logo
Logo
User
home / ডি আই ওয়াই বিউটি টিপস
এই ১৩ টি পদ্ধতিতে চোখের নিচের কালি দূর করা সম্ভব, তাও চিরকালের মতো (Dark Circle Removal)

এই ১৩ টি পদ্ধতিতে চোখের নিচের কালি দূর করা সম্ভব, তাও চিরকালের মতো (Dark Circle Removal)

চোখের নিচে কালি (Dark Circle) পড়েনি, এমন বোধ হয় কেউ নেই এখানে! জীবনে একবার না একবার আমাদের সবারই এরকম অভিজ্ঞতা হয়েছে, কারো কম, কারো বেশি. অনেক ট্রিটমেন্ট, অনেক বিউটি প্রোডাক্টস (Beauty Products) ব্যবহার করে হয়তো সাময়িক সুরাহা (Temporary Solution) হয়েছে, কিন্তু চিরকালের (Permanently) মতো চোখের নিচে কালি দূর করা যায়নি. আগেকার দিনে ঠাকুমা-দিদিমারা নানা রকম ঘরোয়া পদ্ধতির ব্যবহার করে নিজেদের সৌন্দর্য্য বজায় রাখতেন. আপনি বলবেন, তাদের হাতে অনেক সময় ছিল রূপচর্চা করার, আপনার মতো রোজ অফিস যেতে হতো না! আমি মানছি সে কথা, কিন্তু আপনি বলুন তো, ভালো লাগে রোজ নিজের চোখের নিচের কালি (Dark Circle) দেখতে? আর কত কনসিলার লাগিয়ে চোখের নিচের কালি ঢাকবেন? বেশি কসমেটিক ব্যবহার ত্বকের জন্যও একেবারেই ভালো না, সে যত ভালো ব্রান্ডেরই হোক না কেন. আর তা ছাড়া যদি এমন কোনো উপায় থাকতো, যাতে চিরকালের (Permanently) জন্য এই কালোভাব থেকে মুক্তি পাওয়া (Solutions) যেত, তাহলে কি ভালোই না হতো!

dark-circle-remove-bengali-home-remedy FB

আপনার দৈনিক রূপচর্চার রুটিনে (Beauty Routine) যদি কয়েকটা ঘরোয়া পদ্ধতি (Home Remedy) যোগ করে নেন, তাহলে কিন্তু আপনি এই চোখের নিচের কালির (Dark Circle) থেকে চিরকালের (Permanently) মতো মুক্তি পেতে (Solutions) পারেন. শুধু তাই না, যেহেতু এগুলো সবই রূপচর্চার (Beauty Routine) ঘরোয়া পদ্ধতি (Home Remedy), তাই এর কোনো সাইড-এফেক্টও নেই, উপরন্তু, আপনার সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে রূপচর্চার (Beauty Routine) ঘরোয়া পদ্ধতিগুলি (Home Remedy) যথেষ্ট সাহায্য করে. আপনাকে বেশি কিছু করতে হবে না, আপনার রান্নাঘরেই অনেক জিনিস পেয়ে পাবেন.

শীতকালে শুষ্ক হাতের তালু নরম রাখতে কিছু ঘরোয়া উপায়

চোখের নিচের কালি দূর করার কয়েকটি অসাধারন ঘরোয়া পদ্ধতি – Home Remedies For Dark Circles In Bengali 

এখানে ১৩ টা ঘরোয়া পদ্ধতির (Home Remedy) কথা জানাচ্ছি, যেগুলির নিয়মিত ব্যবহারে আপনার চোখের নিচের কালি (Dark Circle) থেকে আপনি চিরকালের (Permanently) মতো মুক্তি পেতে (Solution) পারেন, দরকার শুধু একটু ধৈর্য.

আলু – Potato

আলু যে শুধু রান্নায় ব্যবহার হয় তা কিন্তু না, চোখের নিচের কালি (Dark Circles) দূর করার (Remove) জন্য এর জুড়ি নেই. আলুতে এনজাইম আর স্টার্চ থাকে, যেগুলো ত্বকের (Skin) জন্য খুব ভালো, এবং ডার্ক সার্কেল দূর করতেও সাহায্য করে.

dark-circle-bengali-potato

একটা ছোট সাইজের আলু ভালো করে ধুয়ে নিয়ে রস করে নিন. এবারে তুলোর বল তৈরী করে আলুর রসে বল ভিজিয়ে সারা রাত চোখের ওপরে রেখে দিন. প্রতিদিন এভাবে একমাস করুন, দেখবেন, ধীরে ধীরে চোখের নিচের কালোভাব (Dark Circles) দূর হয়ে যাবে.

মধু – Honey

dark-circle-removing-home-remedy-honey

শীতকালে মধু খেলে শরীর গরম থাকে এবং সর্দি-কাশি হয় না, এটা আমরা সবাই জানি. কিন্তু আপনি কি জানেন যে মধু ডার্ক সার্কেল (Dark Circles) দূর করতে (Remove) সাহায্য করে? মধুতে এন্টিঅক্সিডেন্ট (Antioxidants) প্রপার্টি রয়েছে যা ত্বককে (Skin) পুষ্টি যোগায় এবং স্কিন-লাইটনিংএ (Skin Lightning) সাহায্য করে. নিয়মিতভাবে চোখের নিচে মধু লাগালে কয়েকদিনের মধ্যেই ডার্ক সার্কেল ভ্যানিস হয়ে যাবে.

টোম্যাটো – Tomato

টম্যাটোর রসের সাথে সামান্য পাতিলেবুর রস মিশিয়ে চোখের তলায় লাগিয়ে মিনিট দশেক রেখে দিন. এরপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন. টোম্যাটো খুব ভালো ন্যাচার ব্লিচ, আর লেবু স্কিন-লাইটনিংএ (Skin Lightning) সাহায্য করে, ফলে এই ঘরোয়া পদ্ধতি (Home Remedy) নিয়মিত ভাবে ব্যবহার করলে কয়েকদিনের মধ্যেই আপনি ডার্ক সার্কেল (Dark Circles) থেকে মুক্তি (Solutions) পেয়ে যাবেন.

হলুদ – Turmeric

dark-circle-bengali-turmeric

হলুদের অনেক গুণ. রান্নায় লাগে, কাঁচা হলুদ লিভারের পক্ষে ভালো, স্কিন-লাইটনিংএ (Skin Lightning) সাহায্য করে, ইমিউনিটি বাড়ায়; আবার ডার্ক সার্কেলও (Dark Circles) দূর (Remove) করে! ভাবতে পারছেন! অনেক রকম বিউটি প্রোডাক্টসে (Beauty Products) হলুদ ব্যবহার করা হয়. বহু যুগ আগে থেকেই রুপটান হিসেবে হলুদ ব্যবহার করা হতো. চোখের নিচের কালি দূর (Remove) করার জন্য আপনাকে শুধু একটা কাজ করতে হবে, ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো (যেটা আপনি আপনার রান্নাঘরেই পেয়ে যাবেন) আর ১ চা চামচ আমন্ড অয়েল ভালো করে মিশিয়ে সেই মিশ্রণটা চোখের চারপাশে লাগিয়ে নিন. এবার মিনিট খানেক ধরে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করে ছেড়ে দিন. ১৫-২০ মিনিট পরে জল দিয়ে ধুয়ে নিন. ব্যাস!

শসা – Cucumber

নানা বিউটি প্রোডাক্টসে (Beauty Products) শশা ব্যবহার করা হয় কারণ শশাতে Cucurbitacins, Vitexin, এবং Orientin-এর মতো এন্টিঅক্সিডেন্টস (Antioxidants) রয়েছে. এইগুলো চোখের কোলের কালোভাব (Dark Circles) দূর করতে (Remove) সাহায্য করে. একটা শসা নিয়ে গোল গোল করে কেটে নিন. এবারে চোখের ওপরে দু’স্লাইস শশা রেখে দিন মিনিট ২০. সপ্তাহে ৩-৪ বার এই ঘরোয়া পদ্ধতি (Home Remedy) প্রয়োগ করে দেখুন ডার্ক সার্কেল আপনার কাছে একটা লুপ্তপ্রায় শব্দ বলে মনে হবে!

গ্রিনটি ব্যাগ – Green Tea Bag

dark-circle-bengali-green-tea

গ্রিনটি শরীরের জন্য খুব ভালো,সেটা আমরা সবাই জানি. আসলে চোখের নিচের অংশে রক্তশিরাগুলি প্রসারিত হলে তখন সেই জায়গাটা কালচে হতে আরম্ভ করে, ফলে ডার্ক সার্কেল তৈরী হয়. গ্রিনটি এই রক্তশিরাগুলি প্রসারিত হওয়া বন্ধ করতে সাহায্য করে. গ্রিনটি ব্যাগ জলে ভিজিয়ে ফ্রিজে ঠান্ডা হতে দিন. প্রতিদিন রাত্রে শোবার আগে অন্তত ১০ মিনিট ওই ঠান্ডা টি ব্যাগ চোখের ওপরে রেখে দিন.

কাঁচা দুধ – Raw Milk

আগেকার দিনে রাজা-রানীরা দুধ দিয়ে স্নান করতেন সেজন্যই তাঁদের ত্বক (Skin) এতো মোলায়েম এবং সুন্দর হতো. এখনো অনেক বিউটি প্রোডাক্টে (Beauty Products) দুধ ব্যবহার করা হয়. এমনকি এখনো অনেকেই রূপচর্চায় (Beauty Routine) কাঁচা দুধ ব্যবহার করেন. কাঁচা দুধ ত্বককে (Skin) মসৃন করতে এবং ত্বকের সঠিক গঠন ধরে রাখতে সাহায্য করে. এছাড়া বলিরেখা (Fine Lines), একনে (Acne) এগুলিও দূর করে. রোজ একবার করে যদি কাঁচা দুধ দিয়ে চোখের তলা পরিষ্কার করা যায়, তাহলে খুব তাড়াতাড়ি ডার্ক সার্কেলের (Dark Circles) সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া (Remove) যায়.

গোলাপ জল – Rose Water

dark-circle-removing-home-remedy-rose-water

বহু বিউটি প্রোডাক্টসে (Beauty Products) গোলাপ জল ব্যবহার করা হয়ে থাকে. ফেস ওয়াশ থেকে আরম্ভ করে প্যাক, আয়ুর্বেদিক (Ayurvedic) প্রোডাক্ট থেকে আরম্ভ করে অন্যান্য নানা কসমেটিক্স – কম-বেশি সব প্রোডাক্টই একটা উপকরণ কমন, সেটা হলো গোলাপ জল. গোলাপ জল ত্বককে সজীব এবং সতেজ রাখতে সাহায্য করে. প্রতিদিন দিনে ২ বার করে গোলাপজল চোখের নিচে লাগালে একমাসের মধ্যে ডার্ক সার্কেল (Dark Circles) থেকে মুক্তি পাবেন.

লেবুর রস – Lime Juice

আগেই বলেছি যে লেবুর রস স্কিন লাইটনিংএ (Skin Lightning) সাহায্য করে. এছাড়া লেবুর রসে ভিটামিন সি (Vitamin C) এবং এন্টিঅক্সিডেন্ট (Antioxidants) প্রপার্টিস রয়েছে যা ত্বকের (Skin) থেকে মরাকোষ (Dead Cells) সরায় এবং ত্বকের (Skin) হারানো ঔজ্জ্বল্য (Brighten) ফিরিয়ে আনে. প্রতিদিন দু’বার করে লেবুর রস চোখের তলায় লাগালে কিছুদিনের মধ্যেই ডার্ক সার্কেল (Dark Circles) দূর হয়ে (Remove) যাবে. তবে মনে রাখবেন, আপনার যদি সেনসিটিভ স্কিন হয়, তাহলে এই ঘরোয়া পদ্ধতিটি (Home Remedy) প্রয়োগ না করে ভালো.

এলোভেরা জেল – Aloe Vera Gel

Patanjali-Aloevera-Gel

বাজারে নানা ব্রান্ডের এলোভেরা জেল পাওয়া যায়. যে কোনো একটা কিনে এনে প্রতিদিন ডার্ক সার্কেলে (Dark Circles) লাগান, দেখবেন ক’দিনের মধ্যেই চোখের তলা থেকে কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে. আপনি যদি আয়ুর্বেদে (Ayurvedic) বিশ্বাস করেন তাহলে পতঞ্জলি কিংবা হিমালায়ার এলোভেরা জেল ব্যবহার করতে পারেন. যেহেতু এগুলি আয়ুর্বেদিক (Ayurvedic) প্রোডাক্ট, তাই ত্বকের (Skin) কোনো ক্ষতি করে না.

নারকোল তেল – Coconut Oil

কয়েক ফোটা নারকেল তেল নিয়ে ভালো করে চোখের কোলে ম্যাসাজ করুন. ক্লক-ওয়াইজ এবং এন্টিক্লক-ওয়াইজ ভাবে. প্রতিদিন দু’বার করে এই পদ্ধতি প্রয়োগ করলে ডার্ক সার্কেলের সমস্যা আর থাকবে না. এই পদ্ধতিটি নিজের রূপচর্চার রুটিনে (Beauty Routine) সামিল করে নিন যদি আপনি সত্যিই চোখের নিচের কালচে ভাব দূর করতে চান.

আমন্ড অয়েল – Almond Oil

dark-circle-removing-home-remedy-almond-oil

আমন্ড অয়েল বা বাদাম তেল ভিটামিন ই-তে (Vitamin E) সমৃদ্ধ. আর ভিটামিন ই ত্বকের জন্য কতটা উপকারী সেটা আর আলাদা করে না বললেও চলে আশা করি! কয়েকফোটা বাদাম তেল নিয়ে ভালো করে চোখের চারপাশে মালিশ করুন. সারা রাত রেখে দিন. পরদিন সকালে ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন. আমন্ড অয়েল ব্যবহার করার সময় একটা জিনিস মাথায় রাখবেন যে আমন্ড অয়েল দু’ধরণের হয়, একটা এরোমা থেরাপির জন্য ব্যবহার করা হয় এবং অন্যটি স্কিনের (Skin) জন্য. স্কিনের জন্য যেটা ব্যবহার করা হয়, সেটাই কিনবেন.

আপেল-সিডার ভিনিগার – Apple-cider Vinegar

আপেল-সিডার ভিনিগার ভিটামিন এবং এনজাইমে সমৃদ্ধ. সামান্য আপেল-সিডার ভিনিগার নিয়ে তুলো দিয়ে চোখের নিচের কালো অংশে লাগান. সাবধানে লাগাবেন, যেন চোখে ভিনিগার না ঢুকে যায়! আপনাআপনি ভিনিগার শুকোতে দিন. এভাবে দিনে ২’বার করুন, কদিনের মধ্যেই ফল পাবেন.

ডার্ক সার্কেল সম্বন্ধে কিছু প্রশ্ন এবং তার সঠিক উত্তর – FAQs

প্রশ্ন ১. ডার্ক সার্কেল কেন হয়?

উত্তর: চোখের নিচে কালি পড়ার (Dark Circles) অনেক কারণ (Reasons) থাকতে পারে. স্ট্রেস, ঘুমের অভাব, সঠিক ডায়েট না মানা অর্থাৎ অতিরিক্ত পরিমানে ভাজা বা তৈলাক্ত খাবার খাওয়া, জল কম খাওয়া, অতিরিক্ত বিউটি প্রোডাক্টস (Beauty Products) ব্যবহার করা, রোদে বেশি ঘোরাঘুরি করা – এরকম অনেক কারণে চোখের তলায় কালি পড়তে পারে.

প্রশ্ন ২. ডার্ক সার্কেল কি হেরিডিটি থেকে আসতে পারে?

উত্তর: হ্যাঁ. অনেকসময় জীন-ঘটিত (Heredity) কারণে ডার্ক সার্কেল (Dark Circles) হয়ে থাকে. তাছাড়া লিভারের সমস্যা থাকলে কিংবা এলার্জি থাকলেও ডার্ক সার্কেলের সমস্যা দেখা যায়. অনেকে আবার নানা কারণে অনেক রকম ওষুধ খান, তার সাইড এফেক্ট হিসেবেও অনেক সময় চোখের কোলে কালচে ভাব দেখা যায়.

প্রশ্ন ৩. এমন কি কোনো উপায় আছে যার ফলে ডার্ক সার্কেলের সমস্যা তৈরিই হবে না?

উত্তর: এরকম কোনো উপায় নেই যার ফলে ডার্ক সার্কেলের (Dark Circles) সমস্যা তৈরিই হবে না, কিন্তু কিছু কিছু নিয়ম ফলো করলে এই সমস্যা প্রতিরোধ করা যায়. যেমন, যখন বাইরে বেরোবেন তখন ভালো করে সানস্ক্রিন লাগিয়ে বেরোন, সানগ্লাস পড়ুন; কি খাচ্ছেন তার দিকে একটু নজর দিন, বেশি করে ফল, শাক, সবজি, জল, দুধ এগুলো খান; অতিরিক্ত মেকআপ ব্যবহার না করা ভালো, যদি একান্তই তা করতে হয় নামি ব্রান্ডের মেকআপ ব্যবহার করুন এবং বাড়ি ফিরে অবশ্যই মেকআপ তুলে তারপর শুতে যাবেন; ঘুমের ঘাটতি রাখবেন না, অন্তত ৬-৭ ঘন্টা ঘুমোন; যদি আপনি এলকোহল নেন কিংবা স্মোক করেন তাহলে সেটা বন্ধ করুন.      

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

      

14 Dec 2018

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text