home / চুলের যত্ন নিয়ে নানা টিপস
এই আটটি উপকার পেতে বিউটি রুটিনে রাখুন আখরোট

এই আটটি উপকার পেতে বিউটি রুটিনে রাখুন আখরোট

ছোট্ট একটা ফল, কিন্তু তার গুণ অনেক। হতে পারে তার বাইরের খোলসটি খুব শক্ত। দেখে আর খেতে ইচ্ছে হয় না। কিন্তু জানেন তো, ভাল জিনিস পেতে গেলে অনেক ধৈর্য আর পরিশ্রম লাগে। এই ফল আমাদের তাই শেখায়। শক্ত খোলা ভাঙলেই ভিতরে রয়েছে সেই বাদাম। যাকে আমরা বলি আখরোট বা ওয়ালনাট। (8 amazing beauty benefits of walnut)

ইতিহাস বলছে হাজার-হাজার বছর আগে থেকে মানুষ তাঁদের প্রতিদিনের ডায়েটে আখরোটকে স্থান দিয়েছেন। এর জন্ম হল ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে এবং মধ্য এশিয়ায়। সেখান থেকে অবশ্য বণিকদের হাত ধরে এই বাদাম ছড়িয়ে পড়েছে সারা বিশ্বে। আজ আমাদের প্রতিবেদন সেই আখরোট নিয়েই। সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে কীভাবে কাজে লাগে আখরোট, আসুন জেনে নেওয়া যাক। 

ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে

আখরোটে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি। ভিটামিন বি আমাদের মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণ করতে এবং মুড সুইং ঠিক করতে সাহায্য করে। স্ট্রেস কমলে ত্বকে এমনিতেই লাবণ্য আসবে। ভিটামিন বি, ভিটামিন ই এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট একযোগে কাজ করে ত্বকের উপর এবং স্ট্রেস কমিয়ে বলিরেখা পড়া রোধ করে।

ত্বকে আর্দ্রতা যোগায়

যাঁদের ত্বক শুষ্ক তাঁরা নিয়মিত আখরোট খেতে পারেন। খেতে না চাইলে আখরোটের তেল হাল্কা গরম করে রোজ রাত্রে শোয়ার আগে ত্বকে লাগান। আখরোট আপনার ত্বক ভিতর থেকে আর্দ্র রাখবে। ত্বকে কোনও সমস্যাও হতে দেবে না।

ডার্ক সার্কল দূর করে

চোখের নীচে অতিরিক্ত স্ট্রেস, কাজের চাপ বা অন্যান্য কারণে দেখা দেয় ডার্ক সার্কল। আখরোট কিন্তু পারে ডার্ক সার্কল কম করতে। রাত্রে শোয়ার আগে চোখের নীচে অল্প করে উষ্ণ আখরোটের তেল লাগান। টানা কয়েক সপ্তাহ ব্যবহার করার পর আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন। এই তেল শুধু ডার্ক সার্কল নয় চোখের ফোলাভাবও দূর করে।

ত্বকে ঔজ্জ্বল্য আনে

এর জন্য আপনাকে সামান্য একটু পরিশ্রম করতে হবে। আখরোট পেস্ট করে তার মধ্যে ওটমিল পেস্ট করে দিন, আর তার সঙ্গে মেশান এক চা চামচ মধু, এক চা চামচ তাজা ক্রিম আর চার ড্রপ অলিভ অয়েল। আপনার বাড়িতে তৈরি ওয়ালনাট প্যাক রেডি। সপ্তাহে একবার করে টানা তিন থেকে চার মাস ব্যবহার করলে দেখবেন ত্বক সোনার মতো ঝলমল করছে।

চুল লম্বা ও মজবুত রাখে

আখরোটে আছে পটাশিয়াম, ওমেগা থ্রি, ওমেগা সিক্স ও ওমেগা নাইন ফ্যাটি অ্যাসিড। এই সব উপাদান হেয়ার ফলিকলকে মজবুত করে। চুল হয়ে ওঠে লম্বা, উজ্জ্বল, মজবুত। এর জন্য আপনাকে সপ্তাহে দুইবার আখরোটের তেল দিয়ে মাসাজ করতে হবে।

টাক পড়তে দেয়না

দীর্ঘদিন ধরে যদি চুল উঠে যায় বা চুল পড়ে যায় তাহলে আপনার মাথায় টাক পড়তে পারে। আর এটা একদমই কাম্য নয়। সপ্তাহে অন্তত তিনদিন আখরোটের তেল মাসাজ করুন মাথায়। দেখবেন আপনার এই সমস্যা অনেকটাই দূর হয়েছে।

খুসকি প্রতিরোধ করে

আখরোট একটি প্রাকৃতিক এজেন্ট যা খুসকি রোধ করতে সক্ষম। এই তেল স্ক্যাল্প ও চুলে আর্দ্রতা যোগায়। ফলে শুষ্ক কোষ জন্মাতে পারে না। আর এই কারণেই খুসকিও হয়না।

স্ক্যাল্পের যত্নে

নিয়ম করে মাথায় এই তেল মাসাজ করলে আপনার স্ক্যাল্প ভাল থাকবে। এই তেল আপনার স্ক্যাল্পকে আর্দ্র রাখে। আখরোটে যে অ্যান্টিফাঙ্গাল উপাদান আছে তা স্ক্যাল্পে কোনও সংক্রমণ ঘটায় না। এছাড়া এটি আপনার স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখে। আর স্ক্যাল্প যদি যত্নে থাকে তাহলে চুলও ভাল থাকবে। এছাড়া এই তেল চুলের রং ধরে রাখে। যারা চুলে রং করেন তাঁরা যদি এই তেল  ব্যবহার করেন তাহলে তাঁদের হাইলাইট আরও সুন্দর ও দীর্ঘস্থায়ী হবে।   

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

18 Nov 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text