লকডাউনে বারবার খিদে পাচ্ছে? আচ্ছা, আপনি স্ট্রেস ইটিং করছেন না তো!

লকডাউনে বারবার খিদে পাচ্ছে? আচ্ছা, আপনি স্ট্রেস ইটিং করছেন না তো!

লকডাউনে (lockdown) আমরা সবাই গৃহবন্দি আর সত্যি বলতে কী, এখনও পর্যন্ত কিছুই বোঝা যাচ্ছে না এই গৃহবন্দি দশা আর কতদিন ভোগ করতে হবে। আমাদের সবারই দৈনন্দিন জীবনে একটা বড় পরিবর্তন এসেছে। সব কিছুই যেন থমকে গিয়েছে। স্কুল-কলেজ, অফিস-কাছারি সবই বন্ধ। আর এই পরিস্থিতিতে আমরা যে সবাই মানসিকভাবে স্ট্রেসে রয়েছি তা আর নতুন করে বলার কিছু নেই। স্ট্রেস থেকে যা হচ্ছে তা হল বার বার খিদে পাচ্ছে। আবার অনেকসময়ে স্ট্রেস কাটাতে বা সময় কাটাতেও আমরা খিদে না পেলেও খেয়ে ফেলছি। এতে প্রধানত দুটো সমস্যা হচ্ছে – এক, তরতর করে ওজন বেড়ে যাচ্ছে; দুই, জমানো রসদ সময়ের আগে শেষ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে। কীভাবে স্ট্রেস ইটিং (stress eating) এড়াতে পারবেন, তা নিয়েই কয়েকটি ছোট্ট অথচ গুরুত্বপূর্ণ টিপস আজ আপনাদের সঙ্গে ভাগ করে নেব।

লকডাউনে কীভাবে স্ট্রেস ইটিং এড়াবেন

১। আমরা অনেক সময়ই ঝোঁকের বশে বেশি খেয়ে ফেলি। হয়ত আপনার খিদে পায়নি, কিন্তু মনে হচ্ছে কিছু খাই, এই পরিস্থিতিতে যে কাজটা আপনি করতে পারেন তা হল বড় গ্লাসের এক গ্লাস জল খেয়ে নেওয়া। অনেক সময়েই এমন হয় যে আমাদের শরীরে জলের অভাব হলে আমাদের মনে হয় যে খিদে পেয়েছে। বারবার করে জল খান। এতে স্ট্রেস ইটিং যেমন এড়াতে পারবেন, একইসঙ্গে ওজনও বাড়বে না।

২। আমরা সবাই সাধারণত দিনে চার বার বা ছয় বার খাই। কিন্তু এক এক বারে কতটা পরিমাণে আমরা খাবার খাচ্ছি তার উপরে কিন্তু আমাদের ওজন বা মেদ বাড়া/কমা নির্ভর করে। আপনার যদি এমন কোনও অভ্যেস থাকে যে আপনি একবারে এক প্যাকেট বিস্কিট বা চিপস খেয়ে ফেলেন, সেক্ষেত্রে এই মুহূর্তে একটা সহজ সমাধান আমরা আপনাকে দিতে পারি। যতটা বিস্কিট বা চিপস আপনার স্ন্যাকিংয়ের জন্য প্রয়োজন তা একটি প্লেটে নিয়ে নিন এবং তারপরেই খান। এতে স্ট্রেস ইটিং তো হবেই না, বরং পরের জন্য কিছুটা স্ন্যাক মজুদও থাকবে।

৩। লকডাউনের জন্য বাড়িতে বসে বসে কোনও কাজ না থাকায় আমরা প্রত্যেকেই বেশ আলসে হয়ে পড়েছি। ফলে সোফায় বসে টিভি দেখতে দেখতে বা খাটে শুয়ে বই পড়তে পড়তে কিছু না কিছু খেয়েই চলেছি। এই সময়টিকে বরং ভাল কাজে লাগিয়ে ফেলুন। একটু ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ বা যোগব্যায়াম করুন। এতে স্ট্রেসও কমবে, প্রয়োজনের তুলনায় বেশি খেতেও হবে না; আবার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়বে।

আচ্ছা, আপনি এগুলো সবই ট্রাই করেছেন, কিন্তু তাও স্ট্রেস ইটিং হচ্ছে!

চিন্তা করবেন না বা প্যানিক করবেন না। একটা মিল খাওয়ার পরেই যদি আবার খিদে পায়, সেক্ষেত্রে একটা গোটা চকলেট বার খাওয়ার আগে নিজেকে প্রশ্ন করুন, আপনার কি সত্যিই খিদে পেয়েছে নাকি আপনি স্ট্রেসে রয়েছেন এবং বোর হচ্ছেন! জাঙ্ক ফুডের বদলে (যেহেতু অনলাইন ফুড ডেলিভারি চলছে, কাজেই আপনি হয়ত জাঙ্ক ফুড খেয়ে ফেলতেও পারেন) কিছু হেলদি খাবার খান। হেলদি ও টেস্টি সুপ খেতে পারেন, এতে পেটও ভরবে আবার ওজনও বাড়বে না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!