logo
Logo
User
home / ডি আই ওয়াই বিউটি টিপস
ফাটা গোড়ালি থেকে মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া সমাধান (Cracked Heel Home Remedies In Bengali)

ফাটা গোড়ালি থেকে মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া সমাধান (Cracked Heel Home Remedies In Bengali)

আজকাল তো শুনি বাঙালি বিয়েতেও ‘সঙ্গীত’ নামক নাচ গানের আসর বসে। না সেটা কোনও দোষের নয়। তবে এই সঙ্গীতে যোগদান করতে গিয়ে বিপত্তির মুখোমুখি হল সঙ্গীতা। কি হল শুনবেন? প্রিয় বান্ধবীর বিয়েতে ঘাগরা চোলি পরে নাচার সময় সকলে তার বিচ্ছিরি ফাটা গোড়ালি (cracked heel) দেখে ফেলল। কি লজ্জা, কি লজ্জা! টিপটপ সুন্দরী সঙ্গীতার এত সাজুগুজুকে এক লহমায় মাটিতে মিশিয়ে দিল তার গোড়ালি (cracked heel)। অবশ্য সঙ্গীতাকেও দোষ দেওয়া যায়না। বেচারি কাজ করে আইটি কোম্পানিতে। পার্লারে যাওয়ার সময় কোথায়? আচ্ছা, আপনারও কি সামনে কোনও বিয়েবাড়ি আছে আর পার্লারে যাওয়ার সময় নেই? একদম দেরি করবেন না। বাড়িতেই গোড়ালির পরিচর্যা (home remedies) শুরু করে দিন আর ফাটা গোড়ালিকে বলুন টাটা বাইবাই।

আরও পড়ুনঃ পাইলসের বা অর্শের ঘরোয়া চিকিৎসা

কয়েকটি সহজ ঘরোয়া উপাচার – Cracked Heels Home Remedy In Bengali

  1. একটা পাত্রে ঈষদুষ্ণ জল নিন। তাতে ১ টেবিল চামচ নুন, হাফ কাপ লেবুর রস, ২ টেবিল চামচ গ্লিসারিন ও ২ টেবিল চামচ গোলাপ জল মেশান। ১৫-২০ মিনিট সেই জলে পা ডুবিয়ে বসে থাকুন। পিউমিস স্টোন দিয়ে আলত করে গোড়ালি ঘষে নিন। তারপর শুকনো তোয়ালে দিয়ে মুছে মোজা পরে নিন।অনেক সময় লেবুর রসে ত্বকে শুষ্কতা দেখা দিতে পারে। প্রয়োজন হলে সামান্য ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে পারেন।
  2. যে জায়গাগুলো ফেটেছে সেখানে শুতে যাওয়ার আগে ভেজিটেবিল তেল লাগিয়ে নিন। মোজা পরে নিন। পরদিন সকালে ধুয়ে ফেলুন।
  3. পাকা কলা ও পাকা অ্যাভোকাডোর অনেক গুণ আছে। এতে প্রচুর পরিমাণে এসেনশিয়াল অয়েল, ফ্যাট, ময়েশ্চার ও ভিটামিন আছে। পাকা কলা বা অ্যাভোকাডো চটকে সেটা ফাটা গোড়ালিতে লাগান। ১৫-২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।
  4. ভেসলিনের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ফাটা জায়গায় লাগান। তারপরে মোজা পরে নিন। সারারাত এভাবে রেখে পরের দিন ধুয়ে ফেলুন।লেবুর রসে থাকা অ্যাসিটিক অ্যাসিড ফাটা ত্বকের শুষ্ক ও মরা কোষকে নরম করে দেবে এবং ভেসলিন আর্দ্রতা জোগাবে।
  5. একটা পাত্রে ১ টেবিল চামচ প্যারাফিন ওয়াক্সের সঙ্গে ২ থেকে ৩ ফোঁটা নারকেল তেল বা সর্ষের তেল মেশান। মোম না গলা পর্যন্ত পাত্র গরম করুন। তারপর ঠাণ্ডা হলে সেটা ফাটা জায়গায় লাগিয়ে নিন। তবে যাদের মধুমেহ রোগ আছে তারা এটি করবেন না। অবশ্যই খেয়াল রাখবেন মোম গরম থাকা অবস্থায় সেটা পায়ে লাগাবেন না।
  6. মধুর গুনের কোনও শেষ নেই। মধু হল প্রাকৃতিক অ্যানটিসেপটিক। ঈষদুষ্ণ জলে এক কাপ মধু মিশিয়ে নিন। এবার ফাটা গোড়ালি ধীরে ধীরে ঘষুন। এই পদ্ধতি আপনি রোজ করতে পারেন। দেখবেন ফাটা গোড়ালির সমস্যা নিমেষে উধাও হয়ে গেছে।
  7. ২ থেকে ৩ টেবিল চামচ চালের গুঁড়ো নিন। তার সঙ্গে মেশান ১ চা-চামচ মধু ও ৩ থেকে ৪ ফোঁটা অ্যাপল সাইডার ভিনিগার। এগুলো মিশিয়ে ঘন প্রলেপ তৈরি রাখুন। ১০ মিনিট গরম জলে পা ডুবিয়ে বসুন তারপর এই প্রলেপ লাগান। আপনার পা যদি খুব বেশি ফাটা হয় তাহলে এর সঙ্গে অলিভ অয়েল বা আমন্ড অয়েল মিশিয়ে নিতে পারেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এগুলোও আপনি পড়তে পারেন

দাঁতের হলদে ছোপ দূর করার ঘরোয়া উপায়

হাতের তালু নরম রাখার ঘরোয়া উপায়

10 Dec 2018

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text