Advertisement

রূপচর্চা ও বিউটি টিপস

আনইভেন স্কিন টোনের সমস্যা? ভরসা রাখুন এই কয়েকটি ঘরোয়া উপায়ে

Indrani BoseIndrani Bose  |  Jan 18, 2021
আনইভেন স্কিন টোনের সমস্যা? ভরসা রাখুন এই কয়েকটি ঘরোয়া উপায়ে

Advertisement

আনইভেন স্কিন টোন বা মুখের ত্বকে নানা অংশে নানা রকম রং(get rid of uneven skin tone)। এই সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। মুখের এক এক অংশে রং এক একরকম হওয়ায় বিভিন্নভাবে সেই স্কিনটোন ঠিক করতে হয়। তার জন্য এক এক সময় অনেক পরিমাণে মেকআপ ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু সব সময় সেইসব করাও সম্ভব হয়ে ওঠে না। কনসিলারের সাহায্য ছাড়াও কখনও কখনও চলতে হয় আমাদের। 

কী কী কারণে আনইভেন স্কিন টোন হতে পারে?

কী কী কারণে আনইভেন স্কিন টোন হতে পারে?

নানারকম কারণেই আনইভেন স্কিন টোনের(get rid of uneven skin tone) সমস্যা হয়।

  • কখনও ভুল মেকআপ প্রোডাক্ট ব্যবহারের ফলে মুখের কোনও অংশের রং হয়তো অন্যরকম হয়ে যায়।
  • এইদিকে রোদে কারণে ত্বকে ট্যান পড়ে গিয়ে ত্বকের রং পাল্টে যেতে পারে।
  • বিভিন্ন স্কিন ব়্যাশের কারণেও এই সমস্যা হতে পারে।
  • আবার হরমোনাল পরিবর্তনের কারণেও এই ধরনের সমস্যা হতে পারে।

যদি হরমোনাল পরিবর্তনই আপনার আনইভেন স্কিন টোনের কারণ হয় তবে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের হয় পরামর্শ নিন। কিন্তু যদি অন্যান্য কারণগুলি আপনার আনইভেন স্কিন টোনের কারণ হয় তবে কয়েকটি ঘরোয়া উপায় আপনার জন্য রয়েছে। যার সাহায্যে আপনার মুখের ত্বকের প্রতি অংশেরই আসল রং ফিরে আসবে। আপনার ত্বকের ক্ষতিও হবে না, বরং আখেরে লাভই হবে।

কাঁচা পেপে ও দুধ

কাঁচা পেপেতে আছে প্যাপিন এবং আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড। এই দু’টি উপাদানই ত্বকের রং সমান করতে এবং ব্রণ-অ্যাকনের দাগ দূর করতে সাহায্য করে। আর কাঁচা দুধের উপকারিতা সম্বন্ধে নতুন করে বলার মতো কিছুই নেই। এক কাপ পেঁপের টুকরো নিন। তা ভাল করে চটকে নিন। এবার তার সঙ্গে দুই টেবিলচামচ কাঁচা দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে তা মুখে সমানভাবে লাগিয়ে রাখুন। আধঘণ্টা পরে ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নেবেন (get rid of uneven skin tone)। সপ্তাহে অন্তত একবার লাগাতেই পারেন এই প্যাক।

কমলালেবুর রস এবং কাঁচা হলুদ

পিগমেন্টেশন এবং ব্লিচিং এজেন্ট হিসেবে কাজে লাগানো হচ্ছে কমলালেবুর রস। আর কাঁচা হলুদ কাজে আসবে ত্বকের স্বাভাবিক টোন ফিরিয়ে আনতে। এক টেবিলচামচ কমলালেবুর রস ও এক চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা একসঙ্গে মিশিয়ে সারা মুখে লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট ওভাবেই রেখে দিন। তারপর ধুয়ে ফেলুন।

কমলা লেবুর রস ত্বককে উজ্জ্বল করে

লাল চন্দনবাটা, হলুদবাটা ও কাঁচা দুধ

এই টোটকায় সাদা চন্দনের বদলে কাজে লাগাতে হবে লাল চন্দনবাটা। রক্তচন্দনের রয়েছে অ্যান্টি এজিং উপাদান। তাই যদি আনইভেন স্কিন টোন বয়স বাড়ার কারণে হয়ে থাকে(get rid of uneven skin tone), তা হলে এই চন্দনবাটা তা কমাতে সাহায্য করবে।

নারকেল তেল ত্বককে ভাল রাখে

নারকেল তেল, লেবু আর চিনি

লেবু যে ন্যাচারাল ব্লিচ, তা কে না জানে? তাই ত্বকের দাগছোপ দূর করতে লেবুর কোনও তুলনাই হয় না। অন্যদিকে নারকেল তেল ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে। চিনি ব্যবহার করা হচ্ছে ত্বকের উপরে জমে থাকা মরা কোষ সরানোর জন্য। এক চা চামচ নারকেল তেল, আধ চা চামচ লেবুর রস আর এক টেবিলচামচ বড় দানার চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে তা দিয়ে মুখ আলতো হাতে স্ক্রাব করুন। যতক্ষণ না চিনি গলে যাচ্ছে মুখে হাত ঘষতে থাকুন। চোখের চারপাশে এই স্ক্রাবটি লাগাবেন না(get rid of uneven skin tone)। এরপর ঈষদুষ্ণ জলে মুখে ধুয়ে ফেলুন।

টমেটো, মধু ও লেবুর রস

ত্বকের দাগছোপ দূর করে মুখে ইভেন টোন ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে টমেটো। এই তিনটি প্রাকৃতিক উপাদানের সম্পূর্ণ সুফল পেতে চাইলে এক টেবিল চামচ মধু এবং টমেটোর রস মিশিয়ে নিন একসঙ্গে। তার মধ্যে দিয়ে দুই-তিন ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে নিন। একটি প্যাক বানানো হয়ে যাবে। এই প্যাকটি মুখে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট ওভাবেই রেখে ধুয়ে ফেলুন।

 

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!