শুষ্ক ঠোঁট আর চুলের যত্ন নিতে নিজেই তৈরি করুন কোকোনাট লিপ বাম ও অয়েল মাস্ক

শুষ্ক ঠোঁট আর চুলের যত্ন নিতে নিজেই তৈরি করুন কোকোনাট লিপ বাম ও অয়েল মাস্ক

নারকেলের শুধু বাইরেটাই শক্ত, ভিতরটা যে কত নরম, সে আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আপনিও তো মানুষটা অনেকটা তাই। বাইরে যতই কঠিন থাকুন না কেন, ভিতরে আপনি নরমই। এদিকে বাইরের চাকচিক্যটাই তো মানুষ দেখে। আপনার শুষ্ক ঠোঁট আর শুষ্ক, রুক্ষ চুলটাই সকলে দেখছে। এতে দুঃখ পাওয়ার কিছু নেই। আর ভেঙে পড়তেও হবে না। কাজে লাগান আমাদের অতি পরিচিত নারকেল (coconut) ফলটিকে। এটা তো সারা বছরই পাওয়া যায়। বাজারচলতি সব প্রোডাক্ট হার মেনে গেলে বাড়িতে নিজেই (DIY) তৈরি করে নিন কোকোনাট লিপ বাম আর কোকোনাট অয়েল মাস্ক (mask)। শুষ্ক ঠোঁট আর শুষ্ক চুল, দুইয়েই চলে আসবে দ্বিগুণ জেল্লা। কারণ, ত্বক হোক বা চুল, নারকেল তেলের (oil) কোনও বিকল্প নেই। এর কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও নেই, তাই নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারেন। 

কোকোনাট লিপ বাম শুষ্ক ঠোঁটের জন্য

pixabay

উপকরণ: তিন টেবিল চামচ নারকেল তেল, এক চা চামচ মধু, এক টেবিল চামচ আমন্ড অয়েল, এক টেবিল চামচ ল্যাভেন্ডার অয়েল, খালি কৌটো। 

পদ্ধতি: নারকেল তেল কৌটোয় ঢেলে সেটা আগে জমিয়ে নিন। যদি ঠান্ডায় আগেই জমে গিয়ে থাকে, তা হলে সামান্য গলিয়ে তার মধ্যে মধু, আমন্ড অয়েল আর ল্যাভেন্ডার অয়েল ভাল করে মিশিয়ে দিন। কৌটোর ঢাকা বন্ধ করে ফ্রিজে রেখে দিন।  

আরও কয়েকটি টিপস: অনেকে নারকেল দিয়ে লিপ বাম তৈরি করার সময় পেট্রোলিয়াম জেলি বা ভেসলিন ব্যবহার করেন। একটা কথা বলে রাখি, পেট্রোলিয়াম জেলি কিন্তু প্রাকৃতিক উপাদান নয়। ১০০% খাঁটি প্রাকৃতিক লিপ বাম চাইলে এটা ব্যবহার না করাই ভাল। আপনি এর পরিবর্তে কোকো বাটার বা শিয়া বাটার ব্যবহার করতে পারেন। উপরে উল্লিখিত এসেনশিয়াল তেলগুলোর বদলে জোজোবা অয়েল, অলিভ অয়েলও ব্যবহার করতে পারেন। কোকোনাট অয়েলের সঙ্গে মেশাতে পারেন অ্যালো ভেরা জেলও। 

আরও পড়ুন: ত্বকের যত্নে নারকেল তেল

কোকোনাট অয়েল মাস্ক শুষ্ক চুলের জন্য

pixabay

বাজারচলতি যে-কোনও হেয়ার প্রোডাক্টে অল্প বিস্তর হলেও রাসায়নিক থাকবেই। এগুলো চুলের ক্ষতি করে। কোকোনাট অয়েল মাস্কে কিন্তু সেই ভয় নেই। এটি আপনার চুলে প্রোটিন জোগাবে, স্ক্যাল্পের ভিতরে গিয়ে কাজ করবে এবং চুলের হারিয়ে যাওয়া ময়শ্চার নিয়ে আসবে আবার। শুষ্ক, জট পাকানো ক্ষতিগ্রস্ত চুলে এই মাস্ক খুব ভাল কাজ করে। 

কীভাবে করবেন: একটা স্প্রে বোতলে জল নিয়ে আগে চুল ভিজিয়ে নিন। এবার ভেজা চুলে ভাল করে নারকেল তেল গরম করে লাগান। কোনও চুল যেন বাদ না যায়। স্ক্যাল্প যদি ড্রাই হয়, তা হলে ক্লিপ দিয়ে চুল তুলে লাগিয়ে স্ক্যাল্পের ভিতর ঘষে-ঘষে তেল লাগান। সব চুলে তেল মাখা হয়ে গেলে শাওয়ার ক্যাপ লাগিয়ে এক থেকে দুই ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করে নিন। আরও ভাল রেজাল্ট চাইলে সারা রাতও রেখে দিতে পারেন। 

আরও কয়েকটি টিপস: নারকেল তেলের সঙ্গে মধু বা ডিমও ব্যবহার করতে পারেন। তবে মধু ব্যবহার করলে খেয়াল রাখবেন সেটা যেন ১০০% প্রাকৃতিক মধু হয়। মধু হোক বা ডিম সেটা নারকেল তেলের সঙ্গে ভাল করে মিশিয়ে আগের পদ্ধতি অনুযায়ী লাগাতে পারেন। 

আরও পড়ুন: নারকেল তেল দিয়ে তৈরি সেরা এক ডজন হেয়ার প্রোডাক্ট, চুলের যত্নে যাদের জুড়ি মেলা ভার

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!