ঘরে বসে বিনা খরচে এবং অল্প পরিশ্রমে ওজন কমিয়ে ফেলুন এই আটটি কায়দায়!

ঘরে বসে বিনা খরচে এবং অল্প পরিশ্রমে ওজন কমিয়ে ফেলুন এই আটটি কায়দায়!

ওজন কম করে ছিপছিপে হওয়া, এটা হচ্ছে বাঙালি মেয়েদের প্রতি বছরের বাঁধাধরা নিউ ইয়ার রেজোলিউশন! কিন্তু আমাদের পোড়া কপাল, বারো মাসে তেরো পার্বণ যে! তাই জানুয়ারির শুরুতে নেওয়া রেজোলিউশন মাঝ-জানুয়ারিতে পৌঁছেই প্রায় হাওয়া! কারণ, পৌষ পার্বণ, বিয়েবাড়ি দিয়ে শুরু, তারপর একে-একে সরস্বতী পুজো, ভ্যালেন্টাইনস ডে, দোল পয়লা বৈশাখ, জামাই ষষ্ঠী, বর্ষাকাল, জন্মাষ্টমী, দুর্গাপুজো, দিওয়ালি, ভাইফোঁটা, কলকাতা জুড়ে নানা মেলা, বড়দিন কাটিয়ে ২০২১ যখন শুরু হবে, তখন দেখবেন, আপনি তো কমেনইনি উল্টে বেড়েছেন! অমনই আবার তেড়েফুঁড়ে রেজোলিউশন, দিনপনেরো গাজর-শসা চেবানো, তারপর আবার যে-কে সেই!

অবশ্য এই যে আমরা রেজোলিউশন রাখতে পারি না, তার পিছনে আরও একটি কারণও আছে। তা হল, রেজোলিউশনটি ধরে রাখার জন্য আমরা ঠিকঠার পথ নিই না। দেখুন, মধ্যবিত্ত বাঙালি বাপু, আমাদের খেয়ে-খাইয়ে সুখ। কাজেই ভাত ছেড়ে দেব, আইসক্রিম খাব না একটাও...এই গোছের অবাস্তব চিন্তাভাবনার আয়ু বড়জোর ওই দিনপনেরোই হয়। তার চেয়ে আমরা আটটি প্র্যাক্টিকাল কায়দা (tricks) বলে দিচ্ছি। এই অনুযায়ী এই বছরটা কাটিয়ে দিন। বছর কেন, মাসদু'য়েক কাটান, তা হলেই দেখবেন ওজন দাঁড়ি একটু হলেও আপনার মনের কথা বলতে শুরু করেছে...

ঘরে বসেই ধীরে-ধীরে ওজন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসার ৮টি কায়দা

না, জিমে যেতে হবে না। ডায়েটিংও করতে হবে না। মানতে হবে কতগুলো সহজ-সরল নিয়ম আর সেগুলিকে নিজের দৈনন্দিন রুটিনের অঙ্গ করে ফেলতে হবে। তা হলেই ওজন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসাটা (lose weight at home) আর স্বপ্ন হয়ে থাকবে না।

  1. দিন শুরু করুন সূর্য নমস্কার দিয়ে
  2. ব্রেকফাস্ট কোনওমতেই এড়িয়ে যাওয়া চলবে না
  3. কাজের লোকের সংখ্যা কমিয়ে দিয়ে সংসারের কাজ নিজেই সারুন
  4. বাড়িতে বাগান করুন
  5. ভাল করে ঘুমোন
  6. চিনির সঙ্গে আড়ি করুন
  7. খাবারের স্বাদের সঙ্গে পুষ্টির দিকেও নজর দিন
  8. পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান করুন

১. দিন শুরু করুন সূর্য নমস্কার দিয়ে

শাটারস্টক

যাঁরা যোগব্যায়াম করতে একটুও ভালবাসেন না, তাঁরাও এই ব্যায়ামটি অনায়াসে করতে পারবেন। কারণ, এটি আসলে অনেকগুলি পশ্চারের সমষ্টি। সকালে ঘুম থেকে উঠে এটি যদি বারকয়েক করতে পারেন, তা হলে সারা দিন আর অন্য কোনও এক্সারসাইজ করতে হবে না।

আরও পড়ুন: ওজন কমাতে ও ত্বকের জেল্লা বাড়াতে নিয়মিত সূর্য নমস্কার করুন!

২. ব্রেকফাস্ট কোনওমতেই এড়িয়ে যাওয়া চলবে না

পিক্সাবে

এটি দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মিল। তাই কোনওমতেই ব্রেকফাস্ট ব্যাপারটিকে হেলাচ্ছেদ্দা করবেন না। প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ব্রেকফাস্ট খান এবং কোনওমতে নাকেমুখে গুঁজে নয়, ধীরেসুস্থে চিবিয়ে খান। এই মিলটি শরীরকে সারা দিনের এনার্জি যেমন জোগাবে, ঠিক তেমনই ব্রেকফাস্টজনিত ক্যালরিও সারা দিন ধরে খরচ করার সময় পাবেন। আর ওজন কমতেও সময় লাগবে না।

আরও পড়ুন: মেদ ঝরানোর জন্য ব্রেকফাস্ট ও স্ন্যাক্স প্ল্যানিংয়ের টিপস, কী-কী খেতে পারেন জেনে নিন

৩. কাজের লোকের সংখ্যা কমিয়ে দিয়ে সংসারের কাজ নিজেই সারুন

পিক্সাবে

এটা যদি করতে পারেন, তা হলে কোনও জিম লাগবে না আপনার ট্রিম হতে! ভেবে দেখুন তো, গোবদা, মোটা কাজের দিদি কিংবা মাসি দেখেছেন কোনওদিন? তাঁদের অমন ছিপছিপে চেহারা কেন? কারণ, তাঁরা সারা দিন লোকের বাড়িতে শরীর খাটিয়ে খান! আপনাকে লোকের বাড়িতে কাজ করতে পাঠানো হচ্ছে না, কিন্তু নিজের বাড়ির কাজটুকু করুন, তা হলেই অনেক উপকার পাবেন। ওজন তো কমবেই, শরীরও টোনড হবে।

আরও পড়ুন: হাউজওয়াইফদের জন্য সহজ-সরল এক্সারসাইজ প্ল্যান, দৈনন্দিন কাজকর্মের মাঝেই হয়ে যাবে শরীরচর্চা!

৪. বাড়িতে বাগান করুন

Pixabay

সবুজ বাঁচবে, পরিবেশ বাঁচবে আর গার্ডেনিং করতে গিয়ে আপনারও মাথার ঘাম পায়ে পড়বে! বাগান মানে যে বাড়িতে একগাদা জায়গায় কেয়ারি করে ফুল-ফলের গাছ লাগাতে হবে, তা নয়। জানলায়-জানলায় টব রাখুন না...সপ্তাহে একদিন সেগুলোর মাটি খুঁড়ে সার দিন, শুকনো পাতা কেটে ফেলুন, কীটনাশক স্প্রে করুন, এতেই যা পরিশ্রম হবে, তা অনেক ক্যালরি খরচে সাহায্য করবে। ওজনও কমল, আবার পরিবেশও বাঁচল!

৫. ভাল করে ঘুমোন

Pixabay

তা বলে দুপুরে দিবানিদ্রা দিতে যাবেন না। রাতে ভাল করে ঘুমোন। মোবাইল নিয়ে খুটখুট করতে-করতে নয়, অফিসের কাজকর্মের কথা ভাবতে-ভাবতে নয়, বিশ্রাম করবেন ভেবে ঘুমোন। ভাল ঘুম হলে তবেই শরীর চাঙ্গা হবে আর তবেই আপনি নতুন করে বাড়তি ক্যালরি খরচ করার সুযোগ পাবেন।

আরও পড়ুন: সকালে ঘুম থেকে উঠে এই ক'টি কাজ করবেন এবং আরও ক'টি কাজ, যা করবেন না!

৬. চিনির সঙ্গে আড়ি করুন

Pixabay

আইসক্রিম, কোল্ড ড্রিঙ্ক খাওয়া কমান, বন্ধ করার প্রয়োজন নেই। কারণ, সত্যি কথা বলতে গেলে রোজ-রোজ তো আর আইসক্রিম-কোল্ড ড্রিঙ্ক খাওয়া হয় না। কিন্তু চিনি আমরা রোজ খাই। চায়ে-পানীয়ে-খাবারে...তাই চিনির সঙ্গে কয়েকমাস আড়ি করুন। রান্নায় যেটুকু দিচ্ছেন দিন, কিন্তু চায়ে-কফিতে চিনি বন্ধ!

আরও পড়ুন: শরীর সুস্থ রাখতে এবং ওজন না বাড়াতে চিনি বা মিষ্টির বিকল্প হিসেবে এই খাবারগুলি খেতেই পারেন

৭. খাবারের স্বাদের সঙ্গে পুষ্টির দিকেও নজর দিন

Pixabay

খাবার সুস্বাদু হওয়া যতটা জরুরি, তার চেয়ে ঢের বেশি জরুরি পুষ্টিকর হওয়া। তাই আপনার প্রতিটি মিল দু ভাগে ভাগ করুন। একটি ছোট ভাগে থাক চটপটা খাবার, যেটি খাবেন রসনাতৃপ্তির জন্য, অন্য ভাগটি ভরা থাক পুষ্টিকর খাবারে। 

আরও পড়ুন: জানেন কি, এই আটটি খাবার পেটপুরে খেলেও আপনার ওজন কমবে তরতরিয়ে!

৮. পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান করুন

Pixabay

জলকে তো আর সাধে জীবন বলে না! দিন দুই লিটার জল তো খাবেনই, তার চেয়ে বেশি খেতে পারলেও ভাল। তবে জোর করে ঠুসে-ঠুসে জল খাবেন না। ওতে কিডনির উপর চাপ পড়ে বেশি। পিপাসা পেলে জল খান, কোনও খাবার খাওয়ার আগে ও পরে এক গ্লাস করে জল খান। ঘুম থেকে উঠে এবং ঘুমোতে যাওয়ার আগে জল খান...

আরও পড়ুন: জল পান করারও নিয়ম আছে! আপনি কি সঠিক পদ্ধতিতে জল পান করছেন?

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!