Advertisement

চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস

এই ভুলগুলো করলে কখনও চুল ভাল হবে না

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Jul 30, 2020
এই ভুলগুলো করলে কখনও চুল ভাল হবে না

Advertisement

চুল (hair) নিয়ে চুলোচুলি। এ যেন ঘর ঘর কি কহানি। কখনও চুল পড়ে যাচ্ছে বলে মনখারাপ। কখনও বা চুল অতিরিক্ত তৈলাক্ত বলে কোনও স্টাইল করতে পারছেন না। কখনও বা খুশকির সমস্যায় জেরবার আপনি। কোনও না কোনও একটা সমস্যা লেগেই থাকে।

মনে করুন, ছোটবেলায় মা তেল দিয়ে টেনে চুল বেঁধে দিত। আর ছুটির দিন শ্যাম্পু করিয়ে দেওয়াটা মাস্ট। হয়তো আলাদা কোনও প্যাকের কনসেপ্ট আপনার ছোটবেলায় ছিল না। কিন্তু তেল, শ্যাম্পুর রুটিন ছিলই। কোনও দিন ডিম বা দইয়ের টোটকাও কাজে লাগাতেল মা, মাসিরা। অর্থাৎ যত্ন হত। এখন তা আর হয় কই? কখনও সময়ের অভাব, কখনও বা সচেতনতার।

দেখুন, যত্ন আপনাকে করতেই হবে। তবেই চুল হবে সুন্দর। কিন্তু তার সঙ্গে সাধারণ কিছু ভুল (mistake) হয়ে যায়। যেগুলো আমরা এড়িয়ে যায়। সেই ভুল যদি বিউটি রুটিন থেকে বাদ দেওয়া যায়, তাহলেও কিছুটা উপকার পাবেন। দেখে নেওয়া যায়, চুলের যত্নে কিছু সাধারণ ভুল যেগুলো আমাদের চোখ এড়িয়ে যায়, সেগুলো কী?

 

ভিজে চুল হাত দিয়ে এই ভাবে ছাড়িয়ে নিতে পারেন, আঁচড়াবেন না। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

১) অনেকের ধারণা প্রত্যেকদিন শ্যাম্পু করা নাকি চুলের জন্য খারাপ। এই ধারণা ভুল। চুল পরিষ্কার রাখা জরুরি। আপনার লাইফস্টাইল, আপনার স্ক্যাল্পের ধরন অনুযায়ী চুল পরিষ্কারের রুটিন ঠিক করতে হবে। কারও জন্য প্রতিদিন শ্যাম্পু জরুরি হতে পারে। কারও বা একদিন অন্তর করলেও চলবে। যে কোনও ধরনের চুলের জন্য সপ্তাহে অন্তত তিন থেকে চারদিন শ্যাম্পু করা প্রয়োজন। এতে স্ক্যাল্প পরিষ্কার থাকবে। তাতে স্ক্যাল্প নিজস্ব তেল নিঃসরণ করতে পারবে। ভাল থাকবে চুল।

২) যতবার শ্যাম্পু করছেন, ততবার চুলে কন্ডিশনার লাগানো জরুরি। কিন্তু অতিরিক্ত কন্ডিশনার চুলের ক্ষতি করে। অনেকে শ্যাম্পুর সম পরিমাণ কন্ডিশনার ব্যবহার করেন। এটা একেবারেই ভুল। খুব অল্প পরিমাণ কন্ডিশনার চুলে লাগিয়ে ধুয়ে ফেলবেন। স্ক্যাল্পে কন্ডিশনার লাগানোর ভুলটাও মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে। এতে চুল আরও রুক্ষ্ম হয়ে যেতে পারে।

৩) হট ওয়াটার বাথ আমাদের অনেকের পছন্দের। অর্থাৎ সারা বছরই হালকা গরম জলে স্নান করতে ভালবাসেন অনেকে। কিন্তু এতে চুলের ক্ষতি হয়। নিয়মিত গরম জলে স্নান করলে চুলের প্রাকৃতিক তেল এবং কেরাটিন বেরিয়ে যায়। এতে চুল স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারায়।

৪) ভিজে চুল আঁচড়ানো বা বেঁধে রাখার অভ্যেস থাকলে তা আজই ত্যাগ করতে হবে। ভিজে অবস্থআয় চুল খুব নরম থাকে। সহজে ভেঙে বা ছিঁড়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

৫) ঘন ঘন চুল আঁচড়ানোর অভ্যেস থাকলে তা ত্যাগ করতে হবে। বারবার প্রয়োজনের অতিরিক্ত চুল আঁচড়ালেও চুল পড়ে যাএয়ীর সম্ভবনা প্রবল।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!