home / বিনোদন
মিথিলার পর দ্বিতীয়বার বিয়ে করছেন তাঁর প্রাক্তন স্বামী তাহসানও? পাত্রী কে জানেন?

মিথিলার পর দ্বিতীয়বার বিয়ে করছেন তাঁর প্রাক্তন স্বামী তাহসানও? পাত্রী কে জানেন?

তাহসান (Tahsan) রহমান খান। পেশায় গায়ক। বাংলাদেশের জনপ্রিয় এই গায়কের পেশাদারি পরিচয় ছাড়াও তাঁর ব্যক্তিগত পরিচয় ইদানিং উঠে এসেছে শিরোনামে। কারণ তিনি বাংলাদেশের শিল্পী মিথিলার (Mithila) প্রাক্তন স্বামী। কয়েক মাস আগে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দাম্পত্য সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছেন মিথিলা। 

মিথিলা-সৃজিতের বিয়ের (Marriage) সময় থেকেই তাহসান এবং মিথিলার সম্পর্ক নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছিল বিভিন্ন মহলে। তাঁদের বন্ধুত্ব, প্রেম, বিয়ে, সন্তান, বিচ্ছেদ সবই ছিল আলোচনায়। কিন্তু এবার শোনা যাচ্ছে, তাহসানের বিয়ের খবর। মিথিলার পর তিনিও নতুন করে জীবন শুরু করার কথা নাকি ভেবেছেন। অর্থাৎ দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে চলেছেন তাহসান। 

ADVERTISEMENT

বাংলাদেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে তাহসানের বিয়ের খবর প্রকাশিত হয়েছে। যদিও পাত্রীর নাম বা পরিচয় এখনও প্রকাশ্যে আসনি। ঢাকার একটি রেস্তরাঁয় জনৈক সংবাদ কর্মীর সঙ্গেই নাকি সময় কাটাতে দেখা গিয়েছে তাহসানকে। তারপর থেকেই তাঁদের সম্পর্ক এবং বিয়ের জল্পনায় সরগরম সংবাদমাধ্যমের একটা বড় অংশ। যদিও এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেননি তাহসান স্বয়ং। 

মিথিলা এর আগে বাংলাদেশের সঙ্গীত শিল্পী তাহসান রহমান খানের সঙ্গে বিবাহ সূত্রে আবদ্ধ ছিলেন। ২০০৪-এ তাঁদের আলাপ। ২০০৬-এ তাঁরা বিয়ে করেন। ২০১৩-এ তাঁদের একমাত্র মেয়ে আয়রার জন্ম হয়। কিন্তু তাহসান-মিথিলার দাম্পত্য সুখের হয়নি। ২০১৭- তাঁরা বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন। এরপর ২০১৯-এর শেষে মিথিলা বিয়ে করেন সৃজিতকে। এই ঘটনার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল ট্রোলিংয়ের শিকার হন তিনি। কেউ বা মিথিলার বিরুদ্ধে তাহসানকে প্রতারণার অভিযোগ তোলেন। কেউ বা প্রশ্ন তোলেন, সৃজিতের বয়স নিয়ে! কিছুদিন আগে সে সবেরই মজার জবাব দিয়েছেন সৃজিত স্বয়ং!

ADVERTISEMENT

আরও পড়ুন, মুখোমুখি সৃজিত, সাক্ষাৎকার নিলেন মিথিলা, কোন কোন প্রশ্নের উত্তর দিলেন পরিচালক?

জনৈক বাংলাদেশি নাগরিক সৃজিতের বয়স নিয়ে টুইটে কটাক্ষ করেন। তার জবাবে সৃজিত রি-টুইট করেন, ‘আমি জানি। রোজ আয়না দেখি ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদি। বোটক্স আর প্লাস্টিক সার্জারি দুটোর জন্যই টাকা জমাচ্ছি।’

ADVERTISEMENT

আসলে ট্রোলিং এক কথায় সামাজিক ব্যাধির পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে। এমনই মনে করেন, সোশ্যাল অডিয়েন্সের একটা বড় অংশ। সেলেবরা যে কোনও কারণেই ট্রোলিংয়ের শিকার হন। কেউ বা রেগে যান, কেউ আবার ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতি সামাল দেন। অন্য কারও ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত, ব্যক্তিগত সম্পর্ককে সম্মান না করতে পারুন, অন্তত অসম্মান করবেন না, এই সাধারণ কথাটাই যেন ভুলে যান অনেকে। তারই উদাহরণ মিথিলাকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করা এই ধরনের টুইট! এবার তাহসানের বিয়ের জল্পনাতেই মিথিলার নাম টেনে আনাকে ট্রোলিং হিসেবেই দেখতে চান সোশ্যাল অডিয়েন্সের একটা অংশ। দু’জন পরিণত মানুষ। তাঁদের সিদ্ধান্তও একান্ত ব্যক্তিগত। কিন্তু তা নিয়ে অপমানজনক কথা সোশ্যাল ওয়ালে লিখে আসলে মানুষ নিজের রুচির পরিচয় দেন বলেই মনে করছেন সমাজতাত্ত্বিকরা। এই ট্রেন্ড অবিলম্বে বন্ধ হওয়া উচিত বলে মনে করেন তাঁরা। 

 

ADVERTISEMENT

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!

ADVERTISEMENT
24 Feb 2020
good points

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text