়ের সাহায্যে একই প্রসেস রিপিট করুন। এটি এক সেট।

    কতক্ষণ এবং কতবার করে করবেন – পাঁচটি সেট করতে হবে।

    ৫। সুমো ওয়াক (Sumo Walk)

    কীভাবে করবেন – দুটো পা বেশ খানিকটা ফাঁক করে সোজা হয়ে দাঁড়ান এবং স্কোয়াট করার মত করে নীচের দিকে নেমে আসুন। হাত সামনের দিকে রাখুন। এবারে ও’ভাবেই  ডান দিকে ১৫ পা সরুন এবং আবার যেখানে দারিয়েছিলেন সেখানে ফিরে আসুন। আবার বাঁদিকে ১৫ পা হাঁটুন এবং যেখানে ছিলেন সেখানে ফিরে আসুন; অর্থাৎ মোট ৬০ পা হাঁটতে হবে। এটি হল এক সেট।

    কতক্ষণ এবং কতবার করে করবেন – প্রথম দিকে তিন সেট দিয়ে শুরু করুন এবং যত দিন যাবে তত সেটের মাত্রা বাড়াতে থাকুন।

    নিতম্বের ত্বক মসৃণ করার জন্য যা-যা করবেন (Ways To Keep Your Butt Smooth)

    শরীরের বাকি অংশের মতোই নিয়মিত পাছার ত্বকেরও যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। আপনি যেমন মুখে বা হাতে-পায়ে ময়শ্চারাইজার লাগান কিংবা ওয়াক্সিং করেন, সত্যি বলতে কী, নিতম্বের কি সেভাবে যত্ন নেন? নেন না। তবে নেওয়াটা উচিত। কীভাবে নিতম্বের ত্বক মসৃণ করা যায়, সে ব্যাপারেই কিছু কথা জেনে নিন।

    শাটারস্টক

    ১। ময়শ্চারাইজ (Moisturize)

    আমাদের শরীরের বাকি অংশের তুলনায় নিতম্ব বেশ অবহেলিত হয়। কিন্তু নিতম্বের ত্বক খসখসে হোক তা নিশ্চয়ই আপনি চান না। কাজেই এই বিশেহ জায়গার ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে নিয়মিত ময়শ্চারাইজার লাগানো খুবই জরুরি। আপনি চাইলে নারকেল তেলও ব্যবহার করতে পারেন।

    ২। অ্যাকনে দূর করুন (Get Rid Of Acne)

    অনেকসময় দেখবেন, নিতম্বের ত্বকে ছোট-ছোট ব্রণ হয় যেগুলো আমরা প্রথমদিকে পাত্তা না দিলেও মাঝেমধ্যেই এই ব্রণগুলোতে ব্যথা হয়। একে বাট অ্যাকনে বলা হয়। নিয়মিত আপনার পাছার ত্বক পরিষ্কার রাখলে আর এই সমস্যা থাকে না। অ্যাকনে দূর করতে চাইলে নিয়ম করে ক্লেনজিং, স্ক্রাবিং এবং ময়শ্চারাইজিং খুব প্রয়োজন। তবেই আপনি মনের মতো মসৃণ ত্বক পাবেন।

    ৩। ব্রাজিলিয়ান ওয়াক্স (Brazilian Wax)

    আপনি যদি সারা শরীরে ব্রাজিলিয়ান ওয়াক্স নাও করান, বিকিনি এরিয়াতে যখনই ওয়াক্স করাবেন, মনে করে ব্রাজিলিয়ান ওয়াক্স করাবেন। এতে খরচ সামান্য বেশি হলেও আপনার নিতম্ব থাকবে মোলায়েম এবনহ মসৃণ। এছাড়াও কোনও অবাঞ্ছিত লোম তো থাকবেই না, উপরন্তু মরা চামড়া, ময়লা সবই দূর হবে নিতম্বের ত্বক থেকে।

    ৪। ডিটক্স ড্রিঙ্ক (Detox Drink)

    শাটারস্টক

    খাওয়া-দাওয়ার দিকেও নজর রাখুন। খাওয়া-দাওয়ার ওপরেও কিন্তু শুধু আমাদের স্বাস্থ্য না, আমাদের ত্বকের স্বাস্থ্যও নির্ভর করে। প্রিতিদিন যদি দিটক্স ওয়াটার পান করা যায় তাহলে শরীরের বাকি অংশের মতোই আপনার নিতম্বের ত্বকও হয়ে উঠবে পরিষ্কার এবং উজ্জ্বল।

    ৫। মাসাজ (Hip Massage)

    নিয়মিত মাসাজ করানোটাও জরুরি। এতে রক্ত সঞ্চালন ঠিকভাবে হয় এবং ত্বকের অতিরিক্ত সেলুলয়েট দূর হয়, ফলে নিতম্বের থলথলেভাব চলে যায়। অন্য কাউকে বলতে সমস্যা হলে আপনি নিজেই প্রতিদিন স্নানের আগে মিনিট দশেক সময় বার করে মাসাজ করে নিন।

    কয়েকটি ঘরোয়া স্ক্রাবের হদিশ (Homemade Butt Scrub)

    যোগব্যায়াম করে তো না হয় নিতম্বের পারফেক্ট শেপ পেলেন, কিন্তু নিতম্বের ত্বক মসৃণ করার জন্য আপনি চাইলে বাড়িতেও কিন্তু বেশ করেক্তি ঘরোয়া স্ক্রাব তৈরি করে ব্যবহার করতে পারেন। অনেকসময়েই নিতম্বে স্ট্রেচ মার্কস থেকে যায়, অথবা অনেকসময়ে অ্যাকনের সমস্যা থাকলে তার দাগও থেকে যায় বা ওই বিশেষ জায়গার ত্বক খসখসে হয়ে থাকে – মসৃণ ত্বক পেতে বাড়িতেই কিছু উপকরণ দিয়ে আপনি স্ক্রাব তৈরি করে নিতে পারেন। দেখে নিন কীভাবে করবেন -

    ১। অ্যাভোকাডো অয়েল ও শশা (Avocado Oil And Cucumber Scrub)

    যাঁদের নিতম্বে অ্যাকনের সমস্যা রয়েছে তাঁদের জন্য এই ঘরোয়া স্ক্রাবটি খুবই উপকারী। এই স্ক্রাবটি ত্বকের ভিতর ঢুকে, ভিতর থেকে পরিষ্কার করতে সাহায্য করে এবং যেহেতু শশা একটি জলীয় ফল কাজেই ত্বকের আর্দ্রতাও বজায় রাখে। এছাড়া শশা এবং অ্যাভকাডোর মধ্যে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রপারটিস রয়েছে যা ত্বককে ক্ষতিকর জীবাণু থেকে রক্ষা করে।

    উপকরণ – একটি মাঝারি আকারের শশা এবং কয়েকফোঁটা অ্যাভকাডো অয়েল

    কীভাবে ব্যবহার করবেন – শশার খোসা ছাড়িয়ে ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন। এবারে একটি চামচের পেছন দিক দিয়ে ওই টুকরোগুলো ভেঙে নিন এবং ম্যাশ করে নিন। এবারে ম্যাশ করা শশার মধ্যে অ্যাভোকাড অয়েল মিশিয়ে নিতম্বের ত্বকে ভাল করে মাসাজ করে নিন এবং আধঘন্টা মতো রেখে দিন। আধঘন্টা পর ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে স্নানের আগেও এই স্ক্রাবটি ব্যবহার করতে পারেন।

    কতদিন করতে হবে – মাসে দু’বার করে করতে পারেন।

    ২। সি-সল্ট এবং আনারস (Sea Salt And Pineapple Scrub)

    শাটারস্টক

    আনারসে রয়েছে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রপারটিস যা স্ট্রেচমার্কস দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়া নিতম্বের অ্যাকনে এবং ময়লাযুক্ত রোমকূপ পরিষ্কার করার জন্য সি-সল্ট ভাল। এই দুটি উপকরণ মিলে স্ক্রাব তৈরি করে আপনি নিতম্বের যত্ন নিতে পারেন।

    উপকরণ – এক কাপ সি-সল্ট এবং দুই টেবিল চামচ আনারসের জুস

    কীভাবে ব্যবহার করবেন – একটি বাটিতে সি-সল্ট এবং আনারসের জুস মিশিয়ে নিন। নুন গলে গেলে নিতম্বে এই স্ক্রাবটি মাসাজ করুন প্রায় আধঘন্টা। এরপর উষ্ণ জলে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে স্নানের আগেও এই স্ক্রাবটি ব্যবহার করতে পারেন। স্নানের পর নিতম্বের ত্বকে ময়শ্চারাইজার লাগাতে ভুলবেন না।

    কতদিন করতে হবে – মাসে দু’বার করে করতে পারেন।

    ৩। কলা ও চিনি (Banana And Sugar Scrub)

    কলা যে স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই ভাল তা আমরা সবাই জানি কিন্তু কলা যে আপনি আপনার পাছায়ও লাগাতে পারেন এবং তাতে যে আপনার পাছার ত্বক মসৃণ ও উজ্জ্বল হয়ে ওঠে সে-কথা কি আপনার জানা ছিল? কলায় রয়েছে পটাশিয়াম, ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন ই এবং সি, আর এর সঙ্গে চিনি মিশিয়ে তৈরি হয় এক দুর্দান্ত স্ক্রাব যা নিতম্বের উপর জমে থাকা মরাকোষ দূর করতে দারুণ ভাল

    উপকরণ – একটি পাকা কলা এবং দুই টেবিল চামচ চিনি

    কীভাবে ব্যবহার করবেন – প্রথমেই কলার খোসা ছাড়িয়ে চামচ দিয়ে ম্যাশ করে নিন। এবারে ম্যাশ করা কলার মধ্যে চিনি মেশান এবং স্ক্রাবটি মিনিট ১৫-২০ নিতম্বে মাসাজ করুন। এরপর উষ্ণ জলে পাছা ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে স্নানের আগেও এই স্ক্রাবটি ব্যবহার করতে পারেন।

    কতদিন করতে হবে – আপনার যদি খুব বেশি অ্যাকনের সমস্যা থাকে তাহলে সপ্তাহে একবার করে এই স্ক্রাব ব্যবহার করুন তা না হলে দু’সপ্তাহে একবার করে ব্যবহার করতে পারেন।

    ৪। অলিভ অয়েল এবং কফি (Olive Oil And Coffee Scrub)

    নেকের গোটা শরীরে সেলুলাইটের সমস্যা থাকে ফলে একটা থলথলে ভাব চোখে পড়ে এবং স্ট্রেচমার্কসও বেশি হয়। এই সমস্যা বেশিরভাগ সময়ে স্তন, পিঠ, লাভ হ্যান্ডেল অর্থাৎ কোমরের উপরের ভাঁজ এবং পাছায় দেখা যায়। কফি শুধুমাত্র স্ট্রেচমার্ক-এর দাগ দূর করতে সাহায্য করে তা নয়, ত্বকের ইলাস্টিসিটি অর্থাৎ টানটান ভাবও ফিরিয়ে আনে। আর অলিভ অয়েল পাচার ত্বক ময়শ্চারাইজ করতে সাহায্য করে।

    উপকরণ – তিন টেবিল চামচ কফি পাউডার (আপনি চাইলে এক মুঠো কফি বিনস নিয়েও গ্রাইন্ড করে নিতে পারেন) এবং কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল

    কীভাবে ব্যবহার করবেন – অলিভ অয়েল এবং কফি পাউডার মিশিয়ে একটা স্মুদ পেস্ট তৈরি করুন এবং আধঘণ্টা থেকে ৪৫ মিনিট পর্যন্ত নিতম্বের ত্বকে মাসাজ করুন। পরে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে স্নান করার আগেও এই স্ক্রাবটি ব্যবহার করতে পারেন।

    কতদিন করতে হবে – মাসে দু’বার করে করতে পারেন।

    ৫। ভ্যানিলা এবং ব্রাউন সুগার (Vanilla And Brown Sugar Scrub)

    শাটারস্টক

    শুধুমাত্র স্ক্রাব করে ত্বকের মরা কোষ দূর করলেই তো হবে না, মাখনের মতো মসৃণ নিতম্বের জন্য ময়শ্চারাইজ করতেও হবে। এছাড়া ভ্যানিলার নিজস্ব একটা মিষ্টি গন্ধ রয়েছে। আপনি ভ্যানিলা স্ক্রাব লাগালে সারাদিন তার সুগন্ধে আপনি ও আপনার আশপাশের সকলেই মেতে থাকবেন

    উপকরণ – একটি কাচের বাটি, একটি ছোট কাঠের চামচ, কয়েক ফোঁটা ভ্যানিলা এক্সট্র্যাক্ট এবং দুই কাপ ব্রাউন সুগার

    কীভাবে ব্যবহার করবেন – বাটিতে ব্রাউন সুগার নিয়ে তাতে ভ্যানিলা এক্সট্র্যাক্ট মিশিয়ে নিন কাঠের চামচের সাহায্যে। স্টিল বা অন্য ধাতুর চামচ ব্যবহার করলে ভ্যানিলা এক্সট্র্যাক্টের সঙ্গে তা রাসায়নিক বিক্রিয়া করতে পারে যা আপনার ত্বকের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে, কাজেই কাঠের চামচ ব্যবহার করা প্রয়োজন। অন্যান্য স্ক্রাবগুলির মতোই এই স্ক্রাবটিও ২০-২৫ মিনিট মাসাজ করে উষ্ণ জলে ধুয়ে ফেলুন।

    কতদিন করতে হবে – মাসে দু’বার করে করতে পারেন।

    সুঠাম নিতম্ব পাওয়ার জন্য বাড়তি কিছু টিপস (Tips To Get A Toned Butt)

    কিছু জরুরি টিপস দেখে নিন -

    • সঠিক প্যান্টি বাছুন যাতে ত্বকে র‍্যাশ না বার হয়। আপনি চাইলে স্যাগ-প্রুফিং প্যান্টিও পরতে পারেন, এতে পাছার থলথলেভাব বোঝা যায় না।
    • নিয়মিত প্যান্টি বদলান। প্রয়োজনে দিনে দু’-তিন বার প্যান্টি বদলান
    • আপনি যদি জিম করেন বা ব্যায়াম করেন তাহলে প্রতিটি সেশনের পর স্নান করবেন। তা না হলে ঘামের সঙ্গে জীবাণুও জমে থাকতে পারে এবং ত্বকে নানা ইরিটেশন সৃষ্টি করতে পারে।
    • আপনার পাছার শেপ যদি মনের মতো না হয় তাহলে আপনি শেপওয়্যার পরতে পারেন।
    • নিয়মিত বেবি লোশন লাগান।
    • সারাক্ষণ বসে থাকবেন না, এতে পাছার শেপ চ্যাপ্টা হয়ে যায়। যখন ঘুমোবেন, চেষ্টা করুন পাশ ফিরে ঘুমোনোর।

    জরুরি কিছু প্রশ্নোত্তর (FAQs)

    ১। পাছায় ব্রণ কেন হয়?

    উত্তর – নিতম্ব বা পাছায় ব্রণ হওয়ার প্রধান কারণ হল অপরিচ্ছন্নতা। আমরা মুখ, হাত, পায়ের যত্ন নিলেও এই বিশেষ এবং গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটির যত্ন সেভাবে নিই না। অথচ ভেবে দেখুন, শরীরের বেশিরভাগ টক্সিন বেরনোর রাস্তা কিন্তু এটিই! অনেকসময়েই ব্যাকটেরিয়া, ইস্ট বা ইনফেকশন থেকে ব্রণ বা অ্যাকনে হতে পারে পাছায়।

    ২। নিতম্বে অ্যাকনে থাকলে তা কীভাবে দূর করা সম্ভব?

    উত্তর – যদি খুব বেশি অ্যাকনে বা ব্রণ হয় তাহলে কোনও ডারমেটোলজিস্ট-এর পরামর্শ নেওয়া উচিত। এছাড়াও ঢিলেঢালা কাপড় পরা উচিত, ঘাম বসতে দেবেন না, নিয়মিত লোশন ব্যবহার করুন।

    ৩। নিতম্বের লোম অপসারণ করার জন্য কি শেভ করা যেতে পারে?

    উত্তর – শেভ না করে ওয়াক্সিং করলে ভাল, কারণ আপনি নিজে নিজের নিতম্ব দেখতে পাবেন না এবং শেভ করতে গেলে কেটে যেতে পারে এবং সম্পূর্ণ লোম অপসারিত নাও হতে পারে। যদি আপনি নিতম্বে ওয়াক্স করাতে চান তাহলে ব্রাজিলিয়ান ওয়াক্স করান কারণ এতে ব্যথা কম লাগে এবং লোমের সঙ্গে ময়লা, মরাকোষ এবং অন্যান্য সমস্যাও অপসারণ করতে সাহায্য হয়।

    ৪। নিতম্বে অনেকসময়ে কালচে ছোপ পড়ে। কীভাবে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাব?

    উত্তর – আপনি কোনও ডারমেটলজিস্ট-এর সঙ্গে এ বিষয়ে পরামর্শ করতে পারেন। এছাড়াও বেশ কিছু ঘরোয়া টোটকা রয়েছে জা আপনাকে পাছার কালো দাগ তুলতে সাহায্য করবে। আপনি নিয়মিত আলুর রস, শশার রস, দুধ ও মুলতানি মাটির প্যাক তৈরি করে ত্বকে লাগাতে পারেন। এতে ত্বক উজ্জ্বল, নরম এবং মসৃণ হয়।

    ৫। নিতম্বের সেলুলয়েট কীভাবে দূর করা যায়?

    শাটারস্টক

    উত্তর – নিয়মিত ব্যায়াম করা প্রয়োজন। অতিরক্ত মেদ বেশিভাগ সময়েই আমাদের শরীরের মধ্যবর্তী এলাকায় জমে হতে থাকে, কাজেই এই এলাকার ফ্যাট যাতে দূর হয় তেমন ব্যায়াম করুন। এছাড়া অনেক সেলুলয়েট রিমুভাল ক্রিম বা জেল পাওয়া যায়। আপনি চাইলে অনলাইনে সেলুলয়েট রিমুভাল ক্রিম বা জেল কিনে ব্যবহার করতে পারেন।

    POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

    আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!