বিউটি প্রোডাক্টস নিয়ে নানা তথ্য

কোন কমপ্যাক্ট পাউডার আপনার ত্বকের জন্য আদর্শ? রইল ১৫টি প্রোডাক্টের সাজেশন!

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Oct 16, 2019
কোন কমপ্যাক্ট পাউডার আপনার ত্বকের জন্য আদর্শ? রইল ১৫টি প্রোডাক্টের সাজেশন!

কমপ্যাক্ট পাউডার (compact powder) কী? খায় নাকি মাথায় দেয়? না! আপনি এ ব্যাপারে আনাড়ি, সে দাবি করছি না আমরা। আপনার মেকআপ বক্সে হয়তো রকমারি কমপ্যাক্ট পাউডারও রয়েছে। কিন্তু সেটা কখন, কীভাবে ব্যবহার করবেন তা জানেন কি? ত্বক অনুযায়ী বেছে নিতে হবে আপনার প্রয়োজনীয় কমপ্যাক্ট পাউডার। তারপর তা নিয়ম মেনে ব্যবহার করলে তবেই মিলবে উপকার। মেকআপ দীর্ঘক্ষণ টিকিয়ে রাখতে খুব জরুরি এই উপাদান। আপনি অনলাইনে কিনতে পারেন। আবার দোকানে গিয়েও কিনতে পারেন। কিন্তু কেনার আগে প্রোডাক্ট গাইড দেখে নেওয়া জরুরি। প্রয়োজন হলে ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে কিনুন। এটি কি প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারবেন? সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে আপনার ত্বককে কি আদৌ বাঁচাতে পারবে কমপ্যাক্ট পাউডার? এ ধরনের সাধারণ প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে এই প্রতিবেদনে। পাশাপাশি আপনার ত্বকের জন্য আদর্শ কিছু কমপ্যাক্ট পাউডারের হদিশও রয়েছে। এবার শুধু বেছে নিয়ে অ্যাপ্লাই করার অপেক্ষা। 

কেন কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করবেন? (Why Do We Use Compact Powder?)

আপনি যদি সাজতে ভালবাসেন, তা হলে কমপ্যাক্ট পাউডার সম্পর্কে আপনার সম্যক ধারণা নিশ্চয়ই রয়েছে। অনেকে আবার ব্যবহার করলেও কেন ব্যবহার করছেন, তার কারণ সঠিক জানেন না। তবে একথা ঠিক, মেকআপ কমপ্লিট করতে কমপ্যাক্ট পাউডার অত্যন্ত প্রয়োজনীয় একটি উপাদান। ধরুন, মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে হবে, সেক্ষেত্রে কমপ্যাক্ট পাউডার মাস্ট। লাইট কভারেজের জন্যও ব্যবহার করা যায়। লিকুইড ফাউন্ডেশনের উপর কমপ্যাক্ট পাউডার লাগিয়ে অল্প টাচআপ করলেই অনেকক্ষণ পর্যন্ত মেকআপ বজায় থাকে। আপনার ত্বক (skin) তৈলাক্ত হলে বা ব্রণর প্রভাব থাকলে অবশ্যই কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করুন। এই ধরনের ত্বকের ক্ষেত্রে এটি আদর্শ। প্রাথমিক ভাবে মেকআপ বসানোর জন্য এবং তা যাতে তেলতেলে না লাগে, তার জন্য কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করাটা জরুরি।

কীভাবে কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করবেন? (How To Apply Compact Powder Perfectly?)

কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করার নির্দিষ্টি কিছু পদ্ধতি রয়েছে। তা ফলো করলে তবেই মেকআপ বসবে ভাল। পরিমাণ মতো পাউডার স্পঞ্জে করে নিয়ে ত্বকে অ্যাপ্লাই করুন। প্রথমবার দেওয়ার সময় যাতে মুখের সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে সেটা দেখবেন। এরপর ধীরে-ধীরে ব্লেন্ড করে নিন মুখে। এতে ত্বকের সব জায়গা কভার যেমন করা যাবে, তেমনই ফ্ললেস ত্বকও পাবেন। ফ্লাফি পাউডার ব্রাশও ব্যবহার করতে পারেন। ব্রাশের মাথায় পাউডার নিয়ে ছড়িয়ে দিন মুখে। কোন ব্রাশ দিয়ে কমপ্যাক্ট পাউডার স্কিনে অ্যাপ্লাই করছেন সেটাও খুব জরুরি।

তৈলাক্ত ত্বকের উপযোগী পাঁচটি কমপ্যাক্ট পাউডার (5 Best Compact Powders For Oily Skin)

যাঁদের ত্বক তৈলাক্ত, কমপ্যাক্টের প্রয়োজনীয়তা তাঁদের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি। কারণ, বেস মেকআপের পর এই বস্তুটিই আপনাকে পারফেক্ট ম্যাট কভারেজ দিতে সক্ষম হবে। আপনার ত্বক যদি তৈলাক্ত হয় তা হলে তার উপযোগী কোন-কোন কমপ্যাক্ট পাউডার হতে পারে, তার একটি গাইডলাইন দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা। 

১| ল্যাকমে রেডিয়েন্স কমপ্লেকশন কমপ্যাক্ট (Lakme Radiance Complexion Compact, Shell)

এই কমপ্যাক্ট পাউডারের মধ্যে ভিটামিন ই এবং সি রয়েছে ভরপুর। যা তৈলাক্ত ত্বকের জন্য অত্যন্ত উপকারী। ত্বকের ভেতর থেকে পুষ্টি জোগায়। আর্দ্রতা বজায় রাখে। খুব সহজে ত্বকে মিশিয়ে দিতে পারবেন। এটি তৈরির সময় অ্যাডভান্স মাইক্রোম্যাশ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে।

২| ল্যাকমে পারফেক্ট রেডিয়ান্স কমপ্যাক্ট, গোল্ডেন (Lakme Perfect Radiance Compact, Golden Medium 03)

এই কমপ্যাক্ট ত্বকে অ্যাপ্লাই করলে ইউভিএ এবং ইউভিবি রশ্মির থেকে বাঁচতে পারবেন অনায়াসে। ওই ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে ত্বককে বাঁচাতে এই কমপ্যাক্ট আলাদা একটা আস্তরণ তৈরি করে। ভিটামিন সমৃদ্ধ এই কমপ্যাক্টে রয়েছে ত্বকের উজ্জ্বল হওয়ার উপাদান। স্কিন টোন ঠিক করার জন্য ভিটামিন বি থ্রি রয়েছে এতে। এছাড়াও পাবেন বিভিন্ন রকমের মিনারেল।

৩| মেবেলিন নিউইয়র্ক ফিট মি ম্যাট পোরলেস পাউডার (Maybelline New York Fit Me Matte + Poreless Powder)

লোমকূপের মুখ উন্মুক্ত করে বহুক্ষণ পর্যন্ত ত্বকের জেল্লা বজায় রাখে এই কমপ্যাক্ট পাউডার। তৈলাক্ত ত্বক তো বটেই, আপনার নর্মাল টু অয়েলি স্কিন হলেও ব্যবহার করতে পারেন। তৈরির সময় ত্বক বিশেষজ্ঞরা আলাদা করে এটি পরীক্ষা করেছেন। ত্বকে ব্ল্যাক হেডস থাকলে তাও দূর হবে এটি ব্যবহার করলে।

৪| কালারএসেন্স কমপ্যাক্ট পাউডার, ডাস্কি (Coloressence Compact Powder, Dusky)

এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি সফট টেক্সচারের। তৈলাক্ত ত্বকের ক্ষেত্রে বেশি উপকারি। তবে অন্যান্য ত্বকেও ব্যবহার করতে পারেন। ঘাম হলে এই পাউডার সেই অসুবিধেও দূর করবে। আপনার ত্বকে যদি মেচেতা বা অন্য কোনও ধরনের দাগ থাকে, সেটাই এই কমপ্যাক্ট কয়েক মাস ব্যবহার করলে মেকআপের সময় লুকিয়ে রাখতে পারবেন অনায়াকে।

৫| ল্যাকমে নাইন টু ফাইভ প্রাইমার উইথ ম্যাটি পাউডার ফাউন্ডেশন কমপ্যাক্ট, সিল্কি গোল্ডেন (Lakme 9 to 5 Primer with Matte Powder Foundation Compact, Silky Golden)

খুব সহজেই আপনার ত্বকে ব্যবহার করতে পারবেন এই কমপ্যাক্ট পাউডার। ত্বকের সূক্ষ্ম লাইন কনসিল করতে পারবেন সহজে। দীর্ঘক্ষণ মেকআপ বজায় রাখতে এই কমপ্যাক্ট পাউডার আদর্শ। মোট ছ’টি শেডে বাজারে পাওয়া যায়। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য আদর্শ।

শুষ্ক ত্বকের উপযোগী পাঁচটি কমপ্যাক্ট পাউডার (Top 5 Compact Powders For Dry Skin)

অনেকেরই ধারণা, শুষ্ক ত্বকে কমপ্যাক্ট পাউডার লাগালে নাকি ত্বক আরও রুক্ষ-শুষ্ক দেখতে লাগে! একথা একেবারেই ঠিক নয়। আসলে প্রতিটি ত্বকের নিজস্ব প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। সেটি অনুযায়ী বিভিন্ন ব্র্যান্ড নানা ধরনের কমপ্যাক্ট তৈরি করে। শুষ্ক ত্বকের জন্য তৈরি কমপ্যাক্টগুলিতে সাধারণতই ভিটামিন ই বা নানা ধরনের এসেনশিয়াল অয়েল এক্সট্র্যাক্ট থাকে। তাই তা ত্বককে আরও শুষ্ক করে তোলে না! ত্বক শুষ্ক হলে কোন-কোন কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করতে পারেন, তার একটা সাজেশন রইল আপনাদের জন্য। 

১| কালারএসেন্স হাই ডেফিনেশন পাউডার, ডাস্কি (Coloressence High Definition Powder, Dusky)

নির্মাতা সংস্থার দাবি, এই কমপ্যাক্ট পাউডার সম্পূর্ণ অরগ্যানিক। প্রি মেকআপ বেস হিসেবে শুষ্ক ত্বকে ব্যবহার করার জন্য আদর্শ। ত্বক সঙ্গে সঙ্গে ফ্রেশ দেখাতে চাইলে অবশ্যই ব্যবহার করুন। এই পাউডার ব্যবহার করে বয়সও ঢেকে ফেলা যায় অনায়াসে।

২| ল্যাকমে নাইন টু ফাইভ ফ্ললেস ম্যাট কমপ্লেকশন কমপ্যাক্ট (Lakme 9 to 5 Flawless Matte Complexion Compact)

ভিটামিন ই এবং বেশ কিছু তেল দিয়ে তৈরি হয়েছে এই কমপ্যাক্ট পাউডার। তিনটি আলাদা শেডে পাওয়া যায়। দিনভর মেকআপ বজায় রাখতে চাইলে অবশ্যই ব্যবহার করুন। কাজের সময় মেকআপ বজায় রাখতে হলে এই কমপ্যাক্টটি ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভাল ফল পাবেন। 

৩| ল্যাকমে সান এক্সপার্ট আলট্রা ম্যাট কমপ্যাক্ট (Lakme Sun Expert Ultra Matte SPF 40 PA+++ Compact)

সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে ত্বক বাঁচাতে হলে ট্রাই করতে পারেন এই কমপ্যাক্ট পাউডার। ইউভিএ এবং ইউভিবি রশ্মি থেকে ত্বক বাঁচবে। কোনওভাবেই চিটচিটে ভাবও থাকবে না। রোদ্দুরে ত্বক পুড়ে যাওয়া, কালো ছোপ, বলিরেখা পড়ার হাত থেকেও রক্ষা করবে ত্বককে। কমপ্লেকশনকে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন ব্যবহার করতে পারেন এই কমপ্যাক্ট পাউডার। 

৪| কালার ফিভার ফোটো ম্যাচ জেন্টেল প্রেসড পাউডার (Color Fever Photo Match Gentle Pressed Powder)

এই কমপ্যাক্ট পাউডারটির সুবিধে হল, একেবারে অয়েল ফ্রি। অর্থাৎ ম্যাট এফেক্ট পাবেন। ভিটামিন ই সমৃদ্ধ পাউডারটির এসপিএফ ১৫। পাশাপাশি ইউভিএ, ইউভিবি প্রোটেকশন পাবেন। শুষ্ক ত্বকের জন্য আদর্শ এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি ট্রাই করতে পারেন।

৫| লরিয়াল প্যারিস ট্রু ম্যাচ সুপার ব্লেন্ডেবল পাউডার (L’Oreal Paris True Match Super Blendable Powder)

এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি যেন সফট, তেমনই লাইট ওয়েট। খুব সহজেই ত্বকে ব্লেন্ড করা যায়। এর আলট্রা ফাইন ফরমুলার কারণে ত্বকের ভিতর পর্যন্ত গিয়ে কাজ করে। হালকা হওয়ার কারণে মেকআপ শেষ হলে আলাদা করে কমপ্যাক্ট পাউডার যে অ্যাপ্লাই করেছেন, তা বোঝা যাবে না। 

সাধারণ ত্বকের উপযোগী পাঁচটি কমপ্যাক্ট পাউডার (Best Compact Powders For Normal Skin)

সাধারণ ত্বক হওয়ার অনেক রকম সুবিধে আছে। তবুও মেকআপ করতে বসার আগে কোন-কোন কমপ্যাক্ট পাউডার আপনার জন্য আইডিয়াল সেটা দেখে নিতে পারেন। আপনার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সুবিধে হল, কমপ্যাক্ট আপনার জন্য নিছকই টাচ আপের একটি উপকরণ মাত্র। মানে, সাজ শেষে বাইরে বেরনোর আগে ব্যাগে একটি ছোট কমপ্যাক্ট ক্যারি করলেই আপনি নিশ্চিন্ত। টুকটাক টাচ আপ, নাকের উপরে জমে ওঠা অল্প ঘামতেলের ছোপ কমপ্যাক্টের হালকা ছোঁওয়াতেই আপনার ক্ষেত্রে গায়েব হয়ে যাবে!

১| ল্যাকমে নাইন টু ফাইফ ফ্ললেস ক্রিম কমপ্যাক্ট (Lakme 9 to 5 Flawless Creme Compact)

কমপ্যাক্টের মধ্যে ক্রিম টু পাউডার ফিনিশ চাইলে এই প্রডাক্টটি আপনার জন্য আদর্শ। হাই কভারেজ, সঙ্গে পাবেন ফ্ললেস ফিনিশ। স্ট্রং হলুদ আন্ডারটোন থাকবে। ঝকঝকে ও তাজা দেখাবে ত্বক। আপনার কমপ্লেকশন এই কমপ্যাক্ট পাউডারটির মাধ্যমে টোন ডাউন বা আপও করতে পারেন। 

২| ল্যাকমে নাইন টু ফাইভ ন্যাচারাল ফিনিশিং পাউডার (Lakme 9 to 5 Naturale Finishing Powder)

অ্যালোভেরা এবং গ্রিনটির মিশ্রণে তৈরি করা হয়েছে এই কমপ্যাক্ট পাউডার। যে কোনও রকম দূষণ থেকে ত্বককে রক্ষা করে এটি। অয়েল ফ্রি এবং ন্যাচারাল লুক পেতে ব্যবহার করতে পারেন। লাইট ওয়েট এই পাউডার অ্যাপ্লাই করাও খুব সহজ। 

৩| নোট লুমিনাস সিল্ক কমপ্যাক্ট পাউডার (Note Luminous Silk Compact Powder)

ত্বক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিয়ে গবেষণার পর তৈরি করা হয়েছে এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি। পাঁচটি শেডে বাজারে পাওয়া যায়। আপনার ত্বকে কোনটা মানাবে সেটা দেখে কিনুন। শহুরে দূষণ থেকে আপনার ত্বককে রক্ষা করবে এই কমপ্যাক্ট পাউডার। 

৪| মি অন অয়েল কন্ট্রোল পাউডার (Me-On Oil Control Powder)

ত্বকের বলিরেখা দূর করতে এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি আদর্শ। ত্বকে ময়শ্চারাইজারের পরিমাণ বজায় রাখতেও এর জুড়ি মেলা ভার। সব রকম ত্বকের জন্য আদর্শ এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি রাখতেই পারেন আপনার মেকআপ কিটে।

৫| লোটাস হারবালস ন্যাচরাল ব্লেন্ড ট্রান্সলুসেন্ট লুজ পাউডার (Lotus Herbals Translucent Loose Powder)

সারাদিনের জন্য মেকআপ বসাতে হলে এই কমপ্যাক্ট পাউডারটি আদর্শ। যে কোনও রকমের পাফ দিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। অয়েল ফ্রি। পাশাপাশি ত্বকক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে এই কমপ্যাক্ট পাউডার।

কীভাব কমপ্যাক্ট পাউডার পছন্দ করবেন (How To Choose Compact Powder)

Instagram

কমপ্যাক্ট পাউডার কেনার আগে কীভাবে তা পছন্দ করবেন, সেটা একটা বড় বিষয়। ফলো করতে পারেন নীচের টিপসগুলি।

১| আপনার ত্বক ঠিক কোন ধরনের তা সবার আগে জেনে নেওয়া জরুরি। যদি এ সম্বন্ধে নিজের কোনও ধারণা না থাকে, তাহলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞদের সাহায্য নিন।

২| শুষ্ক, তৈলাক্ত বা সাধারণ ত্বক হলেই হবে না। আপনার স্কিন টোন অনুযায়ী কোন কমপ্যাক্ট পাউডার কার্যকরী হবে সেটা জেনে নিন।

৩| কমপ্যাক্ট পাউডার দিয়ে ঠিক কী করতে চাইছেন, তা আগে ঠিক করে নিন। স্কিন টোন বাড়াতে চান নাকি দীর্ঘক্ষণ মেকআপ বসাতে চান, সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রয়োজন অনুযায়ী কমপ্যাক্ট পাউডার কিনুন।

৪| কেনার আগে কোন কোন উপাদান দিয়ে ওই নির্দিষ্ট প্রোডাক্ট তৈরি হয়েছে. তা জেনে নিন। কারণ উপকরণের কোনও উপাদানে আপনার অ্যালার্জি থাকলে তা সহজেই বাদ দিতে পারবেন। 

৫| ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ অনুযায়ী কমপ্যাক্ট পাউডারটি তৈরি হয়েছে কিনা জেনে নিন কেনার আগেই।

৬| আপনার কমপ্যাক্ট পাউডার সান প্রোটেকশন হিসেবে কাজ করবে কিনা জেনে নেওয়া জরুরি।

৭| সবচেয়ে বেশি কতদিন পর্যন্ত ওই পাউডার ব্যবহার করতে পারবেন, তাও দেখে নিন। কারণ কেনার পরই সব সময় আমরা ব্যবহার করি না।

৮| ডেলি মেকআপ আর পার্টি মেকআপের কমপ্যাক্ট পাউডার সাধারণত আলাদা হয়। কেনার আগে তাও লক্ষ্য রাখবেন।

৯| প্রোডাক্টের গায়ে তার গুণাগুণ সাধারণত লেখা থাকে। পড়ে নিলে পরে আর পস্তাতে হবে না।

১০| একই প্রোডাক্টের বিভিন্ন শেড বাজারে পাওয়া যায়। আপনার কোনটা প্রয়োজন সেটা দেখে কিনে নিন।

কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহারের সাইড এফেক্টস (Side Effects of Compact Powder)

কমপ্যাক্ট পাউডার মেকআপের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান একথা ঠিক। কিন্তু এর কিছু সাইড এফেক্টও রয়েছে। প্রতিদিন মেকআপ প্রোডাক্ট ব্যবহার না করাই ভাল। ত্বক যতটা ন্যাচারাল রাখবেন ততই মঙ্গল। বেশি ব্যবহার করলে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে। কোনও কোনও লুজ পাউডার লুক ঘেঁটে দেয়। তাই কেনা এবং অ্যাপ্লাই করার সময় সেদিকে নজর দেবেন। সব মিলিয়ে ত্বকের ক্ষতি না করে কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করুন। 

কমপ্যাক্ট পাউডার নিয়ে কিছু প্রশ্নোত্তর (FAQs)

Instagram

১| প্রশ্ন: কমপ্যাক্ট পাউডার কি প্রতিদিন ব্যবহার করা উচিত? 

উত্তর: মেকআপ বিশেষজ্ঞদের মতে, কমপ্যাক্ট পাউডার আপনি প্রতিদিন ব্যবহার করতেই পারেন। তবে শুতে যাওয়ার আগে মেকআপ তুলে ময়শ্চারাইজার মেখে নিন। এতে কোনও ক্ষতি হবে না।

২| প্রশ্ন: কমপ্যাক্ট পাউডার মুখে ব্যবহার করা ভাল নাকি খারাপ? 

উত্তর: মেকআপ ঠিক রাখতে কমপ্যাক্ট পাউডার ব্যবহার করুন। কিন্তু কনসিলারের উপর ভাল করে ব্লেন্ড করে নেবেন। না হলে দেখতে খারাপ লাগে।

৩| প্রশ্ন: কমপ্যাক্ট পাউডার সরাসরি মুখে ব্যবহার করা উচিত? 

উত্তর: একটি স্পঞ্জের অ্যাপ্লিকেটর নিয়ে হালকা ভাবে মুখে লাগিয়ে নিন কমপ্যাক্ট পাউডার। ভাল করে মিশিয়ে নিতে ভুলবেন না।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty – POPxo Shop-এর স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়…