আবিরের সঙ্গে 'সুইজারল্যান্ড' গেলেন রুক্মিণী!

আবিরের সঙ্গে 'সুইজারল্যান্ড' গেলেন রুক্মিণী!

কেরিয়ারের বয়স বেশি নয়। সঙ্গত কারণেই ছবির সংখ্যাও কম। কিন্তু যতগুলো ছবি সবই দেবের সঙ্গে। দেবই তাঁর অনস্ত্রিন নায়ক। এমন একটি তকমা লেগে গিয়েছিল রুক্মিণী (Rukmini) মৈত্রর সঙ্গে। এমনকি দেবের প্রযোজনা সংস্থাই ছিল তাঁর কমফর্ট জোন। তার বাইরে একটাই ছবিতে অভিনয় করেছেন। সেখানেও তাঁর নায়ক দেব! দেবের সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত রসায়নও সে আলোচনায় আসত। সে সব আপাতত বন্ধ। কারণ রুক্মিণীর নতুন নায়ক আবির (Abir) চট্টোপাধ্যায়। জিতের প্রযোজনা সংস্থা থেকে তৈরি হচ্ছে নতুন ছবি 'সুইজারল্যান্ড' (Switzerland)। সেখানেই আবিরের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন রুক্মিণী। বুধবার মুক্তি পেল সেই ছবির ফার্স্ট লুক। 

লাল কামিজ। খোলা চুল। ছোট্ট টিপ। সিঁথিতে সিঁদুরের ছোঁয়া। এমন লুকেই নতুন ছবিতে দেখা যাবে রুক্মিণীকে। সঙ্গে দুই শিশুও রয়েছে। একেবারে পারিবারিক ছবির ইঙ্গিত দিচ্ছে ফার্স্ট লুক। মধ্যবিত্ত দম্পতির চরিত্রে দেখা যাবে আবির-রুক্মিণীকে। এই ছবির মাধ্যমেই নতুন জুটিকে পাবে টলিউড। বিশ্বায়ন, বাজার অর্থনীতি, এই প্রজন্মের মানসিকতা, চাহিদা উঠে আসবে ছবিতে। নিঃসন্দেহে রুক্মিণীর কাছে এটা নতুন চ্যালেঞ্জ। কারণ এই ধরনের চরিত্রে এর আগে তাঁকে দেখেননি দর্শক।

রুক্মিণী জানিয়েছেন, এর আগে জিতের প্রযোজনা সংস্থা থেকেই দুটো ছবির অফার পেয়েছিলেন। কিন্তু সে সময় দেবের প্রযোজনা সংস্থার ছবির কাজে ব্যস্ত থাকার জন্য সময় বের করতে পারেননি। ফলে সে অফার হাতছাড়া হয়। তবে এবার আর অন্য দিকে মন দেননি তিনি। দেবকে ছাড়াই আবিরের সঙ্গে 'সুইজারল্যান্ড' পাড়ি দিয়েছেন।  অন্যদিকে শুধু অভিনেতা নন, প্রযোজক হিসেবেও টলিউডে নিজের জায়গা পোক্ত করতে শুরু করেছেন জিৎ। তাই নিজে অভিনয় না করলেও অন্যদের সুযোগ দিচ্ছেন। এই ছবিটি তেমনই উদাহরণ। এই প্রবণতা অবশ্য রয়েছে দেবের মধ্যেও। এমনকি শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়, নন্দিতা রায় জুটির প্রযোজনা সংস্থাও নতুন পরিচালকের সুযোগ দিচ্ছে।

আরও পড়ুন, নতুন গুপী-বাঘা নিয়ে আসছেন দেব-রাহুল, আবিরের সঙ্গে নতুন জুটি বাঁধছেন রুক্মিণীও

 

মডেলিং রুক্মিণীর কাপ অফ টি। কয়েক বছর আগেও এটাই জানতেন ইন্ডাস্ট্রির সদস্যরা। প্রচুর পরিশ্রম করে মডেলিং দুনিয়ায় নিজের জমি শক্ত করে নিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে হঠাৎই অভিনয়ে আসেন দেবের অনুরোধে। তারপর ধীরে ধীরে অভিনয়কে ভালবেসে ফেলেন তিনি। এক কথায় রুক্মিণী পারফেকশনিস্ট। অভিনয়কে আরও ধারালো করতে এখনও তিনি ফ্লোরে বাধ্য ছাত্রী। নিজের বাংলা উচ্চারণ পারফেক্ট করার উপরও নজর দিয়েছেন তিনি। অন্তত তাঁর অভিনয়ে সেই পরিশ্রমের ছাপ ধরা পড়ে বলেই মনে করেন সিনে মহলের সদস্যরা। এবার সামনে নতুন চ্যালেঞ্জ। আর সেটাও সসম্মানে উতরে যাবেন বলেই মনে করেন তাঁর অনুরাগীরা।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!