Advertisement

চোখের মেকআপ

#MAKEUP TIPS: চোখ মনের কথা কয়, সহজে নানা কায়দার আইলাইনার পরার উপায়

Upasana SarkarUpasana Sarkar  |  Dec 21, 2018
#MAKEUP TIPS: চোখ মনের কথা কয়, সহজে নানা কায়দার আইলাইনার পরার উপায়

Advertisement

বরের অফিস পার্টিতে যাওয়ার জন্য রেডি হচ্ছে নন্দিনী। পাশে চলছে তার প্রিয় গান ‘ইন আঁখো কি মস্তি’। বেশি মেকআপ (make up) না করলেও চোখে বেশ ভালই মেকআপ নেয় সুন্দরী এই কন্যে। কিন্তু একটাই সমস্যা, আইলাইনার (eyeliner) লাগাতে গেলেই ধেবড়ে যায়। আর সেটা তুলে আবার আঁকতে গেলেই দেরি! তাই কী যে করবে ভেবে পায় না। আর এই দেরির জন্যই বরের কাছে বেশ কয়েক বার বকুনিও খেতে হয়েছে। নন্দিনীর সঙ্গে অনেক মেয়েই হয়তো নিজেদের মিল খুঁজে পাবেন। চোখ (eyes) আসলে মুখের সব থেকে আকর্ষণীয় অংশ। তাই চোখের সাজ (eye makeup) ঠিকঠাক না হলে যতই দামি শাড়ি-গয়না পরুন না কেন, একটা ফাঁক থেকেই যাবে। আর আইলাইনার (eyeliner) পরতে গিয়ে অনেকেই সমস্যায় পড়েন। হয় ট্যারাব্যাঁকা হয়ে যায়, না হলে মোটা হয়ে যায়। চাপ নেবেন না! এ বার আইলাইনার (eyeliner) পরার সোজা উপায় বাতলে দেব আমরা। ট্রাই করে দেখবেন, সকালে উঠে কম সময়ে অফিসেও ভাল করে সেজে যেতে পারবেন।

প্রথমে ভাল কোনও কোম্পানির আইলাইনার (eyeliner) বেছে নিতে হবে।ব্যবহার না করাই ভাল। কারণ চোখ খুব সেনসিটিভ জায়গা, তাই যে-সে প্রোডাক্ট  লিক্যুইড আইলাইনারে (liquid eyeliner) সমস্যা হলে জেল আইলাইনার বা পেন আইলাইনার ব্যবহার করতে পারেন। অন্য রকম মেকআপ (make up) চাইলে বেছে নিতে পারেন অন্যান্য শেডের আইলাইনার (eyeliner)। কারণ আজকাল অন্য রঙের আইলাইনার ফ্যাশনে (fashion) ইন। তা হলে আসুন দেখে নিই চটজলদি আইলাইনার (eyeliner) দেওয়ার উপায়।

১। প্রথমে চোখটা ভাল করে পরিষ্কার করে নিতে হবে। জেল আইলাইনার (gel eyeliner) বা কাজল (kajal) পেন্সিল দিয়ে চোখের মেকআপ করার আগে চোখের পাতায়, চোখের তলায় আর চোখের কোণে পাউডার লাগিয়ে নিন। যাতে স্মাজ (smudge) না করে যায়।

২। এ বার চোখের পাতার উপর সরু করে লাইন টেনে নিন। এ বার সেই লাইন ভরাট করুন। তবে লাইন টানতে গিয়ে অনেকেরই হাত কাঁপে। তাই তাঁরা চোখের পাতার উপর প্রথমে কয়ে যাদের হাত কাঁপে, তারা এক কাজ করতে পারেন। চোখের পাতার উপর কয়েকটা ডট এঁকে নিন। এ বার সেই ডটগুলোকে জুড়ে নিন। সুন্দর লাইন হয়ে যাবে।

৩। এর পর চোখের নীচের পাতা বরাবরও লাইন টানুন। লিক্যুইড আইলাইনার (liquid eyeliner) দিয়ে অসুবিধা হলে জেল আইলারনার (gel eyeliner) বা পেন আইলাইনার (pen eyeliner) ব্যবহার করে দেখতে পারেন। তাতেও অসুবিধা থাকলে চোখের নীচের পাতা বরাবর একটু মোটা করে ভাল কাজল দিতে পারেন।

এ তো গেল সিম্পল উপায়ে আইলাইনার (eyeliner) পরা। কিন্তু এখানেই থেমে থাকলে চলবে? টানা টানা চোখ আঁকাটাও একটা আর্ট! কারণ টানা অথবা উইঙ্গড আই-মেকআপ (winged eye makeup) অনেকেই পছন্দ করেন। আসলে টানা চোখের মেকআপে চোখটাকে (eye) আরও বড় ও সুন্দর দেখায়। কিন্তু ঘেঁটে যাওয়ার ভয়ে অনেকেই আর সেই রাস্তায় হাঁটেন না।

৪। উইঙ্গড আইলাইনার (winged eyeliner) পরতে গেলে প্রথমে কোণাকুণি একটু উপরের দিকে তুলে লাইন টানতে হবে। এ বার চোখের নীচের পাতার সেই লাইনটির সঙ্গে উপরের লাইনটি মিলিয়ে দিতে হবে। তা হলেই রেডি উইঙ্গড আইলাইনার। তবে লাইন ট্যারাব্যাঁকা হলেই মুশকিল। তার জন্য এক কাজ করতে পারেন। একটা সেলোটেপ (sellotape) নিয়ে নিন। এ বার সেই সেলোটেপটাকে চোখের কোণাকুণি একটু উপরের দিকে তুলে আটকে নিন। এ বার ওই সেলোটেপের পাশ দিয়ে লাইন টেনে নিন। আঁকা হয়ে গেলে সেলোটেপটা তুলে ফেলুন। ব্যস! রেডি উইঙ্গড আইলাইনার।

সহজেই আইলাইনার (eyeliner) লাগানোর আরও কিছু টিপস (tips) রইল…

১। আইলাইনার (eyeliner) লাগানোর সময় কনুই দিয়ে কোনও কিছুর উপর ভর দেবেন। না হলে বেঁকে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

২। উইং (wing) করার সময় কখনও চোখ টেনে ধরবেন না। এতে আইলাইনার (eyeliner) নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই ছোট ছোট ডট এঁকে নিয়ে লাইন টানুন।

৩। কখনও উপরের দিকে তাকিয়ে চোখ আঁকবেন না। এতে আইলাইনারের শেপ (shape) নষ্ট হয়ে যায়। সব সময় নীচের দিকে তাকিয়ে আইলাইনার (eyeliner) লাগাবেন।

৪। কাজল (kajal) বা আইলাইনার (eyeliner) পরতে গিয়ে ঘেঁটে গেলে চোখের আশপাশে কালো দাগ হয়ে যায়। অনেক সময় ডার্ক সার্কলের (dark circle) মতো লাগে। সেই দাগ ঢাকতে চোখের উপরে-নীচে গাঢ় শেডের আইশ্যাডো (eye shadow) ব্যবহার করতে পারেন। তা হলে একটা স্মোকি লুক (smoky look) পাওয়া যাবে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!