ব্রেস্ট ক্যান্সার: রোগের লক্ষণ বুঝতে বাড়িতেই breast examination সম্ভব। জেনে নিন নিয়মগুলি

ব্রেস্ট ক্যান্সার: রোগের লক্ষণ বুঝতে বাড়িতেই breast examination সম্ভব। জেনে নিন নিয়মগুলি

সময়টা একদমই ভাল নয়। আশেপাশে নানা জটিল রোগের প্রকোপ যে ভাবে বাড়ছে, তাতে যে কারও কপালে ভাঁজ পড়তে বাধ্য়। বিশেষ করে গত কয়েক দশকে ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা যে হারে বেড়েছে, তাতে প্রত্যেক মহিলারই সবধান হওয়ার সময় এসে গেছে। 'ব্রেস্ট ক্যান্সার ইন্ডিয়া'র প্রকাশ করা রিপোর্ট অনুসারে আজ থেকে বছর পঁচিশেক আগে ১০০ জন ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত মহিলার মধ্যে কুড়ি-তিরিশ বছর বয়সি মহিলাদের সংখ্যা ছিল কম-বেশি দুই শতাংশ। ৩০-৪০ বছর বয়সিদের সংখ্যা ছিল সাত শতাংশ। প্রায় ৬৯ শতাংশই ছিলেন পঞ্চাশোর্ধ্ব। কিন্তু আজ ছবিটা একেবারে পাল্টে গেছে। এখন পঞ্চাশ বছরের নীচে ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত মহিলাদের সংখ্যা বেড়ে প্রায় ৪৮ শতাংশে এসে ঠেকেছে। তাই বুঝতেই পারছেন, হাতে সময় থাকতে-থাকতে সাবধান না হলে চিন্তার বিষয়। অনেক ধরনের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে প্রথমদিকে সেভাবে শারীরিক লক্ষণ দেখা না গেলেও, ব্রেস্ট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে কিন্তু তেমন নয়। এক্ষেত্রে নিয়ম করে breast examination করলে রোগের উপস্থিতি সম্পর্ক জেনে ফেলা সম্ভব। আর এই পরীক্ষাটি বাড়িতেই করা যায়। এর জন্য চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। শুধু স্তন পরীক্ষার নিয়মগুলি জেনে নিতে হবে।

আরও পড়ুন: জানেন কি, কোন ১১টি ডাক্তারি পরীক্ষা মহিলাদের নিয়মিত করানো উচিত?

প্রথম ধাপ

Pixabay

বাথরুমে যদি আয়না থাকে, তা হলে তো কোনও কথাই নেই! না হলে যে ঘরে আয়না রয়েছে, সেই ঘরের সব আলো জ্বালিয়ে আয়নার সামনে টপটা খুলে দাঁড়ান। খেয়াল রাখবেন, এই সময় কাঁধ এবং হাত যেন রিল্যাক্সড থাকে। এবার ব্রেস্ট এবং তার আশেপাশের অংশ ভাল করে চেপে চেপে দেখুন তো কোনও লাম্পের সন্ধান পাচ্ছেন কিনা। ব্রেস্টের সাইজে কোনও পরিবর্তন হয়েছে কিনা, সেটাও একটু খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখতে হবে। যদি মনে কোনও সন্দেহ জাগে, তাহলে একবার চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে দেরি করবেন না যেন! এই রোগের (cancer) ক্ষেত্রে সময়টাই আসল ফ্যাক্টর। রোগ যত তাড়াতাড়ি ধরা পড়বে ততই মঙ্গল।

আরও পড়ুন: ভারী স্তন নিয়ে সমস্যায় ভুগছেন? জানুন, প্রাকৃতিক-কৃত্রিম নানা উপায়ে কীভাবে স্তন ছোট করবেন

দ্বিতীয় ধাপ

Pixabay

ইদানীং আপনার Nipple বা স্তনবৃন্তের রং বদলে গেছে কি? এটা খেয়াল করার পরে ব্রেস্টের এই অংশে চাপ দিয়ে দেখুন তো রস বেরচ্ছে কিনা। অনেক সময় ব্রেস্ট ক্যান্সারের প্রাথমিক স্টেজে এমন ধরনের লক্ষণ প্রকাশ পেয়ে থাকে। স্তনবৃন্ত এবং তার আশেপাশে চুলকালে খোসা ওঠার মতো চামড়া উঠলে জানবেন সাবধান হওয়ার সময় এসে গেছে।

তৃতীয় ধাপ

Pixabay

বগলের আশেপাশে আঙুল দিয়ে সার্কুলার মোশনে চিপে চিপে দেখুন তো কোনও lump হয়েছে কিনা। বগলের চামড়ায় যদি কোনও পরিবর্তন আসে, তা হলেও চিন্তার বিষয়। যদি বোঝেন চামড়া মোটা হতে শুরু করেছে, তা হলে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। বগলের আশেপাশের চামড়ায় কোনও পরিবর্তন এসেছে কিনা বুঝবেন কীভাবে? প্রথমে ডান দিকের বগলের চামড়া পরীক্ষা করুন, তারপর বাঁদিকের। তাতেই পরিবর্তনটা বুঝে যাবেন।

শেষ ধাপ

Pixabay

এবার চূড়ান্ত পরীক্ষার পালা। চিত হয়ে শুয়ে ব্রেস্ট এবং তার আশেপাশে আঙুল দিয়ে সার্কুলার মোশনে চিপে-চিপে ব্রেস্ট টিস্যু পরীক্ষা করে দেখতে হবে। এক্ষেত্রে বগল থেকে ক্লিভেজ পর্যন্ত অংশ মন দিয়ে পরীক্ষা করে বুঝে নিতে হবে কোনও বৈসাদৃশ্য রয়েছে কিনা। এক্ষেত্রে দু'টি ব্রেস্টেরই পরীক্ষা করবেন, তাতে তফাতটা বুঝতে সুবিধে হবে।

ঠিক কোন সময় breast examination করা উচিত?

Pixabay

প্রতি মাসে পিরিয়ড শেষ হওয়ার দিনতিনেক পরে ব্রেস্ট এক্সামিনেশন করতে পারেন। এই সময় ব্রেস্ট একেবারে স্বাভাবিক অবস্থায় থাকে, যে কারণে পরীক্ষা করে দেখাটা অনেক সহজ হয়ে যাবে। এভাবে প্রতি মাসে ব্রেস্ট এক্সামিনেশন করলে আপনার পক্ষে রোগের লক্ষণ বুঝে উঠতে দেখবেন কোনও সমস্যাই হবে না। আর যদি কোনও লক্ষণ চোখে পড়ে, তা হলে সঙ্গে-সঙ্গে অনকোলজিস্টের পরামর্শ নিতে হবে। প্রয়োজনে Mammogram এবং ব্রেস্ট আলট্রাসাউন্ড পরীক্ষা করে দেখে নিতে হবে আদৌ কোনও সমস্যা রয়েছে কিনা। টিউমারের ক্ষেত্রে biopsy করার প্রয়োজন হতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে রোগের উপস্থিতি বুঝতে চিকিৎসকেরা ব্রেস্ট MRI পরীক্ষাও করিয়ে থাকেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!