Advertisement

Love

নিজেদের নিয়ে মজা করে প্রাণ খুলে হাসেন যাঁরা, তাঁরাই বজায় রাখেন সুখী দাম্পত্য

Doyel BanerjeeDoyel Banerjee  |  Jan 13, 2020
নিজেদের নিয়ে মজা করে প্রাণ খুলে হাসেন যাঁরা, তাঁরাই বজায় রাখেন সুখী দাম্পত্য

Advertisement

শীতের বিয়েবাড়ি সবে জমে উঠেছে সেদিন। হঠাৎ সবার চোখ ঘুরে গেল এক মাঝবয়সি দম্পতির দিকে। ভদ্রমহিলা বেশ ছিপছিপে, রোগাই বলা চলে। আর ভদ্রলোক বেশ ভারী চেহারার। ছোট দরজা দিয়ে ঢুকতে যথেষ্ট বেগ পেতে হল তাঁকে। তাঁরা কিন্তু দিব্যি হাত ধরে ঢুকে নতুন বউকে উপহার দিয়ে বললেন, কেমন সামঞ্জস্য বজায় রেখেছি আমরা, তাই না? তোমরাও এভাবেই চলবে কিন্তু। ব্যস! বিয়েবাড়িতে সবার মুখে একগাল হাসি। নতুন বউও লজ্জায় রাঙা হয়ে গেল নিমেষে। জানা গেল, এই দম্পত্তির নাকি সদ্য ২৫ বছর হয়েছে বিয়ের। আর আজও দুরন্ত গতিতে এগিয়ে চলেছে তাঁদের বৈবাহিক জীবন। রহস্যটা কী? কোনও রহস্য নেই। নিজেদের নিয়ে মজা করে, ঠাট্টা করে, প্রাণ খুলে যাঁরা হাসেন (laughter) দাম্পত্য (married) জীবন (life) মসৃণ (medicine) হয় তাঁদের। অন্তত গবেষণা তাই বলছে। 

হাসতে হাসতেই সমস্যার মোকাবিলা

একসঙ্গে একজোট হয়ে হাসতে হাসতে সমস্যার সমাধান করা উচিত

যাঁরা প্রাণ খুলে হাসেন, তাঁরা পরস্পরের অনেক কাছাকাছি থাকেন। কোনও সমস্যা হলে তাই বলব কি বলব না বলে দ্বিধা করেন না তাঁরা। তাই এই সব দম্পতিদের মধ্যে বন্ধন খুব দৃঢ় হয়। দেখা গেছে যে, কোনও সমস্যায় এঁরা পরস্পরের পাশে দাঁড়ান এবং কোনও বড় বিপদ হলে এঁরা একজোট হয়ে তার মোকাবিলা করেন। 

স্ট্রেস কমায়

হাসি স্ট্রেস কমায়

আপনি স্বামী বা স্ত্রীয়ের সঙ্গে বসে হাসুন বা একা একাই কোনও বই পড়ে বা সিনেমা দেখে হেসে গড়াগড়ি যান, আমাদের ব্যস্ত শরীরকে সুস্থ রাখতে হাসির ভূমিকা অনেক। স্বাভাবিক হাসি শরীর থেকে হ্যাপি হরমোন নিঃসৃত করে। তাই স্বামী-স্ত্রী যদি একসঙ্গে হাসাহাসি করেন, মজার সিনেমা দেখেন বা কোনও বই পড়ে সেটা নিয়ে আলোচনা করেন, তা হলে তাঁদের ব্যক্তিগত জীবনের স্ট্রেস অনেক কমে যায়। 

কেউ কম নয়, কেউ বেশি নয়

নিজেদের নিয়েও ঠাট্টা করুন

কেউ লম্বা, আবার কারও উচ্চতা কম। কেউ দুধে আলতা আবার কারও গায়ের রং চাপা। এগুলো নিয়ে দীর্ঘশ্বাস না ফেলে যাঁরা এগুলো নিয়ে হেসে উড়িয়ে দেন, তাঁদের জীবন দর্শন যে আর পাঁচ জনের চেয়ে আলাদা, সেই বিষয়ে আলাদা করে বলার কিছু নেই। আশেপাশের লোকজন তাঁদের এই তারতম্য নিয়ে কী বলল, সেই সব অপ্রয়োজনীয় মন্তব্যে তাঁরা কান দেন না।

তৈরি হয় ভরসার জায়গা

প্রাণ ভরে হাসুন, আপনার মস্ত বড় ভরসা ওটাই

আপনার যখন কোনও স্ট্রেস হয়, সেটা ব্যক্তিগত বা কর্মজীবন যাই হোক না কেন, তখন আপনার দরকার এমন একজনকে যাকে আপনি মন উজাড় করে সব কথা বলতে পারেন। যারা হাসতে আহস্তে সব সমস্যার সমাধান করেন বা খামোখা এক গাদা চিন্তার ভার মাথায় নিয়ে বসে থাকেন না, তাঁদের কিন্তু যাকে বলে কেয়া বাত দাম্পত্য! কোনও বন্ধু, আত্মীয় বা পড়শির কাছে না গয়ে নিজের স্বামী বা স্ত্রীর সঙ্গেই সমস্যা শেয়ার করতে পারেন নির্দ্বিধায়। তিনি এমন মজাদার পরিস্থিতি তৈরি করবেন যে আপনার দুশ্চিন্তা পালাবার পথ পাবে না। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম…আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!