logo
Logo
User
home / ওয়েলনেস
সকালে তাড়াতাড়ি ওঠার পাঁচটি সুবিধে

সকালে তাড়াতাড়ি ওঠার পাঁচটি সুবিধে

“আর্লি টু বেড অ্যান্ড আর্লি টু রাইজ” সেই স্কুল জীবন থেকে এই সাহেবি প্রবাদ আমরা শুনে আসছি। অর্থাৎ তাড়াতাড়ি যদি কেউ ঘুমোতে যায় এবং তাড়াতাড়ি উঠে পড়ে তাহলে একজন মানুষ স্বাস্থ্যবান, ধনী ও বুদ্ধিমান হয়। নেহাতই কথার কথা ভেবে এই প্রবাদকে (perks of rising early) কেউই আমরা গুরুত্ব দিইনি। কিন্তু সকালে তাড়াতাড়ি ওঠার যে কতগুলো দারুণ সুফল আছে সেগুলো অস্বীকার করা যায় না। তার মানে এই নয় যে আপনার শরীর খারাপ থাকলে বা রাত জেগে কাজ করলে আপনি পরের দিন একটু বেলা পর্যন্ত ঘুমোতে পারবেন না। কিন্তু সেটাকে অভ্যেসে পরিণত করবেন না। আসুন দেখে নেওয়া যাক সকালে তাড়াতাড়ি ওঠার সুফলগুলো কী কী। 

১। অনেকটা সময় পাওয়া যায় – তাড়াতাড়ি উঠলে আপনি হাতে কাজ করার জন্য অনেকটা বেশি সময় পাবেন। অনেক বেশি এনার্জি অনুভব করবেন এবং অনেক দ্রুত কাজ সারতে পারবেন। গবেষণা বলছে যে যারা সকালে তাড়াতাড়ি ওঠেন তাঁরা যে কোনও সিদ্ধান্ত অনেক দ্রুত নিতে পারেন এবং নিজের লক্ষ্যে খুব সহজেই পৌঁছে যান।

২। সাফল্য আসে – টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয় একবার একটি গবেষণা করে দেখেছিল। এর জন্য তাঁরা সেইসব ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছিল যারা তাড়াতাড়ি ওঠে। আবার এক দল গবেষক কথা বলে যারা দেরিতে ওঠে তাঁদের সঙ্গে। দেখা গেছে যে সব ছাত্রছাত্রীরা তাড়াতাড়ি ওঠে তাঁরা পরীক্ষায় অনেক ভাল করেছে। একই নিয়ম কার্যকরী হয়েছে অন্যান্য ক্ষেত্রেও। দেখা গেছে যে সব ব্যক্তি তাড়াতাড়ি ওঠেন, মহিলা পুরুষ নির্বিশেষে তাঁরা অন্যদের চেয়ে অনেক বেশি সফল (perks of rising early) হন। 

৩। মানসিকভাবে অনেকটা সুস্থ থাকা যায় – যেহেতু আপনি অনেক তাড়াতাড়ি উঠছেন সেহেতু আপনার হাতে অনেক বেশি সময় আছে।  ফলে কোথাও বেরোতে হলে বা অফিস যেতে হলে বা রান্না সারতে হলে আপনার তাড়াহুড়ো করার কোনও প্রয়োজন নেই। এর জন্য আপনার স্ট্রেস অনেকটাই কম হবে ফলে মানসিক শান্তিও বজায় থাকবে। আপনার দিন এক রাশ পজিটিভিটি দিয়ে শুরু হবে এবং এই অনুভূতি সারাদিন বজায় থাকবে। 

৪। দীর্ঘায়ু ও সুস্থ জীবন – দেখা গেছে যে যারা তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠেন এবং নানা রকম কাজ নিয়ে সারাদিন ব্যস্ত থাকেন, তাঁরা অনেক বেশি দিন বাঁচেন আর তাঁদের জীবনে স্ট্রেস কম (perks of rising early) থাকে ফলে তাঁরা সুখী জীবন যাপন করতে পারেন। 

৫। ঘুম সম্পূর্ণ হয় – সকালে তাড়াতাড়ি উঠলে স্বভাবতই রাত্রে আপনি তাড়াতাড়ি শুতে যাবেন। আর সেটাই কাম্য। কারণ তাড়াতাড়ি উঠে যদি আপনি দেরি করে ঘুমোতে যান তাহলে আপনার শরীর খারাপ হয়ে যাবে। আর সেই রাত জাগাটা যদি অকারণে হয় তাহলে তো আরও খারাপ। তাড়াতাড়ি উঠে তাড়াতাড়ি শুতে গেলে আপনার শরীরে যে জৈবিক ঘড়ি বা বায়োলজিকাল ক্লক আছে সেটা সেভাবেই অভ্যস্ত হয়ে যাবে। আর একটা সুস্থ জীবনের জন্য এটা খুব দরকার।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!     

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

24 Feb 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text