home / বিনোদন
হঠাৎ কেন ‘মন ভাল’ হয়ে গেল স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের  ?

হঠাৎ কেন ‘মন ভাল’ হয়ে গেল স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের ?

বারবার বিতর্কেই নাম জড়িয়েছে তাঁর । যেন স্রোতের উল্টো দিকেই হাঁটতে ভালবাসেন তিনি । একইসঙ্গে কাউকে ছেড়ে কথা বলেন না । সঠিক জায়গায় সঠিক উত্তর দেওয়াতেই পরিচিতি রয়েছে তাঁর । বিভিন্ন ইস্যুতে বারবার সরবও হয়েছেন । টলিউডের এই মুখ বোল্ড ও বিউটিফুল । বুঝতেই পারছেন কে সেই অভিনেত্রী । স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় । কিন্তু বেশ অনেকদিন পর সম্প্রতি মন ভাল হয়ে গেল স্বস্তিকা ( swastika mukherjee is happy) -র । টুইটারেও লিখলেন সে কথা । কিন্তু কী এমন ঘটল, যা অভিনেত্রীর মনকে হঠাৎই ভাল করে দিল ?

সম্প্রতি ওয়েব সিরিজ ‘চরিত্রহীন ৩’ –এ স্বস্তিকা প্রশ্ন তুলেছেন, “ভালবাসতে ভুলে যাচ্ছে মানুষ ?” সেই প্রশ্নেরই যেন উত্তর নিজেই খুঁজে পেলেন তিনি । টুইটারে লিখলের শ্যুটিং ফ্লোরে অভিজ্ঞতার কথা । সেই অভিজ্ঞতা পড়ে বোঝা গেল, মন থেকেই ভীষণ খুশি স্বস্তিকা । যেন তৃপ্তি খুঁজে পেয়েছেন ।

শ্যুটিং ফ্লোরের অভিজ্ঞতার কথা লিখতে গিয়ে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় (swastika mukherjee ) লিখলেন, আজান হচ্ছে । সবাই কাজ থামিয়ে দিয়েছে । প্রত্যেক ধর্মবিশ্বাসী মানুষকে সম্মান জানাতে দেখে ভাল লাগল ।

সে সময়ের কথা লিখতে গিয়ে আরও লিখলেন, আজান শেষ হওয়া পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করব এবং তারপর আবার কাজ শুরু করব । “মনটা ভাল হয়ে গেল ।”

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে স্বস্তিকার পরবর্তী সিরিজ চরিত্রহীন ৩- এর টিসার । ডিসেম্বরেই তা মুক্তি পাবে এসভিএফ-র অনলাইন প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ে । স্বস্তিকা  (swastika mukherjee) -র সঙ্গেই এই সিরিজে অভিনয় করছেন সৌরভ চক্রবর্তীও । একইসঙ্গে তাঁর ‘তাসের ঘর’ হিন্দি ভাষায় মুক্তি পেয়েছে । তাসের ঘরে গৃহবধুর ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল স্বস্তিকাকে । সমসাময়িক সময় উঠে এসেছিল সেই শর্ট ফিল্মে । হইচইয়ে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি । লকডাউনের সময় সংসারের গল্পকথা তুলে ধরেছিলেন পরিচালক । একাকিত্ব, নিঃসঙ্গতাকে বন্ধু বানিয়েছিলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় । ফুল গাছের সঙ্গে তাঁর সময় কেটে যেত । কিন্তু চোখেমুখে ছিল যন্ত্রণার ছাপ, সেই যন্ত্রণা চরিত্রের সঙ্গে অতঃপ্রত ভাবে জড়িয়ে ছিল । ছবির কাহিনিতে পরিচালক একটু একটু করে পরিচয় করিয়েছিল সেই গৃহবধূর নিঃসঙ্গতা ও যন্ত্রণার সঙ্গে ।

সেই ভূমিকাতেও স্বস্তিকার অভিনয় প্রশংসনীয় । নেটিজেনদের প্রশংসা পেয়েছিল ছবিটি । এবার সেই একই ছবি হিন্দি ভাষাতেও মু্ক্তি পাবে । একইভাবে ভারতীয় দর্শকের কাছে প্রশংসা পাবে বলে বলে আশা করছেন তাসের ঘর ছবির নির্মাতারা । হিন্দি ভাষায় মুক্তি পাওয়ার কথা নিজেও টুইটারে শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী । তবে এসব কিছুর সঙ্গেও রয়ে গিয়েছে কিছুটা মন খারাপ, কিছুটা নস্টালজিয়া  ।

পরধর্মসহিষ্ণুতা দেখে মন ভাল স্বস্তিকার

মন ভাল হওয়ার বার্তার পরেই টুইটারে মন খারাপের আভাসও পাওয়া যায় । বাবা অর্থাৎ সন্তু মুখোপাধ্যায়ের কথা মনে করলেন স্বস্তিকা । ঝাউবনের ছবি দিয়ে ছোটবেলার কথা লিখলেন । স্মৃতির কথা লিখলেন । বাবাকে স্বস্তিকা কতটা মিস করেন, তা তাঁর টুইট পরে বেশ বেঝা গেল ।

 

স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়  লেখেন, “ছোটবেলায় দিঘা যাওয়ার সময় বাবা ঝাউবন দেখিয়ে বলত, ওটা পেরোলেই সমুদ্র । যেখানে কাজে এসেছি সেখানেও ঝাউবন আছে । ওই যে দূরে দেখা যাচ্ছে, ওটা পেরোলেই সমুদ্র । বাবা ও নেই, আমার আর দেখার ইচ্ছে ও নেই । ঘর থেকে ওই গাছগুলোই দেখি খালি ।“

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!
বাড়িতে
থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

10 Nov 2020

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text