দিনের শুরুতে খালি পেটে কী-কী খাবেন, আর কোন-কোন খাবার এড়িয়ে চলাই ভাল

দিনের শুরুতে খালি পেটে কী-কী খাবেন, আর কোন-কোন খাবার এড়িয়ে চলাই ভাল

ভরা পেটে জল আর খালি পেটে ফল! এই কথাটা কতটা সত্যি? কেউ বলেন, দিনের শুরুতে খালি পেটে নাকি ফল খাওয়া উচিত নয়, আবার কারও কারও মতে দিনের শুরুটা যদি ফল দিয়েই করা উচিত! আচ্ছা তাই যদি হয়, তা হলে খালি পেটে কলা খেতে কেন বারণ করা হয়? তাই তো বুঝে ওঠা দায় যে, কোন কথাটা সত্যি, আর কোনটা গুজব! আমরা বলি, গুজবে কান দেবেন না! বরং খালি পেটে (Empty Stomach) কী-কী খাবার (Foods) খাওয়া উচিত, আর কোন-কোন খাবার এড়িয়ে চলাই ভাল, সে সম্পর্কে জানা না থাকলে, তা জেনে নিন আমাদের কাছ থেকে।


খালি পেটে যা খাওয়া চলতে পারে


১. ফল


food-1
খালি পেটে ফল খেলে কোনও ক্ষতিই হয় না। বিশেষজ্ঞদের মতে, দীর্ঘ আট ঘণ্টা ঘুমিয়ে ওঠার পরে পেট যখন একেবারে খালি থাকে, তখন যদি এক বাটি ফল খাওয়া যায়, তা হলে ভিটামিন এবং মিনারেলের ঘাটতি মিটতে সময় লাগে না। সঙ্গে হজম ক্ষমতারও যেমন উন্নতি ঘটে, তেমনই এনার্জির ঘাটতি মেটে চোখের পলকে। তাই তো সারাদিন ধরে এরপর অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে পড়ার আশঙ্কা আর থাকে না।


সকাল-সকাল ফল খাওয়া পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু এক্ষেত্রে কতগুলি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। যেমন ধরুন, সাইট্রাস জাতীয় ফল, অর্থাৎ পাতিলেবু, মৌসম্বি লেবু এবং কমলা লেবুর মতো ফল খালি পেটে খাওয়া চলবে না। এমনকী, কলা খাওয়াও উচিত নয়! কারণ, খালি পেটে কলা খেলে শরীরে হঠাৎ করে ম্যাগনেসিয়ামের মাত্রা বেড়ে যায়, যে কারণে হার্টের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তা হলে খালি পেটে কোন-কোন ফল খাওয়া যেতে পারে? ব্রেকফাস্টে পেঁপে, তরমুজ অথবা খেজুর খান আশ মিটিয়ে। ভেবে দেখুন, রমজান মাসে রোজা রাখার পর যখন উপবাস ভাঙা হয়, তখন এসব ফলই মূলত খাওয়া হয়! এমনকী, খালি পেটে আমলকির রস খেলেও মন্দ হয় না। তাতেও হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে চোখে পড়ার মতো।


আরও পড়ুন: মোটা নয়, রোগা হন নিয়মিত কলা খেয়ে!


২. ওটস


খলি পেটে এই খাবারটি খেলে হজম ক্ষমতার উন্নতি তো ঘটেই, সঙ্গে রক্তে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও আর থাকে না। এমনকী, রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। তবে এত সব উপকার পেতে প্লেন ওটস খেতে হবে। ফ্লেবার যুক্ত ওটস খেলে এই সব উপকার নাও মিলতে পারে।


৩. মধু


food-2
ঘুম থেকে ওঠা মাত্র এক কাপ গরম জলে চামচ তিনের লেবুর রস এবং মধু মিশিয়ে যদি নিয়মিত খাওয়া যায়, তাহলে শরীর নিয়ে আর কোনও চিন্তাই থাকবে না। কারণ খালি পেটে এই পানীয়টি খেলে দেহের রোগ প্রতিরোধক ব্যবস্থার যেমন উন্নতি ঘটে, তেমনি রক্তে মিশে থাকা টক্সিক উপাদানগুলি শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। ফলে ছোট-বড় কোনও রোগের পক্ষেই ধারে কাছে ঘেঁষা সম্ভব হয় না। এই পানীয়টির পরিবর্তে যদি খালি পেটে দু'চামচ করে মধু খাওয়া যায়, তাহলেও কিন্তু সমান উপকার মেলে।


৪. ডিম


দিনের শুরুটা যদি ডিম দিয়ে হয়, তা হলে মন্দ হয় না। বিশেষজ্ঞদের মতে, ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এবং মিনারেল, যা দেহের গঠনে বিশেষ ভূমিকা নেয়। তা ছাড়া এতে উপস্থিত প্রোটিন অনেকক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখে। ফলে বারে-বারে খাবার খাওয়ার প্রবণতা কমে। আর কম খাওয়ার কারণে ওজন নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার আশঙ্কাও আর থাকে না। ডিমে Choline নামে একটি উপাদান রয়েছে, যা মস্তিষ্কের ক্ষমতা বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। এবার নিশ্চয় বুঝতে পরেছেন, ব্রেকফাস্টে ডিম খাওয়ার প্রয়োজন কতটা!


আরও পড়ুন: জেনে নিন কী কী খাবার খেয়ে উপোস ভাঙা উচিত?


খালি পেটে যে-যে খাবার খাওয়া একেবারেই চলবে না


১. টোম্যাটো


food-3
এমনিতে এই সবজিটি বেজায় উপকারী। কিন্তু খালি পেটে খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। কারণ, এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় tannic acid, যা অ্যাসিডিটির মতো সমস্যাকে ডেকে আনে। এই উপাদানটির কারণে গ্যাস্ট্রিক আলসারের মতো রোগও হতে পারে। তাই টোম্যাটো খান, ক্ষতি নেই। কিন্তু খালি পেটে নৈব নৈব চ!


আরও পড়ুন: টোম্যাটো: ত্বক, চুল ও স্বাস্থ্যরক্ষার কাজে লাগান এই লাতিন আমেরিকান ফলটিকে!


২. চা এবং কফি


সকালে ধোঁওয়া ওঠা এক পেয়লা চা বা কফিতে চুমুক না মারলে অনেকেরই দিনটা ভাল যায় না। কিন্তু বিজ্ঞান বলছে খালি পেটে এমন পানীয় খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। কারণ, ঘুম থেকে ওঠামাত্র চা বা কফি খেলে অ্যাসিডিটির সমস্যা মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার আশঙ্কা থাকে। এমনকী, লেজুড় হতে পারে হজমের সমস্যাও। কারণ খালি পেটে চা বা কফি খাওয়ামাত্র হজমে সহায়ক অ্যাসিডের ক্ষরণ কমে যেতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই খাবার ঠিক মতো হজম হতে পারে না, যে কারণে দেখা দেয় গ্যাস-অম্বলের মতো সমস্যা। ফলে কিছু একটু মুখে দিয়ে তারপরই চা-কফি খান! 


৩. শসা এবং শাক-সবজি


food-4
ভরা পেটে খেলে নানা উপকার। কিন্তু খালি পেটে শসা বা সবুজ শাক-সবজি খেলে কিন্তু ভীষণ বিপদ! কারণ এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যামিনো অ্যাসিড, যা খালি পেট থাকাকালীন শরীরে প্রবেশ করলে গ্যাস-অম্বল হওয়ার আশঙ্কা যেমন থাকে, তেমনই তলপেটে যন্ত্রণা হওয়ার মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে।


৪. ঝাল জাতীয় খাবার


বিশেষজ্ঞদের মতে সকাল-সকাল ঝাল-মশলা দেওয়া খাবার খেলে পাকস্থলীর ক্ষতি হয়। এই ধরনের খাবারে শরীরে অ্যাসিডের মাত্রা এতটাই বেড়ে যায় যে, নানা ধরনের পেটের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। বিশেষত, বদ-হজম এবং গ্যাস-অম্বলের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই তো খালি পেটে এমন খাবার এড়িয়ে চলাই শ্রেয়!


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!