logo
Logo
User
home / চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস
চুল থাকবে সুন্দর, যদি ঠাকুমাদের এইসব টোটকা কাজে লাগাতে পারেন

চুল থাকবে সুন্দর, যদি ঠাকুমাদের এইসব টোটকা কাজে লাগাতে পারেন

আমাদের চুল ঠিক রাখতে গেলে হিমশিম খেতে হয়। তাই ঘন ও মজবুত চুলের জন্য ঠাকুমার টোটকা বেশ কাজে লাগে। আসুন দেখে নেওয়া যাক, ঠাকুমারা ঠিক কী পরামর্শ (care of your hair) দিয়ে থাকেন! চুলের যত্ন কীভাবে নেবেন।

ভাল চুলের গোড়ার কথাই হল যত্ন। আসলে চুলের ধরন যেমনই হোক না কেন আপনার চুলের সঠিক যত্নের প্রয়োজন। আপনি একটু পুরনো দিনের কথাই ভাবুন না। আপনার মা ও ঠাকুমাদের সময়ের কথা ভাবুন। ঠাকুমারা কি চুলের কোনও বিশেষ প্রোডাক্ট ব্যবহার করতেন? একদমই নয়। বরং, তাঁরা বাড়িতেই চুলের এমন যত্ন (care of your hair)নিতেন যে আজ এত বছর পরেও তাঁদের চুল একদম ঠিক রয়েছে। !!

চুলের যত্ন নিন আপনিও

চুলের প্রয়োজন সঠিক যত্ন(care of your hair)

আসলে এই যত্ন যে কী, তা নিয়ে ভাবা প্রয়োজন। এই লিস্টটা যথেষ্ট লম্বা। এর অর্থ, প্রতিদিন সকালে উঠে আলতো হাতে চুলের জট ছাড়িয়ে নিয়ে ঠিক ভাবে। তারপর ধীরে ধীরে চুল আঁচড়ে নিতে হবে (take care of your hair) । প্রয়োজনে চুল বাঁধতে হবে। ঠিক রাতে শুতে যাওয়ার আগেও চুলে ভাল ভাবে জট ছাড়িয়ে নিতে হবে। ও তারপর চুল আঁচড়ে নিয়ে বেঁধে ফেলতে হবে।

গোড়া টাইট করে বাঁধবেন না(care of your hair)

আপনি যখন চুল বাঁধছেন, খেয়াল রাখবেন গোড়া যেন খুব শক্ত না হয়ে যায়। তাহলে আপনার চুলে টান পড়তে পারে। ফলে চুলের গোড়া আলগা হয়ে যেতে পারে এবং চুল উঠে যেতে পারে। তাই চুল যখন বাঁধবেন ( care of your hair) , আলগা করেই বাঁধুন।

কীভাবে ভাল রাখবেন চুল

চুল আঁচড়ানোর সময় সতর্ক হন

চুল আঁচড়ানোর সময় সঠিক ব্রাশ ব্যবহার করবেন। হ্যাঁ, সঠিক ব্রাশ বেছে নেওয়াও কিন্তু প্রয়োজন। এই বিষয়ে আমরা অনেকেই জানি না। কিন্তু এইবার থেকে এই বিষয়টি মাথায় রাখবেন। চুল আঁচড়ানোর সময় খুব জোর দেবেন না। জোর করে জট ছাড়াবেন না। ধীরে ধীরে চুল ভাগ করে নিয়ে আস্তে আস্তে ব্রাশ চালাবেন। প্রথমে মোটা দাঁড়ার চিরুণি দিয়ে জট ছাড়িয়ে নিতে পারেন। কখনও ভেজা চুল আঁচড়াবেন না। ভেজা অবস্থায় চুল খুবই দুর্বল লাগে। একটু টানেই এই সময় চুল উঠে আসার সম্ভাবনা থেকে যায়। বা চুল একটু চাপ লেগেও ভেঙে যেতে পারে। তাই চুল অল্প শুকিয়ে যাওয়ার পরেই একমাত্র চুল আঁচড়াবেন। চুলের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত ব্রাশ চালাবেন। এতে আপনার স্ক্য়াল্পের রক্ত সঞ্চালনও ভাল হবে।

তেল মালিশ করুন

চুলের যা কিছু সমস্যা, তার সমাধানে ঠাকুমারা সব সময় বলেন, মাথায় ভাল করে তেল মালিশ কর! আমরা সে কথা অনেক সময় শুনি না ঠিকই। কিন্তু এই পরামর্শ হল সবথেকে অমূল্য পরামর্শ। কারণ, আমাদের সত্যিই সঠিকভাবে তেল মালিশ করা প্রয়োজন। নিয়মিত তেল মাসাজ করবেন। আপনার চুলের ধরন অনুযায়ী তেল বেছে নিন। সেই তেল সামান্য গরম করে নিন। আঙুলের ডগায় তেল নিয়ে চুলের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত ভাল করে মাসাজ করে নেবেন। আপনার চুল গোড়া থেকে পুষ্টি পাবে। এর ফলে আপনার চুল যে শুধু বাড়বে তা নয়, একইসঙ্গে মজবুতও হবে।

বাড়িতে তৈরি হেয়ার মাস্ক

ঠাকুমাদের পরামর্শ আপনার হেয়ার মাস্ক আপনিই বানিয়ে নিতে পারেন আপনি। বাজারজাত হেয়ার মাস্কে রাসায়নিক থাকতে পারে। তাই চেষ্টা করবেন বাড়িতে তৈরি হেয়ার মাস্ক চুলে লাগানোর। আপনার চুলের ধরন অনুযায়ী হেয়ার মাস্ক চুলে লাগাবেন। এতে চুল থাকে সুন্দর ও মজবুত (take care of your hair) ।

স্ক্য়াল্প মাসাজ(care of your hair)

চুলের বৃদ্ধির জন্য ও চুলকে গোড়া থেকে পুষ্টি দেওয়ার জন্য় আপনার প্রয়োজন স্ক্যাল্প মাসাজ। তাই কখনওই স্ক্যাল্প মাসাজ করা এড়িয়ে যাবেন না। আঙুলের ডগা দিয়ে সামান্য় চাপ দিয়ে স্ক্যাল্প মাসাজ করে নেবেন। এতে আপনার স্ক্যাল্পের রক্ত সঞ্চালন ভাল হবে, যা আপনার চুলের জন্য খুবই প্রয়োজন ও ভাল। এতে আপনার চুল গোড়া থেকে পুষ্টি পাবে। চুলের বৃদ্ধি ভাল হবে। চুল ভাল থাকবে। প্রতি রাতে শোয়ার আগে অন্তত একবার স্ক্যাল্প মাসাজ করুন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়!ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

13 Apr 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text